মুকুলের হাত ধরে মমতার পুরনো সৈনিকরা কি ফিরছেন তৃণমূলে, জোর জল্পনা রাজ্য রাজনীতিতে

2065
মমতার পুরনো সৈনিকরা কি ফিরছেন তৃণমূলে, জল্পনা রাজ্য রাজনীতিতে
মমতার পুরনো সৈনিকরা কি ফিরছেন তৃণমূলে, জল্পনা রাজ্য রাজনীতিতে

মানব গুহ, কলকাতাঃ মুকুল রায়ের হাত ধরে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুরনো সৈনিকরা কি ফিরছেন তৃণমূলে? জোর জল্পনা শুরু; রাজ্য রাজনীতিতে। আলোচনা শুরু হয়েছে; রাজনীতি-প্রিয় বাঙালির আড্ডার ঠেকে। বিতর্ক চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই আলোচনা শুরু করেছেন; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই। আর এই বিতর্ক ‘উসকে’ দিয়েছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একদা ডানহাত; তৃণমূলের প্রাক্তন ‘চাণক্য’ মুকুল রায়। মুকুল রায়ের সঙ্গে নাকি, একদল বিজেপি নেতা ফের ফিরছেন তৃণমূলে; জল্পনা বাংলার রাজনৈতিক মহলে। মুকুল রায় ঘনিষ্ঠরাও দাদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বলছেন; “রাজনীতি-তে কখনও কখনও; চুপ করেও থাকতে হয়”।

কি কি জল্পনা ছড়িয়েছে? দেখুন একনজরে;
ভাঙতে চলেছে বিজেপি। দলীয় পদ অর্থাৎ কেন্দ্রীয় বিজেপির সহ-সভাপতি পদ ছাড়ার ইচ্ছেপ্রকাশ; মুকুল রায়ের। ১১ জন বিধায়ক ও সাংসদ অর্জুন সিং-সহ ৩ সাংসদ নিয়ে; মুকুল রায় যোগ দিতে চলেছেন তৃণমূলে। এই তালিকায় রয়েছেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়; প্রবীর ঘোষাল; শুভ্রাংশু রায়; জিতেন্দ্র তেওয়ারি। আসছেন রথীন চক্রবর্তী, পার্থসারথী চট্টোপাধ্যায়; পবন সিং; সব্যসাচী দত্ত; বঙ্কিম ঘোষ; শংকর ঘোষ প্রমুখরা। ভোটের ফলের পরেই; মমতার প্রশংসায় পঞ্চমুখ শোভন-বৈশাখী; তাঁদের তৃণমূলে ফেরা সময়ের অপেক্ষামাত্র। বিজেপি সূত্রের এমনটাই খবর। তবে এটা এখনই হবে না; ধীরে ধীরে হবে।

আরও পড়ুনঃ ‘যা বলার দু একদিন পরই বলব’, জল্পনা বাড়িয়ে বললেন মুকুল

মমতা মুকুলের গোপন বৈঠক, ভোটের সময়
রাজ্য রাজনীতির গোপন খবর; পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে ভোটের সময়ই; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক গোপন বৈঠক করেন মুকুল রায়ের সঙ্গে। তবে সেখানে ঠিক হয়; যা হবে তা ভোটের পরেই ধীরে ধীরে হবে। তবে মুকুল রায় বা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়; কোন শিবির থেকেই এই নিয়ে কিছু বলা হয়নি। তৃণমূল ও বিজেপির তরফ থেকে; এই জল্পনা উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। “সবটাই মিডিয়ার কল্পনা”; দাবি শাসক বিরোধী দুইদলেরই।

আরও পড়ুনঃ ‘দলে ফিরে এলে স্বাগত’, তৃণমূল ছেড়ে যাওয়া বিজেপি নেতাদের বার্তা মমতার

‘দলে ফিরে এলে স্বাগত’; তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি যাওয়া নেতাদের আগেই বার্তা দিয়েছেন মমতা। বাংলা বিধানসভা ভোটের ঠিক আগে; দলে দলে তৃণমূল ছেড়ে, বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার যেন একটা হিড়িক পড়ে গিয়েছিল। কিন্তু মমতার ছায়ার বাইরে গিয়ে লড়াইয়ে; তাঁদের প্রায় সবাইকেই হারতে হয়েছে। তবে বিপুল সাফল্য পাওয়ার পরও, সোমবার দলত্যাগীদের প্রতি উদারতা দেখালেন; তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফিরতে চাইলে সকলকেই দলে স্বাগত জানাবেন; বলে এদিন পরিষ্কার জানালেন তিনি। যেটা চান না তৃণমূলের নেতা, কর্মী সমর্থক কেউই। তবে, মমতা এদিন পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন; ‘দলে ফিরে এলে স্বাগত’। আর তাতেই ঘুরে গেছে; রাজনীতির হাওয়া।

অন্যদিকে, যা বলার দু একদিন পরই বলব’; জল্পনা বাড়িয়ে বললেন মুকুল রায়। বাংলা রাজনীতির চাণক্য; প্রথমবার ভোটে জিতে; বিধানসভায় এসেছেন। কিন্তু শুক্রবার বিধানসভা ভবনে শপথ নিতে এসে; অন্যরূপেই দেখা গেল মুকুল রায়কে। অর্থপূর্ণ নীরবতায় নতুন করে; উস্কে দিলেন জল্পনা। বিজেপির পরিষদীয় দলের বৈঠকে; এদিন যোগ দিলেন না মুকুল। কিন্তু বিধানসভায় প্রথমবার পা রেখেই; তৃণমূল মুখ্য সচেতকের ঘরে প্রবেশ। তৃণমূল রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সির সঙ্গে; সাক্ষাৎও করলেন। শুক্রবারের ঘটনাক্রম, বাড়িয়ে দিল; রাজ্য রাজনীতির নতুন জল্পনা। তাহলে কি বাংলার রাজনীতিতে ফের; মমতা-মুকুল যুগলবন্দি দেখা যাবে? রাজনীতি বলছে; কোন কিছুই অসম্ভব নয়!

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন