গনপিটুনিতে কড়া পদক্ষেপ, অভিযুক্তদের সরকারি চাকরি দেওয়া হবেনা জানিয়ে দিল সরকার

113
গনপিটুনিতে অভিযুক্তদের সরকারি চাকরি দেওয়া হবেনা, জানিয়ে দিল সরকার(প্রতীকী ছবি)/The News বাংলা
গনপিটুনিতে অভিযুক্তদের সরকারি চাকরি দেওয়া হবেনা, জানিয়ে দিল সরকার(প্রতীকী ছবি)/The News বাংলা

গনপিটুনিতে অভিযুক্তদের সরকারি চাকরি দেওয়া হবেনা; জানিয়ে দিল সরকার। বিহারের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী নিতিশ কুমার জানিয়েছেন; যে সকল ব্যাক্তিরা গনপিটুনিতে যুক্ত আছে তাদের যেকোনো রকম সরকারি চাকরি থেকে বাতিল করা হবে। এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে; যদি কোন সরকারী চাকরিজীবী গনপিটুনিতে যুক্ত থাকে তাহলে তাকে চাকরী থেকে বরখাস্ত করা হবে। বিহার সরকারের এই সিদ্ধান্তে বিহারে গনপিটুনির হার কমিয়ে দেবে বলে আশা করা যায়।

বিহারে ঘটে চলা গনপিটুনির ঘটনা গুলিতে যারা যুক্ত ছিল; বিহার পুলিশ তাদের সন্ধান করছে। পুলিশ এটাও জানিয়েছে যে; তারা স্থানীয় মানুষজন এর কাছে এবং সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তথ্য যোগার করছেন। পুলিশ এর রিপোর্ট অনুযায়ী ২৭৮ জন ধৃতকে আটক করা হয়েছে গনপিটুনির ঘটনায় অভিযুক্ত হিসেবে। পাটনা; গয়া; শাশারাম এবং আরও অনেক শহরের ভিন্ন জেলা থেকে এই অভিযোগ গুলি এসেছে।

আরও পড়ুনঃ রাস্তার ভিড় এড়িয়ে ঠাকুর দেখুন, কোন মেট্রো স্টেশনে নেমে কি কি পুজো দেখবেন

ডি.জি.পি বিনয় কুমার বলেছেন যে; পুলিশ প্রত্যেকটি ভিডিও দেখছে এবং অভিযুক্তদের গ্রেফতার করছে। তিনি বলেছেন; “সাধারণ মানুষ নিজের হাতে যাতে আইন না তুলতে পারে; এটাই আমাদের উদ্দেশ্য। গনপিটুনির মামলায় আমরা সাধারণত ভুল ব্যাক্তি আটক করে ফেলি। আমরা এখন অচেনা মানুষদের চেনার দিকে বেশী মনোযোগ দিয়েছি। স্থানীয় লোকজন এবং মিডিয়ার সাহায্যে আমরা অনেকটা এগোতে পেড়েছি।

পুলিশ আশ্বাস দিয়েছে; চার্জশীট খুব তাড়াতাড়ি পেশ করা হবে এবং প্রত্যেকে ন্যায় পাবে। ডি.জি.পি বলেছেন; “শেষ দশবছরে ৯০ শতাংশ গনপিটুনিকাণ্ডকে গুরুত্ত দেওয়া হয়নি এবং তার ফলেই এত দূর জল গড়িয়েছে। এখন আমরা আরও উন্নত যন্ত্র ব্যাবহার করছি; এবং আশা করছি খুব তাড়াতাড়ি আমরা প্রত্যেক অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করতে পারব”।

আরও পড়ুনঃ আপনি বাঙালি হলে, মহালয়া দেবীপক্ষ পিতৃপক্ষ তর্পণ কি ভালো করে জেনে রাখুন

পুলিশ জানিয়েছে; বারবার সতর্ক করা সত্ত্বেও কিছু মানুষ নিজেদের হাতে আইন তুলে নিচ্ছে; কিছু আজগুবি গল্পের ভিত্তিতে। গয়াতে চারজনকে খুন করে মেরে ফেলেছে শুধু সন্দেহের ভিত্তিতে। এদিকে পাটণাতেও একই ঘটনা ঘটেছে একটি বয়স্ক লোক ও তার স্ত্রীর সাথে। বিহার সরকার এই গনপিটুনি বন্ধ করার জন্য নতুন নিয়ম চালু করল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন