“কথা রাখেন নি মমতা”, পার্শ্ব শিক্ষকদের নবান্ন অভিযানে র’ণক্ষেত্র রাজপথ

1613
"কথা রাখেন নি মমতা", পার্শ্ব শিক্ষকদের নবান্ন অভিযানে র'ণক্ষেত্র রাজপথ/The News বাংলা

“কথা রাখেন নি মমতা”; এই অভিযোগ নিয়ে; রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকদের নবান্ন অভিযানে র’ণক্ষেত্র রাজপথ। পার্শ্ব শিক্ষকদের নবান্ন অভিযান; আর সেই নিয়েই উত্তপ্ত কলকাতা। বেতন বৃদ্ধির দাবিতে প্রথমে তারা; শহিদ মিনার ময়দানে জমায়েত হন। এর পরেই পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী; নবান্ন অভিযান শুরু হয়। যদিও পুলিশ জানিয়েছে, “এই অভিযানের জন্য; অনুমতি দেওয়া হয়নি”। কিন্তু সেই দাবি উড়িয়ে; নবান্নের দিকে এগোতে থাকে পার্শ্ব শিক্ষকরা। আন্দোলনকারীদের রুখতে; হিমশিম খায় পুলিশ। ‘সম কাজে সম বেতন’-এর দাবিতেই; পার্শ্ব শিক্ষকদের এই আন্দোলন হয়। শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের ডাকে; এদিন নবান্ন অভিযান ও অনশন কর্মসূচিতে অংশ নেন সমস্ত চুক্তিভিত্তিক শিক্ষক।

“কলকাতা হাইকোর্টের বিশেষ অনুমতি; নিয়েই এই অভিযান”; জানিয়েছেন মুক্ত মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক মইদুল ইসলাম। শিক্ষক, প্রশিক্ষক, পার্শ্ব শিক্ষক,‌ শিক্ষাকর্মী এরকম প্রায় তিন লক্ষ মানুষের; সঠিক বেতন কাঠামো, পেনশন প্রভৃতির দাবিতে; অনশন ও নবান্ন অভিযান কর্মসূচির কথা; আগেই জানিয়েছিল শিক্ষক সংগঠন ঐক্য মুক্ত মঞ্চ। তাঁদের অন্যতম একটি দাবি; ‘সমকাজে সমবেতন’।

আরও পড়ুনঃ “তোর হাত কেটে নেব, পিষে দেব” শুভেন্দুকে বড় চ্যালেঞ্জ দিলেন কল্যাণ

তবে শহিদ মিনারে বসার অনুমতি পেলেও; নবান্ন অভিযানের অনুমতি ছিল না। কিন্তু থেমে থাকেননি প্যারা টিচাররা। এর আগে, নিজেদের ন্যায্য দাবি মেটানোর দাবিতে; আন্দোলন চালাতে হাইকোর্টের শরণাপন্ন হন তাঁরা। এই প্রসঙ্গে মইদুলবাবু জানিয়েছেন; “কাল রবিবার ছিল। তাই স্পেশাল পারমিশন নিয়ে; হাইকোর্ট খুলিয়ে অর্ডার নিয়েছি। শনিবার রাতেই বারোটা নাগাদ; বিচারপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করি। পরদিন সকালে বিশেষ বোর্ড গঠন করে, বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য রায় দিয়েছেন; শহিদ মিনারের কাছে আমরা বসতে পারব”।

আরও পড়ুনঃ কৃষকদের বাড়িতে জেপি নাড্ডা, পার্টি অফিসে তুলে নিয়ে এল তৃণমূল

কিন্তু শহিদ মিনারে ছেড়ে নবান্ন অভিযান শুরু হতেই; রাস্তায় বাধা দেয় পুলিশ। পুলিশ এর সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু হয়; বিক্ষোভরত পার্শ্ব শিক্ষকদের। শুরু হয় ধাক্কাধাক্কি। বেশ কয়েকজনকে ঘটনায় আটক করা হয়। শেষ পর্যন্ত, বিক্ষোভকারীদের দাবি মেনে; সবাইকে ছেড়ে দেওয়া হলে, তাঁরা আবার শহিদ মিনার চত্বরে ফিরে আসেন। “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কথা দিয়েও রাখেন নি”; এমনটাই অভিযোগ। ভোটের আগে, পার্শ্ব শিক্ষকদের নিয়ে সমস্যায়; রাজ্য সরকার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন