মিড ডে মিল দুর্নীতি, শিক্ষিকাদের ফাঁসাচ্ছেন তৃণমূল নেতা স্কুল চেয়ারম্যান

178
মিড ডে মিল দুর্নীতি, শিক্ষিকাদের ফাঁসাচ্ছেন তৃণমূল নেতা স্কুল চেয়ারম্যান/The News বাংলা
মিড ডে মিল দুর্নীতি, শিক্ষিকাদের ফাঁসাচ্ছেন তৃণমূল নেতা স্কুল চেয়ারম্যান/The News বাংলা

রাজ্যে মিড ডে মিল দুর্নীতি; সোমবারই সেটা হাতে নাতে ধরেছিলেন; বিজেপি নেত্রী ও সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। মিড ডে মিল এর নামে যে দুর্নীতি হচ্ছে; হুগলীর চুঁচুড়ার বালিকা বাণী মন্দির স্কুলের ঘটনা তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়। সামনে আসে তথ্য; স্কুল ছাত্রীরা শুধুই নুন-ভাত খাচ্ছে দুপুরের খাবারে। অভিযোগের হাত থেকে পিঠ বাঁচাতে তৃণমূল নেতারা; উল্টে দোষ দেন স্কুল শিক্ষিকাদেরকেই। মঙ্গলবার তৃণমূল নেতা ও স্কুল চেয়ারম্যান; স্কুলে এলেই বিক্ষোভে ফেটে পরেন শিক্ষিকারা।

বিজেপি সাংসদ লকেটের অভিযোগ ছিল; কয়েকবছর ধরে চলা; এই দুর্নীতির পিছনে রয়েছে; হুগলির জেলার তৃণমূলের নেতারা। মিড ডে মিল দুর্নীতি নিয়ে; ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। তবে তৃণমূল নেতাদের দাবী; “এটা সত্য নয়। কেউ অন্তর্ঘাত করেছে”। এরপরেই তদন্তের নামে; স্কুল শিক্ষিকাদের উপর; দুর্নীতির দায় চাপান হয়।

আরও পড়ুনঃ বামেদের চেয়েও ভয়ঙ্কর তৃণমূল, ক্ষোভে ফেটে পরলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়

দেখা যাচ্ছে; মিড ডে মিলের খাবারে বাচ্চারা শুধুই নুন ভাত পাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠতেই; তৃণমূল নেতারা স্কুল শিক্ষিকাদের দিকে আঙুল ঘোরাচ্ছেন। এদিন হুগলীর চুঁচুড়ার বালিকা বাণী মন্দির স্কুলে আসেন; তৃণমূল নেতা ও স্কুল চেয়ারম্যান। আর তারপরেই বিক্ষোভে ফেটে পরেন; অভিযুক্ত স্কুল শিক্ষিকারা।

তাদের দাবী; সবকিছু স্কুল চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপেই হয়। আর তাদের ঘাড়ে বন্দুক রাখা হচ্ছে। তাঁরা এই ঘাড়ে অভিযোগ চাপানোর তীব্র প্রতিবাদ করেন; স্কুল চেয়ারম্যানকে ঘিরে ধরে। বিনাকারনে তাদের কেন দোষী করা হচ্ছে; তৃণমূল নেতা স্কুল চেয়ারম্যান এর কাছে জানতে চান শিক্ষিকারা।

আরও পড়ুনঃ ব্যাঙ্ক জালিয়াতি মামলায়, ইডির জালে মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো

এদিকে মিড ডে মিল দুর্নীতি প্রকাশ্যে আসতেই; নড়েচড়ে বসেন রাজ্যের তৃণমূল নেতারা। এখন নদিয়া; হুগলি; হাওড়া সহ বেশ কিছু জেলায় নুন-ভাত থেকে পরিস্থিতি কিছুটা ভালো করতে; ভাতের সঙ্গে ডাল সহ শাক সবজি ও ডিম দেওয়া শুরু হয়েছে।

এদিন হুগলীর চুঁচুড়ার বালিকা বাণী মন্দির স্কুলেও; ভাতের সঙ্গে ডাল ও ডিম দেওয়া হয়। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এর নির্দেশে; এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে স্কুল শিক্ষা দফতর। তবে সেই তদন্তে কোন তৃণমূল নেতার নাম উঠে আসবে; এই ভরসা করছেন না কেউই।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন