বাংলার বাইরে পা দিলেই, পুরোপুরি বিজেপির নীতি নেয় তৃণমূল

1776
বাংলার বাইরে পা দিলেই, পুরোপুরি বিজেপির নীতি নেয় তৃণমূল
বাংলার বাইরে পা দিলেই, পুরোপুরি বিজেপির নীতি নেয় তৃণমূল

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি! বাংলার বাইরে পা দিলেই; পুরোপুরি বিজেপির নীতি নেয় তৃণমূল। ঠিক যেমন ত্রিপুরায়! বাংলায় বিজেপির থিম ছিল; “তৃণমূল ভাঙ-বিজেপি গড়ো’। ঠিক তেমনই ত্রিপুরায় মমতার তৃণমূলের স্লোগান; ‘বিজেপি ভাঙ-তৃণমূল গড়ো’। ঠিক বিজেপির দেখানো পথেই, ‘‌ত্রিপুরা কইতাসে, মমতাদি আইতাসে’ বলে; বাঙালি অধ্যুষিত রাজ্যে খেলা শুরু করেছে তৃণমূল। মুকুল রায় ঘরে ফিরতেই এবার; ত্রিপুরা নিয়ে মাঠে নেমে পড়লেন তৃণমূল নেতা-কর্মী-সমর্থকরা।

তৃণমূলে একটা সময়, দলের ত্রিপুরা সংগঠন; পুরোটাই সামলাতেন মুকুল রায়। যদিও ঘাসফুল ছেড়ে মুকুল পদ্মফুলে নাম লেখাতেই; ত্রিপুরার তৃণমূল সংগঠন ভেঙে যায়। মুকুল রায় যখন তৃণমূলের হয়ে সংগঠন সামলাতেন; তখন ত্রিপুরার অন্যতম নেতা সুদীপ রায়বর্মণ; জোড়া ফুলের হয়ে রাশ ধরেছিলেন। তৃণমূল ছেড়ে মুকুল বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরেই; সুদীপ রায়বর্মণ-ও চলে যান বিজেপি শিবিরে।

আরও পড়ুনঃ ১১ বছর বয়সেই কম্পিউটার পোগ্রামিং বই লিখে বিশ্বকে চমকে দিল বাঙালি বালক

ফের সেই সুদীপ রায়বর্মণের সঙ্গেই; কথা শুরু করেছেন মুকুল রায়। সুদীপের সঙ্গে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সংঘাত; রাজনৈতিক মহলে সবার জানা। সেই সুদীপের হাত দিয়েই ফের; ত্রিপুরা বিজেপি ভাঙতে চায় তৃণমূল। মুকুলের সঙ্গে আলোচনার পরেই; ত্রিপুরার একাধিক বিজেপি বিধায়কের সঙ্গে, যোগাযোগ করেছেন সুদীপ। সূত্রের খবর, খুব শীঘ্রই এই সব বিজেপি বিধায়করা; এ রাজ্যে এসে দেখা করতে পারেন তৃণমূল শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে। ইতিমধ্যেই ত্রিপুরাতে বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে; সোচ্চার হয়েছেন বিজেপি নেতাদের একাংশ।

আরও পড়ুনঃ দান করে দিলে গোয়েন্দা সংস্থা ‘সম্পত্তি ফ্রিজ বা অ্যাটাচ’ করতে পারবে না, বাঙালি ভাবছে ‘প্রেম’

একুশের নির্বাচনে জয়ের পরই’ ত্রিপুরা জয়ের পরিকল্পনা করা হয়েছিল। শুধু অপেক্ষা ছিল, যোগ্য লোকের হাতে; এই দায়িত্বটা তুলে দেওয়া। মুকুল তৃণমূলে ফেরার পরেই; এবার শুরু হয়েছে ‘মিশন ত্রিপুরা’। ২০১৪ লোকসভায় বিজেপিকে ঝটকা দেবার আগেই; বাংলার পাশে বাঙালি অধ্যুষিত ত্রিপুরা অসমে; এবার শক্তিপরীক্ষা করতে চায় ঘাসফুল শিবির। মুকুলকে কাজে লাগিয়েই; ভিনরাজ্যে সংগঠন বিস্তার করতে চাইছে তৃণমূল।

প্রথম টার্গেট; বিপ্লব দেবের ত্রিপুরা। ত্রিপুরাতে একটা সময়; তৃণমূলের ৬জন বিধায়ক ছিল। এবার ফের খেলা শুরু হতে চলেছে ত্রিপুরায়; নেতৃত্বে সেই মুকুল। সুদীপ রায়বর্মণের তরফে ইতিমধ্যেই, ত্রিপুরাতে ‘বন্ধুর নাম ত্রিপুরা’ বলে; একটি সংগঠন চালু হয়েছে। অনেকটা ওই বাংলার; ‘দাদার অনুগামী’র মত। যার মাধ্যমে সমান্তরাল ভাবে; সুদীপ নিজের দল গড়ছেন। সূত্রের খবর, বিজেপি ছাড়তে পারেন; মুকুল ঘনিষ্ঠ সুদীপ। এমনকী তাঁর ঘনিষ্ঠ বিজেপি বিধায়করাও; দল ছাড়তে পারেন বলে জল্পনা শুরু হয়েছে। সেটাকেই কাজে লাগাতে চাইছেন; মুকুল রায়। পুরোপুরি বিজেপির নীতিই; ত্রিপুরাতে নিয়েছে তৃণমূল।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন