তালিবানের সাহায্যে এগিয়ে এল নতুন বন্ধু চিন, কয়েকশো কোটি টাকা সাহায্যের ঘোষণা

1683
তালিবানের সাহায্যে এগিয়ে এল নতুন বন্ধু চিন, কয়েকশো কোটি টাকা সাহায্যের ঘোষণা
তালিবানের সাহায্যে এগিয়ে এল নতুন বন্ধু চিন, কয়েকশো কোটি টাকা সাহায্যের ঘোষণা

তালিবানের সাহায্যে এগিয়ে এল নতুন বন্ধু চিন; কয়েকশো কোটি টাকা সাহায্যের ঘোষণা। আফগানিস্তানে তালিবান সরকার গঠনের পর; বড় ধরনের আর্থিক সহায়তা করবে বলে ঘোষণা করেছে বন্ধু চিন। তালিবান সরকারকে খাদ্য সরবরাহের পাশাপাশি; করোনা ভাইরাসের টিকাসহ জরুরী সহায়তার জন্য ৩১ মিলিয়ন ডলার বা ২০ কোটি ইউয়ান যা ভারতীয় মুদ্রায় ২২৮ কোটি টাকা সাহায্য করবে বলে জানিয়েছে বেইজিং। পাকিস্তানের পর এবার তালিবানকেও; বন্ধু হিসাবে পাবার চেষ্টা করছে চিন। আর এর সবটাই ভারতের বিরুদ্ধে তালিবানকে লাগানোর জন্য; বলছে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞরা।

গত বুধবার তালিবান আধিকারিকদের সঙ্গে এক গোপন বৈঠকের পরই; চিনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াং এই আর্থিক সহায়তার কথা ঘোষণা করেছে। তিনি বলেছেন, আফগানিস্তানে অন্তর্বর্তীকালীন নয়া সরকার গঠনের পর; ওদেশে শান্তিশৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

জিন পিং সরকারের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে; এই আর্থিক সহায়তার বাইরেও করোনা মহামারী প্রতিরোধের জন্য; অন্তত ৩০ লাখ ডোজ টিকা পাঠাবে চিন। জানা গেছে, চিন সরকার তালিবানকে নিয়ে; পাকিস্তান, ইরান, তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান ও তুর্কমেনিস্তানের সঙ্গেও বৈঠক করে। চিন বাকি দেশগুলোকেও, আফগানিস্তানের তালিবান সরকারের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ আফগানিস্তানে মাস্ক, ভ্যাকসিন, দূরত্ব, স্যানিট্যাইজেশনের কোন অস্তিত্ব নেই, বিশ্বের বিস্ময় ‘তালিবান’

এর আগে তালিবান মুখপাত্র জানিয়েছিল; চিন তাদের প্রকৃত বন্ধু। তালিবান সরকার গঠনের আগে থেকেই; তালিবানদের সঙ্গে একাধিক বৈঠকে বসেন চিনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী সহ একাধিক প্রতিনিধি দল। কাবুলে দুই পক্ষের মধ্যে; এই বৈঠক হয় । গত ২৮ জুলাই চিন সফরে যান; আফগানিস্তানের বর্তমান উপপ্রধানমন্ত্রী ও তালেবানদের রাজনৈতিক বিভাগের প্রধান আব্দুল গনি বারাদার ও একটি প্রতিনিধি দল। ওই সফরেই কাবুলকে সমস্ত রকম; সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দেয় বেইজিং।

আফগানিস্তানকে ‘ইসলামী প্রজাতন্ত্র’ ঘোষণার পর; মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, “গ্রহণযোগ্যতা পেতে তালিবানদের এখনও; অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে। ইউরোপীয় ইউনিয়নও; তালিবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। এসবের মাঝে চিনের এই ঘোষণা, তালিবান সরকারের জন্য; বড় স্বস্তি বলেই ধারণা বিশেষজ্ঞদের। তবে সবকিছুই কড়া নজরে রেখেছে; ভারত সরকার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন