বাংলা রাজনীতির নতুন সমীকরণ, মুকুল রায়ের স্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে অভিষেক

1092
বাংলা রাজনীতির নতুন সমীকরণ, মুকুল রায়ের স্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে অভিষেক
বাংলা রাজনীতির নতুন সমীকরণ, মুকুল রায়ের স্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে অভিষেক

বাংলা রাজনীতির নতুন সমীকরণ; মুকুল রায়ের স্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে গেলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি, বিজেপি বিধায়ক মুকুল রায়ের স্ত্রীকে দেখতে যান; তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি ও তৃণমূল দুদলই বলছে; রাজনৈতিক সৌজন্যতা। কিন্তু তাতেও জল্পনা থামছে না। তৃণমূলের প্রাক্তন চাণক্য কি তাহলে এবার; ফের মমতার তৃণমূলের দিকে। কয়েকদিন আগেই, সরকারের সমালোচনা না করে আত্মসমালোচনা কড়া উচিত বলে; জল্পনা বাড়িয়েছিলেন মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু রায়। এবার সেই জল্পনার আগুনে ঘি ঢাললেন; মমতার ভাইপো অভিষেক।

২০১৮ সালে মুকুল রায় বিজেপি-তে থাকার সময়েও; অসুস্থ তৃণমূল বিধায়ক ও মুকুলের ছেলে শুভ্রাংশুকে দেখতে; হাসপাতালে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা। যকৃতের গুরুতর সমস্যা নিয়ে ই এম বাইপাসের একটি হাসপাতালে; ভর্তি ছিলেন শুভ্রাংশু রায়। আর এদিন সন্ধ্যায় যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়; দেখতে গেলেন হাসপাতালে ভর্তি শুভ্রাংশু রায়ের মা; তথা মুকুল রায়ের স্ত্রীকে। করোনা সংক্রমণের পরে বেশ কিছুদিন ধরেই, একটি বেসরকারি হাসপাতালে; ভর্তি রয়েছেন মুকুল জায়া কৃষ্ণা রায়।

আরও পড়ুনঃ মমতাকে ডি-লিট দিয়েছিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়, উপাচার্য ছিলেন আলাপনের স্ত্রী

মুকুল রায়ের তৃণমূলে ফেরার রাস্তা বানানো; কি শুরু হল? এদিনের পর উঠে গেল; সেই প্রশ্নও। বিধানসভা ভোটে জিতলেও; বিজেপি রাজনীতিতে উদাসীন মুকুল। তৃণমূলের প্রাক্তন চাণক্য ও বিজেপি বিধায়ক; রাজনীতি থেকে এখন অনেকটাই দূরে। বিজেপি মুকুল রায়কে ঠিকমতো কাজেই লাগায়নি; এমনটাই মত মুকুল সমর্থক থেকে রাজনৈতিক মহলের। এমনকি বিধানসভায় গিয়ে বিজেপি নেতাদের সঙ্গে নয়; তৃণমূল নেতা সুব্রত বক্সির সঙ্গে দেখা করেন মুকুল রায়। তাহলে কি ফের; মমতার তৃণমূলে মুকুল? অভিষেক বাড়িয়ে দিলেন সেই জল্পনা।

আরও পড়ুনঃ বিদ্যাসাগর মূর্তি ভাঙার তদন্ত কমিটির প্রধান আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, দুবছরেও প্রকাশ্যে আসেনি রিপোর্ট

ভোটের প্রচারেও নন্দীগ্রামে মমতার মুখে; শোনা গিয়েছিল মুকুলের প্রশংসা। তখন থেকেই বেড়েছিল জল্পনা। দুদিন আগেই, ফেসবুকে শুভ্রাংশু লিখেছেন; “জনগণের সমর্থন নিয়ে আসা সরকারের সমালোচনা করার আগে; নিজেদের আত্মসমালোচনা বেশি প্রয়োজন”। যে ইঙ্গিতে শুভ্রাংশু রায় ফেসবুক পোস্টে বার্তা দিলেন; তা রাজনৈতিক দিক থেকে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। মুকুল রায় ও শুভ্রাংশু রায় কি ফের কি মমতার তৃণমূলে? জোর জল্পনা রাজ্য রাজনীতিতে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন