সত্য বলায় দময়ন্তী সেনকে বদলি করে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা

3936
সত্য বলায় দময়ন্তী সেনকে বদলি করে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা
সত্য বলায় দময়ন্তী সেনকে বদলি করে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা

অবসর নেবার পরেও; আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে শো-কজ করেছে কেন্দ্র সরকার। তারপরেই তৃণমূল সহ; বিরোধীদের তুমুল সমালোচনার মুখে পরেছে মোদী সরকার। পাল্টা আসরে নেমেছে; বঙ্গ বিজেপি। তাঁরাও তুলে এনেছে; দময়ন্তী সেনের কথা। সত্য বলায় দময়ন্তী সেনকে; কম গুরুত্বপূর্ণ পদে, বদলি করে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৩ দিনের মধ্যে শো-কজের জবাব চাই; না হলে আলাপনের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেবে কেন্দ্র। মোদী সরকারের শো-কজ নোটিশ এল; আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে। অন্যদিকে পার্ক স্ট্রিট ধ-‘র্ষণ কাণ্ডে, সত্যি বলায়; কলকাতা পুলিশের তৎকালীন গোয়েন্দা-প্রধান দময়ন্তী সেনকে; বদলি করে দিয়েছিলেন মমতা।

নির্ধারিত সময় দিল্লিতে কাজে যোগ না দেওয়ায়; রাজ্যের সদ্য-প্রাক্তণ মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে; শো-কজ করল কেন্দ্রীয় সরকার। মুখ্যসচিবের পদ থেকে অবসর নিলেও; আলাপন-কে শো-কজের নোটিস পাঠিয়েছে কেন্র। ৩দিনের মধ্যে; এই শো-কজের উত্তর দিতে বলা হয়েছে। না হলে নেওয়া হবে; কড়া ব্যবস্থা। এরপরেই মোদী সরকারের বিরুদ্ধে; সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনা শুরু করেছে তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা।

পাল্টা এবার দময়ন্তী সেনকে নিয়ে; আসরে নেমেছে বিজেপি আইটি সেল। এই দময়ন্তী সেন ছিলেন তৎকালীন কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা প্রধান; যার কাঁধে পার্কস্ট্রিট ধ-‘র্ষণ কাণ্ডের তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে; সুজেট জর্ডন নামের এক মহিলাকে; খাস কলকাতার পার্ক স্ট্রিটে চলন্ত গাড়িতে ধ-‘র্ষণ করা হয়েছিল। সেই ধ-‘র্ষণ কাণ্ডের তদন্ত করার জন্য; দময়ন্তী ময়দানে নেমেছিলেন।

আরও পড়ুনঃ ‘ব্যবস্থা’ নেওয়া শুরু, মোদী সরকারের শো-কজ নোটিশ এল আলাপনের কাছে

তদন্ত শুরুর আগেই; নিজের রায় জানিয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। সেই সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা; পার্ক স্ট্রিটের ধ-‘র্ষণকে সাজানো ঘটনা বলে দিয়েছিলেন। আরেকদিকে, তৃণমূলের নেতা-নেত্রীরাও; ধ-‘র্ষিতার চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। এরপর পার্ক স্ট্রিট ধ-‘র্ষণ মামলায়; অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেন পুলিশের গোয়েন্দা-প্রধান দময়ন্তী সেন। মিথ্যা হয়ে যায়; মুখ্যমন্ত্রী মমতার দাবি।

কিন্তু তখনই নাটকীয়-ভাবে দময়ন্তী সেনকে; কম গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য পুলিশের ডিআইজি (প্রশিক্ষণ) পদে বদলি করা হয়। সরকারের এই সিদ্ধান্তে; তখন অনেকেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন। একদিকে যখন পার্ক স্ট্রিট কাণ্ডের তদন্তের জন্য; দময়ন্তীর সুনাম হচ্ছিল চারিদিকে; তখনই সরকারের এই সিদ্ধান্ত মানুষের মধ্যে অনেক প্রশ্ন তুলে দেয়। আলাপন কাণ্ডে সেই প্রসঙ্গই ফিরিয়ে আনলেন; বিজেপি নেতা কর্মীরা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন