‘সমুদ্রের বাহু’বলি’ আইএনএস কাভারতী অন্তর্ভুক্ত হল ভারতীয় নৌসেনায়

2575
Big News: 'সমুদ্রের বাহু'বলি' INS Kavaratti অন্তর্ভুক্ত হল ভারতীয় নৌসেনায়/The News বাংলা
Big News: 'সমুদ্রের বাহু'বলি' INS Kavaratti অন্তর্ভুক্ত হল ভারতীয় নৌসেনায়/The News বাংলা

‘সমুদ্রের বাহু’বলি’ INS Kavaratti অন্তর্ভুক্ত হল ভারতীয় নৌসেনায়। INS Kavaratti এদিন Indian Navy তে যুক্ত হয়েছে। ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরবানে; আইএনএস কাভারতী ভারতীয় নৌসেনার হাতে তুলে দিয়ে বলেন; “অ্যান্টি সাবমেরিন প্রণালী যুক্ত এই স্বদেশী রণতরী; নৌসেনার ক্ষমতা আরও বাড়াবে। ভারতীয় সেনার কাছে; আইএনএস কাভারতী অনেক দিক থেকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি একটি স্টিলথ ওয়ারশিপ। শত্রুদের র‍্যাডারে ধরা পড়বে না এই রণতরী। এর ডিজাইন ডায়রেক্টর অফ নেভাল প্রস্তুত করেছে; আর এটিকে কলকাতার গার্ডেন শিপবিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স তৈরি করেছে”।

জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নরবানে, আরও বলেন যে; “এই রণতরীতে ৯০ শতাংশ স্বদেশী উপকরণ লাগানো হয়েছে। এই রণতরীতে এমন সেন্সর লাগানো আছে; যেটি শত্রু পক্ষের সাবমেরিনকে খুঁজে; সেটির পিছু নিতেও সক্ষম। এর সঙ্গে এটি শত্রুদের র‍্যাডারেও ধরা পড়বে না”।

আরও পড়ুনঃ সপ্তমীতেই দিওয়ালি ভারতীয় সেনার, নেভির অ্যান্টি শিপ মিসা’ইলে ধ্বং’স টা’র্গেট জাহাজ

কলকাতায় গার্ডেন রিচ শিপ বিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স (জিআরএসই) -র প্রকল্প; ২৮ (কামোর্তা ক্লাস) এর আওতায় নির্মিত চারটি দেশীয়-নির্মিত এন্টি-সাবমেরিন ওয়ারফেয়ার (এএসডাব্লু) স্টিলথ করভেটসের; শেষটি আইএনএস কাভারতীকে আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতীয় নৌবাহিনীতে অন্তর্ভুক্ত করা হল।

আইএনএস কাভারতীর নাম; ১৯৭১ সালে বাংলাদেশকে পাকিস্তানের হাত থেকে মুক্তি দেওয়ার সময়; গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা রণতরী আইএনএস কাভারতীর নামে রাখা হয়েছে। এই রণতরী ১০৯ মিটার দীর্ঘ আর ১২.৮ মিটার প্রস্থ। এই রণতরীতে 4B ডিজেল ইঞ্জিন আছে। এর ওজন ৩ হাজার ২৫০ টন। নৌসেনায় এই রণতরী যুক্ত হওয়ায়; ভারতীয় নৌসেনার শক্তি অনেক বৃদ্ধি পাবে। কারণ এটি পরমাণু, রাসায়নিক আর জৈবিক আক্র’মণেও কাজ করতে সক্ষম।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন