মানুষের চেয়ে নেতাদের জীবনের দাম অনেক বেশি, অফিস খুললেও বিধানসভা ভার্চুয়াল

1202
অফিস খুললেও বিধানসভা ভার্চুয়াল, মানুষের চেয়ে নেতাদের জীবনের দাম অনেক বেশি/The News বাংলা
অফিস খুললেও বিধানসভা ভার্চুয়াল, মানুষের চেয়ে নেতাদের জীবনের দাম অনেক বেশি/The News বাংলা

লাখ লাখ লোকের অফিস খোলা; ২৯৪ বিধায়কের বিধানসভা বন্ধ। অফিস খুললেও বিধানসভা হতে চলেছে ভার্চুয়াল; অর্থাৎ মানুষের চেয়ে নেতাদের জীবনের দাম অনেক বেশি। নবান্ন সহ খুলে গেছে; রাজ্যের সব সরকারি অফিস। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর ঘোষণার পরে; সরকারি অফিসের পাশাপাশি খুলে গেছে সব বেসরকারি অফিসও। লোকাল ট্রেন চলে নি; চলে নি বেসরকারি বাস। অল্প সরকারি বাসে গাদাগাদি করে; জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চাকরি বাঁচাতে; ছুটছেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু নেতাদের জন্য বিধানসভা খুলছে না। রাজ্য বিধানসভা হতে চলেছে ভার্চুয়াল। বাড়িতে বসেই নেতারা কাজ চালাবেন বিধানসভার।

করোনা জনিত পরিস্থিতিতে; সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে; গুরুত্ব বেড়েছে ভিডিও-বৈঠকের। আর তা মাথায় রেখে এবার রাজ্য বিধানসভা ভবনেও; তৈরি করা হল নিজস্ব ভিডিও-বৈঠক ব্যবস্থার পরিকাঠামো। অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে; আপাতত তা সেট আপ করা হয়েছে। এর জন্য যা খরচ হয়েছে; তা মেটানো হচ্ছে বিধানসভার তহবিল থেকে। এই ব্যবস্থার ফলে আগামীদিনে আর এই ধরনের বৈঠকের জন্য; কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থা এনআইসি’র; মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হবে না রাজ্য বিধানসভাকে।

আরও পড়ুনঃ বিক্ষোভ দেখানোয় শাস্তি, কলকাতা থেকে উত্তরবঙ্গে বদলি বিদ্রোহী পুলিশ কর্মীদের

লাখ লাখ মানুষ এর জন্য সব অফিস খুলে গেলেও; ২৯৪ আসনের বিধানসভা বন্ধই থাকছে; ভার্চুয়াল বিধানসভা অধিবেশন করার চেষ্টা চলছে। আনুষ্ঠানিকভাবে এই প্রকল্পর নাম দেওয়া হয়েছে ই-বিধান। এর অঙ্গ হিসেবে বিধানসভা ভবনগুলিকে; ভিডিও-বৈঠক করার জন্য পরিকাঠামো তৈরির কথা বলা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ সরকারী অফিসে এবার ২ শিফটে কাজ

এখানেই প্রশ্ন তুলেছেন সাধারণ মানুষ। কাদের জন্য রাজ্য ? কাদের জন্য সব ? আমজনতা প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে; চাকরি বাঁচাতে ভিড় বাসে যেতে বাধ্য হচ্ছে। আর নেতা বিধায়কদের কথা ভেবে; ভার্চুয়াল বিধানসভার কথা ভাবা হয়েছে! ভার্চুয়াল লোকসভার কথা ভাবা হচ্ছে! নেতা বিধায়ক সাংসদ; এদের জীবনটাই দামি ? আর আমজনতার জীবনের কোন দামই নেই ?

লাখ লাখ লোকের কথা না ভেবে; অফিস খুলতে পারে। আর ২৯৪ টা নেতার জন্য; বিধানসভা খুলতে পারে না? যেখানে এই ২৯৪ জনের প্রায় সবাই আসেন; নিজেদের ব্যক্তিগত গাড়িতে ? নেতা বিধায়ক সাংসদ; এরাই সব; সাধারণ মানুষ কিছুই নয় ? রাজ্য দেশটা শুধুই রাজনৈতিক নেতাদের ? জনতার সেবকদের জন্য ভাবা হয় সবকিছু; জনতার জন্য কেন নয় ? প্রশ্ন তুলছেন সাধারণ মানুষ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন