শুধু ভারতে নয়, কমিউনিস্টদের খাসতালুক কিউবা-তেও আছে গোমাতা ভক্তি

6263
শুধু ভারতে নয়, কমিউনিস্টদের খাসতালুক কিউবা-তেও আছে গোমাতা ভক্তি/The News বাংলা
শুধু ভারতে নয়, কমিউনিস্টদের খাসতালুক কিউবা-তেও আছে গোমাতা ভক্তি/The News বাংলা

শুধু ভারতে নয়, কমিউনিস্টদের খাসতালুক কিউবা-তেও আছে গোমাতা ভক্তি। কি বিশ্বাস হচ্ছে না তো? কমিউনিস্টদের খাসতালুক কিউবাতেও; রয়েছে গো-প্রীতি। গোমাতার ভক্ত ওখানেও আছে। কিউবার “উবরে ব্লাঙ্কা” (১৯৭২-১৯৮৫) নামক; এই গাভীটি প্রচুর দুধ দিত। শোনা যায় দিনে প্রায়; ১১০ লিটারের মতো। যা ছিল তখন গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস। কিউবার রাষ্ট্রপতি কমরেড ফিদেল কাস্ট্রো সময় পেলেই; গাভীটির খোঁজখবর নিতেন। ১৯৮৫ সালে ‘গোমাতা উবরে ব্লাঙ্কা’ গাভীটির মৃত্যুতে; সমগ্র দেশ শোকবিহ্বল হয়ে পড়ে। কিউবার কমিউনিস্ট পার্টির মুখপত্র; “গ্রানমা”-র প্রথম পৃষ্ঠায় গভীর শোক সহকারে গাভীটির মৃত্যুসংবাদ প্রকাশিত হয়।

আরও পড়ুনঃ মোদীর ডিজিটাল ইন্ডিয়া প্রকল্পে, ৭৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে গুগল

শুধু তাই নয়, এই গোমাতার জন্য; একদিন রাষ্ট্রীয় শোক দিবস হিসাবে পালিত হয় কিউবায়। হ্যাঁ, কমিউনিস্ট কিউবায় একটি গরুর মৃত্যুর কারণে; একদিন রাষ্ট্রীয় শোক দিবস ছিল। বন্ধ ছিল, স্কুল কলেজ অফিস আদালতের; যাবতীয় কাজকর্ম। গোটা বিশ্ব অবাক চোখে দেখেছিল; কমিউনিস্ট কিউবার এই কর্মকাণ্ড। ২১ শে মে, ২০০২ সালে; বিখ্যাত ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল, গোমাতা উবরে ব্লাঙ্কা ক্লোন করার কিউবার প্রচেষ্টা সম্পর্কে; একটি নিবন্ধ প্রকাশ করেছিল।

আরও পড়ুনঃ ২০২০ ভন কার্মান পুরষ্কারে সম্মানিত হচ্ছেন, ইসরো প্রধান ডঃ কে সিভান

এখানেই শেষ নয়, কিউবার ট্যাক্সিডারমিস্টরা (Taxidermists) উবরে ব্লাঙ্কাকে; স্টাফ করেছিলেন। পুরাতন হাভানা থেকে ৪৫ মিনিটের পথ ধরে; জাতীয় ক্যাটাল হেলথ সেন্টারের প্রবেশপথে; একটি জলবায়ু-নিয়ন্ত্রিত কাচের মামলায় দেহটি রাখা হয়। কিউবার বিজ্ঞানীরা হিমায়িত টিস্যু নমুনাগুলি ব্যবহার করে; উবরে ব্ল্যাঙ্কা গোমাতা কে ক্লোন করার ব্যর্থ চেষ্টাও করেছেন। উবরে ব্ল্যাঙ্কা র নামে; কমিউনিস্ট কিউবায় ডাকটিকিট-ও আছে।

ভারতের “কুসংস্কারাচ্ছন্ন”, “ব্যাকওয়ার্ড” হিন্দুরা; গাভীকে মা বলে ডাকে ঠিকই; কিন্তু প্রগতিশীল কমিউনিস্টদের খাস তালুক কিউবার মতো; রাষ্ট্রীয় শোকদিবস পালিত হয়েছে কি কখনও? বা যদি ভারত সরকার কোন একটি গাভীর মৃত্যুতে; এরকম শোকদিবস পালনের আহ্বান জানায়; তাহলে এখানের কমিউনিস্টদের প্রতিক্রিয়া কেমন হবে?

আরও পড়ুনঃ শিক্ষায় ঝাঁকুনি, করোনাকে হাতিয়ার করে আপনার বাচ্চার পাঠক্রম থেকে কি কি বাদ গেল

রাষ্ট্রীয় শোকেও শেষ নয়। শুধু তাই নয়, তারপর থেকে কিউবার কমিউনিস্ট সরকার; কঠোরভাবে গোহত্যা বন্ধের আইন জারি করে। ওখানে কথিত আছে; কিউবাতে কোকেন পাচার করতে গিয়ে ধরা পড়া বরং ভালো; কিন্তু গোমাংস পাচার করতে গিয়ে ধরা পড়লে আর রক্ষে নেই! হ্যাঁ, কিউবার কমিউনিস্ট সরকারের এই নীতিকে; “ফ্যাসীবাদী” নীতি কেউ বলে নি। তাহলে ভারতে গোমাতা-র প্রতি একটু নরম দৃষ্টিভঙ্গি দেখালেই; এত হইচই শুরু হয়ে যায় কেন!? উঠছে প্রশ্ন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন