সাংসদ অভিনেত্রী মিমিকে, বাংলায় তৈরি ‘জাল’ করোনা ভ্যাকসিন দিল ফেক সরকারি অফিসার

2818
সাংসদ অভিনেত্রী মিমিকে, বাংলায় তৈরি জাল করোনা ভ্যাকসিন দিল ফেক সরকারি অফিসার
সাংসদ অভিনেত্রী মিমিকে, বাংলায় তৈরি জাল করোনা ভ্যাকসিন দিল ফেক সরকারি অফিসার

ভ’য়ঙ্কর খবর। গল্প হলেও সত্যি! সাংসদ অভিনেত্রী মিমিকে, বাংলার ‘জাল’ করোনা ভ্যাকসিন দিল; এক ফেক সরকারি অফিসার। ভুয়ো আইএএস অফিসারের দ্বারা, রীতিমতো প্রতারিত হলেন; যাদবপুরের তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। মিমির অভিযোগ পেয়েই, কসবা এলাকা থেকে; এক ভুয়ো আইএএস অফিসার পরিচয় দেওয়া; এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপরই প্রকাশ্যে আসে যে, করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে; এই প্রতারকের খপ্পরে পড়েছেন সাংসদও। এবার টিকাকরণ শিবির নিয়েও উঠল; জালিয়াতির অভিযোগ। ওই প্রতারকের দেওয়া; টিকাও কি জাল? উঠেছে প্রশ্ন।

আরও পড়ুনঃ করে দেখাল ইডি, পলাতক মালিয়া মোদী চোকসির ৯ হাজার কোটি টাকারও বেশি সম্পত্তি ব্যাঙ্কে ফেরত

কলকাতা পুরসভার অনুমতি ছাড়াই, টিকাকরণ শিবিরের অভিযোগে; ও মিথ্যা পরিচয় দেবার অভিযোগে; দেবাঞ্জন দেব নামে এক ভুয়ো আমলাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে জাল পরিচয়পত্র; এবং একটি নীল বাতি লাগানো গাড়িও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতভর; তাকে জেরা করে পুলিশ। করোনা টিকাও নাকি সে, বাজার থেকে নকল টিকা কিনে দিয়েছে; এমনটাই অভিযোগ। করোনা ভ্যাকসিন জাল কিনা; তার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত জানিয়েছে; সে বাগড়ি মার্কেট থেকে ভ্যাকসিন কিনেছে; যা এককথায় অবাস্তব।

MP Actress Mimi Chakraborty Given Fake Corona Vaccine by a Fake IAS Officer
সাংসদ অভিনেত্রী মিমিকে, বাংলার 'জাল' করোনা ভ্যাকসিন দিল ফেক সরকারি অফিসার

মিমি চক্রবর্তী অভিজহ, “মঙ্গলবার কসবার একটি ভ্যাকসিনেসন ড্রাইভ অনুষ্ঠানে; আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল আমাকে। তৃতীয় লিঙ্গের কিছু মানুষ, রূপান্তরকামী; বিশেষভাবে সক্ষম কিছু মানুষ ও দুঃস্থদের ভ্যাকসিনেশনের আয়োজন করা হয়েছিল সেখানে। আমি টিকা নিলে তারা যদি আগ্রহী হয়; সেই ভাবনা থেকে সেখানে যাওয়া ও টিকা নেওয়া”। কিন্তু টিকা নেওয়ার পরেও, কোনও রেজিস্ট্রেশন নাম্বার এবং সার্টিফিকেট; কোনও কিছুই না আসায় সন্দেহ হয় অভিনেত্রীর।

আরও পড়ুনঃ একহাতে স্টেথোস্কোপ ও অন্যহাতে রাইফেল নিয়ে সেনা ও সীমান্ত পাহারায় দীপশিখা

অভিনেত্রীকে বলা হয়; তিনদিনের মধ্যে সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। খোঁজ নিয়ে দেখা যায় যে, যাদের টিকাকরণ হয়েছে; তাদের নামই রেজিস্টার করা হয়নি। এরপরই পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে; যোগাযোগ করেন অভিনেত্রী। জানা যায়, জয়েন্ট কমিশনার অফ কলকাতা কর্পোরেশনের উদ্যোগে; এই ভ্যাকসিনেশন ড্রাইভের আয়োজন করা হয়েছিল। আচমকা এই শিবির দেখে; সন্দেহ হয় পুলিশের। পুলিশ প্রথমে দেবাঞ্জন দেবকে; আটক করে। রাতভর জেরার পরে; তাকে গ্রেফতার করা হয়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন