রাজ্যে ফের ধর্ষিত ৪ বছরের শিশু, আইন হাতে তুলে নিলেন স্থানীয়রা

1478
সম্পূর্ণ নগ্ন করে তাকে গোটা এলাকায় ঘোরান প্রতিবেশীরা/The News বাংলা
সম্পূর্ণ নগ্ন করে তাকে গোটা এলাকায় ঘোরান প্রতিবেশীরা/The News বাংলা

না শিক্ষা নেয়নি কেউ। দিল্লী, তেলেঙ্গানার ধর্ষণের পরেও; শিক্ষা নেয়নি দেশের মানুষ। সপ্তাহ ঘোরার আগেই; আবার এক ধর্ষণের ঘটনা। এবার নির্যাতিতা বছর চারের শিশু। প্রায় বছর ৩৫-এর এক যুবক ফুটফুটে শিশুকন্যাকে; ধর্ষণের চেষ্টা করল মহারাষ্ট্রে। তবে এবার আর; বিচারের আশায় বসেছিলেন না নির্যাতিতার পরিবারসহ স্থানীয়রা। ওই বিকৃতমনস্ক যুবকে নগ্ন করে রাস্তায় ঘোরালেন স্থানীয়রা।

তেলেঙ্গানার এক তরুণী পশু চিকিৎসককে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় দেশজুড়ে ছড়িয়েছে বিক্ষোভের আগুন। প্রতিবাদে যোগ দিয়েছেন সব বয়েসের মানুষরা। প্রতিদিন আরও বেশি করে উত্তপ্ত হচ্ছে সংসদ। সাধারণ মানুষ থেকে অভিযুক্তের মা; সবাই চেয়েছেন দোষীর কঠিন শাস্তি। কিন্তু এরমধ্যেই আবার এক ধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ্যে এলো।

আরও পড়ুন: হায়দ্রাবাদে চিকিৎসক প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিকে ধর্ষণ ও পুড়িয়ে মারার ঘটনায় গ্রেফতার মহম্মদ পাশা

মহারাষ্ট্রের নাগপুরের পারদি এলাকাতে রবিবার ঘটে এই ঘটনা। পুলিশ থেকে জানা যায় অভিযুক্তর নাম জওহর বৈদ্য। একটি কো-ওপারেটিভ সোসাইটি ব্যাংকের ক্যাশ কালেকশন এজেন্ট হিসাবে কাজ করেন তিনি। জানা যায়; প্রতিদিনের মতো টাকা তুলতে এসেই যৌন হেনস্তা করে শিশুকে।

রবিবার সন্ধ্যেবেলায় টাকা তুলতে আসে জওহর বৈদ্য। সেই সময় বাড়িতে ৪ বছরের শিশু ছাড়া আর কেউ ছিল না। সেই সুযোগই নেন জওহর। শিশুটিকে একা দেখতে পেয়ে ঘরের ভিতর ঢুকে পড়ে সে। এরপর চলে যৌন নির্যাতন। সেই মুহূর্তে শিশুটির মা বাড়িতে ফেরেন।

আরও পড়ুন: দিল্লীর নির্ভয়ার মতই আঙ্গুল উঠল ধর্ষিতা প্রিয়াঙ্কা রেড্ডীর দিকে

চোখের সামনে নিজের মেয়ের নির্যাতন দেখে চেঁচিয়ে ওঠেন তিনি। তাঁর আওয়াজেই ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা। খবর পেয়ে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। জওহরকে ঘিরে ধরে মারধর করেন স্থানীয়রা। শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করার অপরাধে সম্পূর্ণ নগ্ন করে তাকে গোটা এলাকায় ঘোরান প্রতিবেশীরা। এরপর তাকে তুলে দেওয়া হয় পুলিশের হাতে।

ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় এবং পকসো আইনে তার বিরুদ্ধে মামলা রুজু হয়েছে। স্থানীয়দের কথায়; কোনও শিশু বা মহিলাকে দেখে যাতে দ্বিতীয়বার এমন কাজ করার কথা না আসে; সেই শিক্ষা দিতেই অভিযুক্ত জওহরকে নগ্ন করে ঘোরানো হয়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন