লোকাল ট্রেন চালুর জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে বিরোধীদের চিঠি, বিক্ষোভে নিত্যযাত্রী ও হকাররা

2226
লোকাল ট্রেন চালুর জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে বিরোধীদের চিঠি, বিক্ষোভে নিত্য যাত্রীরা
লোকাল ট্রেন চালুর জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে বিরোধীদের চিঠি, বিক্ষোভে নিত্য যাত্রীরা

লকডাউনের শুরু থেকেই; বাংলায় প্রায় ছয় মাস বন্ধ লোকাল ট্রেন। এদিকে খুলে গেছে; অফিস, শপিং মল, মেট্রো রেল। পুজোর বাজারের জন্য জনসমাগম বেড়েই চলেছে; গড়িয়াহাট হাতিবাগান ও নিউ মার্কেট চত্বরে। এবার, লোকাল ট্রেন চালু করার দাবিতে; জেলার মানুষদের মধ্যে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। কারণ বহু মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে; লোকাল ট্রেন না চলার জন্য। লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করার দাবিতে; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়েছে; বাম ও কংগ্রেসের মত বিরোধী দলগুলোও।

কলকাতার উপকন্ঠের যে মানুষগুলো, এখনও চাকরিতে টিকে আছেন; তাঁরা কোনরকমে বাসের উপর ভরসা করে চাকরী বাঁচাচ্ছেন। কিন্তু প্রতিদিনের বাস ভাড়া গুনতে; তাদের নাভিশ্বাস উঠছে। তাঁর সঙ্গে আছে; করোনা সংক্রমণের আশঙ্কাও। যাতায়াতের জন্য আগে, যেখানে খরচ হত ২৫-৩০ টাকা; এখন সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫০-২০০ টাকায়। পেটের তাগিদে বহু মানুষ; ৪০-৫০ কিলোমিটার সাইকেল চালিয়ে শহরে আসছে প্রতিদিন।

আরও পড়ুনঃ গরু পাচার, সারদা, নারদা তদন্ত শেষ করতে, কলকাতা ইডি’র দায়িত্বে বিশেষ অধিকর্তা বিবেক ওয়াদেকরকে

সব থেকে সমস্যায় পড়েছেন; গ্রামীণ মানুষেরা; যারা প্রতিদিন শহরে আসতেন উপার্জন করতেন। বিশেষ করে যে সব মহিলারা; যারা বাড়ির পরিচারিকা-সহ বিভিন্ন ছোটখাট কাজ করে দিন গুজরান করতেন। হাওড়া শিয়ালদহ সহ বিভিন্ন লোকাল ট্রেন লাইনের; হকারদের অবস্থা তথৈবচ। তাঁরাও চান, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব; লোকাল ট্রেন চালু করুক রাজ্য সরকার। কারণ করোনাতে বেঁচে গেলেও; পরিবারসহ তাঁরা অভাবে মারা পড়বেন বলে দাবি।

মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান ও বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তীর দাবি; “লোকাল ট্রেন চালু করার বিষয়ে; রাজ্য অবিলম্বে রেলের সঙ্গে আলোচনায় বসুক”। অফিস-কাছারি; বাজার-হাট; সবই খোলা রয়েছে। ট্রেন নেই বলে বাসে উপচে পড়া ভিড় হচ্ছে; ভাড়াও অনেক বেশি নেওয়া হচ্ছে। অটো-টোটোর ক্ষেত্রেও; ভাড়া বেড়ে গিয়েছে অনেকটাই। সরকারি কর্মীরা; যাঁরা ব্যাংক, বীমা, পোস্ট অফিস, ডিফেন্স, হাসপাতাল, শিক্ষা ক্ষেত্রে কাজ করেন; তাঁরা প্রাইভেট গাড়িতে মাসে ১০-১৫ হাজার টাকা ব্যায় করতে সমর্থ; কিন্তু ৮-১০ হাজার টাকা মাইনের প্রাইভেট চাকুরেরা পড়েছে অথৈ জলে। তাদের দাবি, এখনই লোকাল ট্রেন চালু না হলে; তাদেরও এবার চাকরী হারাতে হবে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন