ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপেও মোদীর আধার লিংক, কি জানালো সুপ্রিম কোর্ট

138
ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপেও মোদীর আধার লিংক, কি জানালো সুপ্রিম কোর্ট/The News বাংলা
ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপেও মোদীর আধার লিংক, কি জানালো সুপ্রিম কোর্ট/The News বাংলা

ব্যাঙ্ক পোস্টঅফিসের মতই এবার আপনার ফেসবুক; হোয়াটসঅ্যাপ; টুইটার ও ইউটিউব চ্যানেলে যোগ করতে হবে আধার লিংক। এই আবেদন নিয়ে দেশের তিন হাইকোর্টে মামলা দায়ের হয়েছে। তামিলনাড়ু সরকারের পক্ষে; অ্যাটর্নি জেনারেল কে বেণুগোপাল বলেন; পর্ণোগ্রাফি; ভুয়ো খবর; দেশ বিরোধী এবং সন্ত্রাসমূলক বিষয় রুখতে; ফেসবুক বা হোয়াটসঅ্যাপ প্রোফাইলের সঙ্গে আধার কার্ডের লিঙ্ক করা হোক।

বিগত বেশ অনেকদিন ধরেই; ফেসবুক; হোয়াটসঅ্যাপে ছড়িয়ে পরছে অজস্র ভুয়ো খবর। সোশ্যাল মিডিয়ায়; ছড়াচ্ছে দেশ বিরোধী উস্কানি ও সন্ত্রাসমূলক কাজে প্রভাবিত করার মত খবর। বেআইনি পর্ণগ্রাফির বেড়ে চলেছে রমরম করে।

এই সব এড়াতে; তামিলনাড়ু সরকার আবেদন করেছেন; বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে আধার কার্ডের ১২ ডিজিট নম্বর ফেসবুক; হোয়াটসঅ্যাপ; টুইটার ও ইউটিউব ইত্যাদি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিঙ্ক করলে; এই ফেক খবর ছড়ানোর রমরমা অনেকটা আটকানো যাবে।

আরও পড়ুনঃ ব্যাঙ্ক জালিয়াতি মামলায়, ইডির জালে মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো

সোশ্যাল মিডিয়ায় যারা এই কাজ করছে; তাদেরও খুব সহজেই চিহ্নিত করা যাবে। এর আগেও; সুপ্রিম কোর্টে সোশ্যাল মিডিয়া সংক্রান্ত মামলায় কেন্দ্রের তরফে বলা হয়েছিল যে; সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন বেশ কিছু সেন্সেটিভ খবর রটে যাচ্ছে; যা সমাজের ক্ষতি করছে।

রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের কেএন গোবিন্দচার্যও সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছেন; আধার লিংক সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত করার। তাঁর আইনজীবী বিবেক গুপ্তা আদালতে জানিয়েছেন; দিল্লি হাইকোর্ট এই ব্যাপারে একাধিক নির্দেশ দিয়েছেন। আদালতে জানানো হয়েছে মাদ্রাজ ও বম্বে হাইকোর্ট এবং মধ্যপ্রদেশের আদালতে এ সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি মামলা ঝুলে রয়েছ।

অ্যাটর্নি জেনারেল কে বেণুগোপাল আবেদন করেন; সবকটা মামলাকে এক জায়গায় এনে সুপ্রিম কোর্ট শুনানি করার। কিন্তু এই নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে নানা মহলে। আধার নাম্বার ফেসবুক; হোয়াটসঅ্যাপ; টুইটার ও ইউটিউবের মতন সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে গেলে প্রতিতা মানুষের ব্যাক্তিগত সমস্ত সুত্র ছড়িয়ে পরার অবস্থা হতে পারে।

সাইবার ক্রাইম বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন; ফেসবুক; হোয়াটসঅ্যাপ; টুইটার ও ইউটিউব এর মত সোশ্যাল নেটওয়ার্ক-র আধার যুক্ত করা হলে; সমস্ত তথ্য লিক হয়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। গোপনীয়তা বলে আর কিছু থাকবে না। মানুষের নিরাপত্তা সব থেকে আগে; তাই ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপে আধার লিংক বিপদ বাড়াবে বলেই মনে করছে আমজনতা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন