লালগড়ে ভোট শেষ হতেই গ্রেফতার, তৃণমূল নেতা ছত্রধর মাহাতো

4310
লালগড়ে ভোট শেষ হতেই গ্রেফতার, তৃণমূল নেতা ছত্রধর মাহাতো
লালগড়ে ভোট শেষ হতেই গ্রেফতার, তৃণমূল নেতা ছত্রধর মাহাতো

লালগড়ে ভোট শেষ হতেই গ্রেফতার, তৃণমূল নেতা ছত্রধর মাহাতো। বাংলায় প্রথম দফার ভোটগ্রহণ মিটতেই, তৃণমূল নেতা ছত্রধর মাহাতোকে; গ্রেফতার করল এনআইএ। রবিবার ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ, লালগড়ের বাড়ি থেকে; তাঁকে গ্রেফতার করেন গোয়েন্দারা। রাজধানী এক্সপ্রেস হাইজ্যাক করার মামলায়; তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গ্রেফতারির পর তাঁকে কলকাতায় আনা হয়েছে। রবিবার তাঁকে NIA-র বিশেষ আদালতে তোলা হবে। গ্রেফতারের সময় ধস্তাধস্তিতে; এক কনস্টেবল আহত হন। ছত্রধরের স্ত্রী অ্যারেস্ট মেমো প্রত্যাখ্যান করেন; বলে দাবি এনআইএ-র।

১২ বছর আগে ঝাড়গ্রামের বাঁশতলায়; রাজধানী এক্সপ্রেসে মাওবাদী হামলার ঘটনায় নাম জড়ায় ছত্রধরের। সেই মামলাতেই রাষ্ট্রদ্রোহিতা ও বেআইনি কার্যকলাপ বিরোধী আইন; বা UAPA-তে তৃণমূল নেতাকে গ্রেফতার করা হয়। তৎকালীন জনসাধারণ কমিটির মুখপাত্র ছত্রধর মাহাতো; যিনি এখন তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক। লালগড়ে ছত্রধরের বাড়িতে যায়; জাতীয় তদন্তকারী সংস্থার ৪০ জনের দল। সেখান থেকেই তৃণমূল নেতাকে; গ্রেফতার করা হয়। কলকাতায় নিয়ে আসা হয়েছে তাঁকে।

আরও পড়ুনঃ মমতা ফোন করেছিলেন বিজেপি নেতাকে, স্বীকার করে নিল তৃণমূল

শনিবারই ১২ বছর পর প্রথম ভোট দিয়েছিলেন ছত্রধর। ভোট দিয়ে তিনি জানিয়েছিলেন, প্রথমবার ভোট দেওয়ার অনুভূতি হচ্ছে। কিন্তু সেই শিহরণ বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দিল না NIA. কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা-র তরফে জানানো হয়েছে; তদন্ত সাহায্য করছেন না ছত্রধর। তাই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ২০০৯ সালে রাজধানী এক্সপ্রেস হাইজ্যাক মামলা ও সিপিএম নেতা প্রবীর মাহাতো খুনের মামলায়; এখনো অভিযুক্ত তিনি।

আরও পড়ুনঃ ‘মমতার দেউলিয়াপনা’, অডিও ক্লিপ ফাঁস নিয়ে বি’স্ফোরক শুভেন্দু

“এতদিন পর, ভোটের সময় কেন গ্রেফতার? নেপথ্যে রাজনৈতিক অভিসন্ধি রয়েছে”; মন্তব্য তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষের। দেশদ্রোহীদের নিয়ে রাজনীতি বাঞ্ছনীয় নয়; প্রতিক্রিয়া বিজেপি নেতা সব্যসাচী দত্তর। এনআইএ-র নোটিশ সত্ত্বেও, ছত্রধর মাহাতো তদন্তকারী সংস্থার সামনে হাজির হননি; বলেই অভিযোগ। এই অভিযোগ সম্পর্কে গতকাল ছত্রধর বলেন; “হাজিরা দিচ্ছি না, এমনটা নয়। শারীরিক অসুস্থতার জন্য; যেতে পারিনি, তা আদালত ও এনআইএ-কে জানিয়েছি। কারণও জানিয়েছি”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন