মোদী সরকারের সমীক্ষায় মহিলা কর্মসংস্থানে ‘ভারতসেরা’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলা

118
মোদী সরকারের সমীক্ষায় মহিলা কর্মসংস্থানে 'ভারতসেরা' মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলা
মোদী সরকারের সমীক্ষায় মহিলা কর্মসংস্থানে 'ভারতসেরা' মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলা
Simple Custom Content Adder

মোদী সরকারের সমীক্ষায়, মহিলা কর্মসংস্থানে ‘ভারতসেরা’; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলা। হ্যাঁ, মহিলা কর্মসংস্থানে ভারতসেরা হল বাংলা। সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি, গত পাঁচ বছরের সমস্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে জানিয়ে দিল; মহিলা কর্মসংস্থানে দেশের মধ্যে সবচেয়ে এগিয়ে পশ্চিমবঙ্গ। বাংলা পিছনে ফেলে দিয়েছে; নরেন্দ্র মোদীর গুজরাত ও যোগী আদিত্যনাথের উত্তরপ্রদেশ-কেও। এসএসসি দুর্নীতি সংক্রান্ত অস্বস্তির মাঝেই; বড় খবর রাজ্যের জন্য।

২০২২ এ জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পশ্চিমবঙ্গে ৪৩.৭১ লক্ষ মহিলার কর্মসংস্থান হয়েছে; যা ২০১৭ সালের জানুয়ারি-এপ্রিলের ৩৩.৬২লক্ষ থেকে ১০.০৯ লক্ষ বেশি। গত বছরের সেপ্টেম্বর ডিসেম্বরের থেকেও, ২০২২ এর জানুয়ারি-এপ্রিলে; বেশি কর্মসংস্থান হয়েছে বাংলায়। যা পরিস্থিতি তাতে অর্থনীতি মাপকাঠিতে মহিলা কর্মসংস্থানের; প্রায় সবকটি বিভাগে শীর্ষে পশ্চিমবঙ্গ। গত পাঁচ বছরের নিরিখে হোক; বা গত এক বছরের হিসাবে।

মোদীর গুজরাতকেও, মহিলা কর্মসংস্থানে টেক্কা দিয়েছে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলা। গত পাঁচ বছরের হিসেবে গুজরাতে মহিলা কর্মসংস্থান বেড়েছে ৮.৬৭ লক্ষ; যা বাংলার তুলনায় প্রায় ১.৪২ লক্ষ কম। গত বছরে সবচেয়ে বেশি রোজগার হারিয়েছে তামিলনাড়ু; তারপরেই রয়েছে মধ্যপ্রদেশ ও কর্ণাটক।

আরও পড়ুনঃ কংগ্রেসের হাল ফেরাতে ‘টাস্ক ফোর্স’ গড়লেন সনিয়া, ঠাঁই পেলেন না রাহুল

করোনা-কালে ভারতে কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ; মহিলাদের অবস্থা সবচেয়ে শোচনীয়। এই সময় বাংলার এই স্বীকৃতি-তে; উচ্ছ্বসিত রাজ্য সরকার। সবচেয়ে বড় কথা, বেকারত্ব নিয়ে দেশের একমাত্র সমীক্ষক সংস্থা; সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি এই রিপোর্ট পেশ করেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে গত পাঁচ বছরে দেশে ১.২৫ কোটি মহিলা কাজ হারিয়েছেন; এর মধ্যে ২৫ লক্ষ মহিলা চাকরি হারিয়েছেন চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে এপ্রিলের মধ্যে।

সেখানেই দেখা যাচ্ছে, দেশের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে মহিলাদের; কর্মসংস্থান হওয়ার পাশাপাশি তাদের রোজগারও বেড়েছে। একবছরে দেশের মহিলাদের কর্মসংস্থান বৃদ্ধির, যে তালিকা তুলে ধরা হয়েছে; সেখানেও প্রথমে বাংলা। ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত ৪৩.২১ লক্ষ মহিলা কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করেছিলেন; সেখান থেকে ২০২২ সালের জানুয়ারি-এপ্রিল পর্যন্ত সংখ্যাটা পৌঁছেছে ৪৩.৭১ লক্ষ। অর্থাৎ এই এক বছরে রাজ্যে ৫০ হাজার মহিলা কর্মক্ষেত্রে প্রবেশ করেছেন; বাংলার পর এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বিহার ও ওড়িশা। কেন্দ্রের পুরো রিপোর্ট অবশ্য; দেশের অর্থনীতির পক্ষেই বেশ বিপজ্জনক।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন