৫২ হাজার কোটি টাকা, সরাসরি মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেবে মোদী সরকার

17039
৫২ হাজার কোটি টাকা, সরাসরি মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেবে মোদী সরকার
৫২ হাজার কোটি টাকা, সরাসরি মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে দেবে মোদী সরকার

নরেন্দ্র মোদী সরকারের; ‘করোনা বাজেট’। দেশের অর্থনীতিকে বাঁচাতে ১৫ দফার দাওয়াই দিল; মোদী সরকারের অর্থ দফতর। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঘোষণা মত; ২০ লক্ষ কোটি টাকার বিশেষ প্যাকেজে কি কি থাকছে; বুধবার তা জানিয়ে দিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। প্রধানমন্ত্রী ‘আত্মনির্ভর ভারত’ প্রকল্পে; ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণার সময়ই বলেছিলেন; “কোন খাতে কত আর্থিক সাহায্য; ধাপে ধাপে তা ঘোষণা করবেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী”। সেই ঘোষণা করতেই; এদিন সাংবাদিক বৈঠক করেন নির্মলা সীতারামন। সাংবাদিক বৈঠকে ছিলেন; অর্থমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুরও।

দেশের মানুষের জন্য বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী মোদীর

মোট ১৫টি পদক্ষেপ করা হয়েছে; তার মধ্যে ৬টি পদক্ষেপ ক্ষুদ্র, মাঝারি ও অতি ক্ষুদ্র ক্ষেত্রের জন্য। কি কি থাকছে এই ২০ লক্ষ কোটি টাকার; বিশেষ প্যাকেজ পরিকল্পনায়। দেখে নিন একনজরে।

১। সংকটে থাকা MSMY এর জন্য; বিনা গ্যারান্টি ঋণ।
২।ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য; ৩ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ।
৩। ২০০ কোটি পর্যন্ত সরকারি টেন্ডারে; ‘গ্লোবাল টেন্ডার’ করা হবে না। এর ফলে এই সমস্ত টেন্ডারে; ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পও অংশগ্রহণ করতে পারবে। এর পাশাপাশি তাঁদের ক্ষমতাও বাড়বে; তাঁরা শিল্প বাড়ানোর সুযোগ পাবেন। এর ফলে আরও বেশি সংস্থা; মাইক্রো ক্ষেত্রের অন্তর্ভূক্ত হবে।

মহাত্মা গান্ধীর পর স্বদেশী আন্দোলনের ডাক দিলেন নরেন্দ্র মোদী

৪। এমনকি বিনিয়োগ এক কোটি এবং টার্নওভার ৫০০ কোটি টাকা হলেও; এখন থেকে সেই সংস্থাকে মাইক্রো ইন্ডাস্ট্রি হিসেবে ধরা হবে।
৫। উৎপাদন শিল্পে মাইক্রো ইন্ডাস্ট্রির ক্ষেত্রে; আগে ২৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ছিল; এখন সেটা বাড়িয়ে করা হয়েছে এক কোটি টাকা পর্যন্ত।
৬। এখন বিনিয়োগ করা মূলধনের পরিমাণের সঙ্গে; বাৎসরিক টার্নওভার যোগ করা হয়েছে।
৭। এমএসএমই-র সংজ্ঞা বদল করা হয়েছে।
৮। ৫০ হাজার কোটি টাকার তহবিল তৈরি করা হয়েছে; যা অপেক্ষাকৃত সক্ষম ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য দেওয়া হয়েছে।

৯। ২০ হাজার কোটি নগদ সাহায্য করা হবে; দুর্বল ও ঋণগ্রস্ত সংস্থার জন্য।
১০। চার বছরের জন্য় এই ঋণ দেওয়া হবে; তার মধ্যে প্রথম ১২ মাস অর্থাৎ এক বছর ঋণ পরিশোধ করতে হবে না। তার জন্য় কোনও গ্যারান্টি লাগবে না। ঋণের উপর এক বছরের মোরেটরিয়াম দেওয়া হবে।
১১। ৩ লক্ষ কোটি টাকার ঋণের ব্যবস্থা করা হবে; ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন