উঠে গেল মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক, দেশজুড়ে মোদী সরকারের নতুন শিক্ষানীতি

3318
উঠে গেল মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক, দেশজুড়ে মোদী সরকারের নতুন শিক্ষানীতি

উঠে গেল মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক; দেশজুড়ে মোদী সরকারের নতুন শিক্ষানীতি। মোদীর নতুন শিক্ষানীতিতে; এবার থেকে আর মাধ্যমিক পরীক্ষার; গুরুত্ব থাকছে না। ক্লাস ৩, ৫, ৮ এ স্কুলের পরীক্ষা নেওয়া হবে। ১০, ১২ বোর্ডের পরীক্ষা হবে; আটটি সেমিস্টারে। গোটা চব্বিশ সাবজেক্টে; বোর্ড পরীক্ষা দেওয়ার নিয়ম চালু করা হল নতুন শিক্ষানীতিতে। পাল্টে দেওয়া হবে রেজাল্টের ধরণও।

১০+২ সিস্টেম উঠে যাচ্ছে; স্কুল শিক্ষা হবে, ৫ (একদম প্রাথমিক শিক্ষা) + ৩ (গ্রেড ৩-৫)+ ৩ (গ্রেড ৬-৮) + ৪ (গ্রেড ৯-১২) অর্থাৎ ক্লাস সিক্স পর্যন্ত বেসিক এডুকেশন চলবে; পরে ক্লাস ৬ থেকে ৮ পর্যন্ত সাবজেক্টিভ বিষয়গুলোকে গুরুত্ব দেওয়া হবে। আর ক্লাস ৯ থেকে ১২ উচ্চ শিক্ষা। ১০, ১২ বোর্ডের পরীক্ষা হবে। ক্লাস ১২-এ; আলাদা কোনও স্ট্রিম থাকছে না। আলাদা করে কলা বিভাগ ও সায়েন্স বলে কিছু থাকছে না।

আরও পড়ুনঃ বিহারে বন্ধ হল পিকের অফিস, কি হবে বাংলায়

সায়েন্স পড়ছে বলে; আর্টসের বিষয় নিতে পারবে না; পুরোনো এই নিয়মে ইতি টেনেছে নতুন শিক্ষানীতি। সায়েন্স পড়লে আর্টসের ভালো লাগার সাবজেক্ট; নিতেই পারে আর আর্টস পড়লেও; আরামসে সায়েন্সের যে কোনও সাবজেক্ট পছন্দ করে নিতে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারবে। কেউ ফিজিক্স নিয়ে পড়ার সাথে সাথে; ফ্যাশন টেকনোলজি নিয়েও পড়তে পারে।

এর আগে ১৯৮৬ সালে জাতীয় শিক্ষা নীতিতে; এই বিপুল সংস্কার আনা হয়েছিল। ফের একবার মোদী সরকার শিক্ষানীতিতে; আমূল পরিবর্তন ঘটালেন। এমনকী; ষষ্ঠ শ্রেণীর পড়ুয়াদের শিক্ষানবিশ হিসেবে বৃত্তিমূলক শিক্ষার পাঠ দেওয়ার পক্ষে; সওয়াল করেছে এই শিক্ষা নীতি। ১০+২ স্কুল শিক্ষায় বদল এনে; চার বছরের স্নাতক পাঠে জোর দেওয়া হয়েছে। অর্নার্স কোর্স বাড়িয়ে চার বছর করা হয়েছে। আগে এক বা দু বছর পর; গ্রাজুয়েশন ছেড়ে বেরোলে টুয়েলভ পাশ হয়েই থাকতে হতো। সেই নিয়ম আর থাকছে না। মাঝপথে স্নাতকের কোর্স ছেড়ে বেরিয়ে গেলেও সার্টিফিকেট দেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের কাছে ৫ কোটি টাকা নিয়ে, নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে ধর্নায় দীপিকা পাডুকোন

কেউ ১ বছর পড়ে বেরিয়ে গেলেও; তাঁকে ওই ১ বছরেরই সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। ২ বছর হলে; অ্যাডভান্সড ডিপ্লোমা। পোস্ট গ্রাজুয়েশন ২ বছরই থাকছে। এম ফিল তুলে দেওয়া হয়েছে। ইউনিভার্সিটিগুলোতে ভর্তির একটাই কমন এন্ট্রান্স টেস্ট। উচ্চশিক্ষায় এন্ট্রি বা এক্সিটে; অনেক অপশন থাকছে। ক্লাস ৬ থেকেই ভোকেশনাল ট্রেনিং। এমনকি ১০ দিনের ইন্টার্নশিপের ব্যবস্থা করা হবে।

ই-লার্নিংয়ে জোর দেওয়া হচ্ছে নতুন শিক্ষানীতিতে। ৮টি ভাষায় আপাতত অনলাইনে; পড়াশোনা চলবে। ক্লাস ৬ থেকেই কম্পিউটার কোডিং শিখতে পারবে পড়ুয়ারা। মাতৃভাষার গুরুত্ব বাড়ল। ক্লাস ৫ পর্যন্ত মাতৃভাষা শেখা মাস্ট। এরপর তা ঐচ্ছিক। ৩ ভাষার ফর্মুলা থাকছে। হিন্দি ইংরেজির সঙ্গে নিজ নিজ মাতৃভাষা পড়তে হবে। পরীক্ষার রেজাল্টেও বদল আসছে। এছাড়াও কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়নমন্ত্রকের নাম বদলে; শিক্ষা মন্ত্রক করা হচ্ছে। মেয়েদের শিক্ষার ক্ষেত্রে বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করা হবে নতুন শিক্ষানীতিতে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন