ভারতে মন্দির ও রেলস্টেশন উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিল, মাসুদ আজহারের জইশ-ই-মহম্মদ

356
ভারতে মন্দির ও রেলস্টেশন উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিল, মাসুদ আজহারের জইশ-ই-মহম্মদ/The News বাংলা
ভারতে মন্দির ও রেলস্টেশন উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিল, মাসুদ আজহারের জইশ-ই-মহম্মদ/The News বাংলা

ভারতে মন্দির ও রেলস্টেশন উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিল; মাসুদ আজহারের জইশ-ই-মহম্মদ। পুজোর মধ্যেই ধ্বংস হয়ে যাবে; রেলস্টেশন সহ বহু মন্দির। চিঠি লিখে এমনই হুমকি দিল; জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মহম্মদ। হরিয়ানার রেওয়ারি রেল স্টেশন; ৮ অক্টোবরের মধ্যেই উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিল; পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন। পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে; করাচি থেকে হুমকি-সহ এই চিঠি গোপন সূত্রে তাদের হাতে আসে। গোয়েন্দারা মনে করছেন; এই বার্তা এসেছে জইশ প্রধান মাসুদ আজহারের তরফ থেকে। স্বাভাবিকভাবেই দেশজুড়ে ছড়িয়েছে আতঙ্ক।

রবিবার হরিয়ানা পুলিশ জানায়; করাচির মাসুদ নামের এক ব্যক্তি ওই চিঠি পাঠিয়েছে। চিঠিতেই হুমকি দিয়ে বলা হয়েছে; আগামী ২৫ দিনের মধ্যেই আবার সন্ত্রাস হানার মুখোমুখি হবে ভারত। রেওয়ারি স্টেশন সহ বহু মন্দির প্রবল বিস্ফোরণে উড়িয়ে দেওয়া হবে। এরপর থেকেই স্টেশন চত্বরে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। বাড়ানো হয়েছে নজরদারি ব্যবস্থা।

আরও পড়ুনঃ আল কায়দা সম্পূর্ণ শেষ, ওসামার ছেলেকে নিয়ে বড় ঘোষণা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের

হরিয়ানার অন্যতম ব্যস্ত স্টেশন বলেই; টার্গেট হয়েছে রেওয়ারি। এছাড়াও চিঠিতে ১১টি রেল স্টেশন ও ৬টি মন্দিরে বিস্ফোরণের কথা বলা আছে। পুলিশের ধারণা; মাসুদ নামের ব্যক্তিই জইশ প্রধান মাসুদ আজহারই। সে-ই এ চিঠি পাঠিয়েছে। এমন চিঠি পাওয়ার পর থেকেই; সতর্ক করা হয়েছে অন্যান্য রেল স্টেশনগুলিকেও।

আরও পড়ুনঃ চোরের মতন লুকিয়ে থেকে আগাম জামিনের আবেদন, দোষী বলেই গা ঢাকা দিয়েছেন রাজীব কুমার

অন্যদিকে নৌসেনা প্রধান; অ্যাডমিরাল করমবীর সিং জানিয়েছেন; জলপথে ভারতে হামলার ছক কষছে ওই জঙ্গি সংগঠনটি। গোপনসূত্র থেকে জানা যায়; জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দেওয়াও শুরু করে দিয়েছে জইশের ‘আন্ডারওয়াটার উইং’।

আরও পড়ুনঃ ভারতের কাছে হেরে সীমান্তে সাদা পতাকা তুলল পাকিস্তান, দেখুন সেই ছবি

নৌসেনা প্রধান বলেছিলেন; এই প্রকার হামলার পরিকল্পনা ভেস্তে দিতে প্রস্তুত নৌসেনা। ভারতীয় নৌবাহিনী সবরকম সন্ত্রাস দমনের জন্য প্রস্তুত বলেও জানিয়েছেন; নৌবাহিনীর প্রধান আদমিরাল করমবীর সিং।

সমুদ্রপথে যে কোনও ধরনের অনুপ্রবেশের ঘটনা রুখতে উপকূলের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সংস্থাগুলিকেও সতর্ক করা হয়েছে। ২০০৮-এর ২৬ নভেম্বর জলপথেই মুম্বইয়ে ঢুকে হামলা চালিয়েছিল লস্কর-ই-তইবা। এবার ভারতে সাবমেরিন হামলার ষড়যন্ত্র করছে জইশ-ই-মহম্মদ। এদিনের হুমকি চিঠির পর বিষয়টি আরও গম্ভীর হয়ে উঠেছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন