তৃণমূলের ‘শুভেন্দু দ্বিচারিতা’, সৌগত-সুব্রত আলোচনায়, অভিষেক-ফিরহাদ-কল্যাণ তাড়ানোয় ব্যস্ত

1225
তৃণমূলের 'শুভেন্দু দ্বিচারিতা', সৌগত-সুব্রত আলোচনায়, অভিষেক-ফিরহাদ-কল্যাণ তাড়ানোয় ব্যস্ত
তৃণমূলের 'শুভেন্দু দ্বিচারিতা', সৌগত-সুব্রত আলোচনায়, অভিষেক-ফিরহাদ-কল্যাণ তাড়ানোয় ব্যস্ত

মানব গুহ, কলকাতাঃ তৃণমূলের ‘শুভেন্দু দ্বিচারিতা’। সৌগত-সুব্রত আলোচনা চান; অভিষেক-ফিরহাদ-কল্যাণ তাড়ানোয় ব্যস্ত। সত্যি কি শুভেন্দু অধিকারীকে; দলে রাখতে চায় তৃণমূল? কেউ বুঝতে পারছেন না! বাংলার রাজনৈতিক মহল থেকে শুরু করে; তৃণমূল কর্মী সমর্থক; সবার প্রশ্ন একটাই, শুভেন্দুকে সত্যি ধরে রাখতে চায় দল? একদিকে সৌগত রায় ও সুব্রত বক্সি যেমন বারবার বলছেন; “শুভেন্দু এখনও দল ছাড়েন নি; ওর সঙ্গে কথা হবে”। অন্যদিকে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়; প্রতিদিন শুভেন্দুকে আক্রমণ করে চলেছেন। রবিবার, প্রকাশ্য জনসভায়; শুভেন্দুকে কটাক্ষ করেছেন অভিষেক। উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে; নন্দীগ্রামের বিধায়ককে একহাত নিয়েছেন ফিরহাদ। আর কল্যাণ তো শুধু শুভেন্দু নন; গোটা অধিকারী পরিবারকেই অপমান করে চলেছেন প্রকাশ্যে। তৃণমূলের ‘শুভেন্দু দ্বিচারিতা’ কেন?

তৃণমূলের ‘শুভেন্দু দ্বিচারিতা’ কেন? এটাই এখন বাংলার সবচেয়ে বড় প্রশ্ন। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে, তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা; সেই সঙ্গে বাংলার রাজনৈতিক মহল। সবার প্রশ্ন একটাই। শুভেন্দুকে সত্যি ধরে রাখতে চায় ঘাসফুল শিবির? একদিকে সৌগত-সুব্রত, শুভেন্দুর ক্ষোভ প্রশমন করতে ব্যস্ত। অন্যদিকে, তাঁকে বিজেপি পাঠাতে প্রতিদিন সমালোচনা; ফিরহাদ-কল্যাণের। সেই সমালোচনায় এবার যোগ দিলেন; অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেও। তৃণমূল সূত্রে খবর, পিকের পর এই অভিষেকের বিরুদ্ধেই সবচেয়ে বেশি ক্ষোভ; নন্দীগ্রাম আন্দোলনের নেতার।

আরও পড়ুনঃ স্বয়ং মমতা কি চান, শুভেন্দু তৃণমূলে থাকুন

“দলের কয়েকজন ওকে, বিজেপিতে পাঠাতে চায়; কল্যাণ ঠিক করছেন না”; এবার মুখ খুলেছেন সাংসদ শিশির অধিকারীও। ছেলে শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে যখন রাজ্য রাজনীতির জল্পনা চরমে; তখন বাবা শিশির পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন; “শুভেন্দু মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিয়েছে; ক্ষোভ, অভিমান আছে। তবে দলেরই কয়েকজন জোর করে ঠেলে; ওকে বিজেপিতে পাঠিয়ে দিতে চায়। কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় শুভেন্দু সম্পর্কে যা বলছেন; তা ঠিক করছেন না”।‌ “তৃণমূলেই থাকব” বলেও, দলের নেতারা শুভেন্দু নিয়ে যা বার্তা দিচ্ছেন; তার বিরুদ্ধেই মুখ খুললেন সাংসদ শিশির অধিকারী।

প্রশ্ন এখন একটাই; স্বয়ং মমতা কি চান? সৌগত-সুব্রত চাইলেও; শুভেন্দুকে একযোগে অ’শা’লীন আ’ক্রমণ; ফিরহাদ ও কল্যাণের; সঙ্গে তাল দিচ্ছেন অভিষেক। এরপরেই প্রশ্ন উঠেছে; সত্যি কি দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চান যে; শুভেন্দু দলে থাকুন? প্রশ্ন উঠেছে, তৃণমূলের ‘শুভেন্দু দ্বিচারিতা’ নিয়ে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন