কোভ্যাক্সিন, কোভিশিল্ড ও স্পুটনিকের পর ভারতে আসছে ফাইজার এবং মডার্না টিকা

8976
কোভ্যাক্সিন, কোভিশিল্ড ও স্পুটনিকের পর ভারতে আসছে ফাইজার এবং মডার্না
কোভ্যাক্সিন, কোভিশিল্ড ও স্পুটনিকের পর ভারতে আসছে ফাইজার এবং মডার্না

কোভ্যাক্সিন, কোভিশিল্ড ও স্পুটনিকের পর; ভারতে আসছে ফাইজার এবং মডার্না করোনা টিকা। আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ। আর তা থেকে বাঁচতে; টিকাকরণে জোর দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার। আর এই পরিস্থিতিতে মর্ডানা টিকা আমদানি ও সরবরাহের জন্য; ডিসিজিআইয়ের ছাড়পত্র চেয়েছিল ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা সিপলা। মঙ্গলবার দুপুরে সেই ছাড়পত্র দিল; দেশের ওষুধ নিয়ামক সংস্থা ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া। এদিকে ভারতের বাজারে ছাড়পত্র চেয়ে; আবেদন করেছে মর্ডানাও। সূ্ত্রের খবর, দ্রুত তারাও; ছাড়পত্র পেতে চলেছে।

দেশে বিদেশি টিকার ছাড়পত্র পাওয়ার প্রক্রিয়া; সহজ করেছে কেন্দ্র সরকার। জানানো হয়েছে, কোনও বিদেশি টিকা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা আমেরিকার মতো দেশে; জরুরি অবস্থার জন্য ছাড়পত্র পেয়ে থাকলে; তারা এদেশে ট্রায়াল ছাড়াই ছাড়পত্র পেতে পারে। তবে সেক্ষেত্রে প্রথম ১০০ জন টিকাগ্রহীতার তথ্য; জমা করতে হবে সরকারের কাছে। কেন্দ্রের এই শর্তকে হাতিয়ার করেই; ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করেছিল সিপলা। তাদের সেই আবেদন গৃহীত হয়েছে।

মার্কিন প্রশাসন আগেই জানিয়েছিল; কোভ্যাক্স প্রকল্পে মর্ডানার বেশ কিছু টিকা পেতে পারে ভারত। ইতিমধ্যে করোনার বিরুদ্ধে; ৯০ শতাংশ কার্যকর এই টিকা। ভারত সরকার এই টিকাকে কবে; ছাড়পত্র দেয় সেটাই এখন দেখার। এদিক জানা গেছে জাইডাস–ক্যাডিলার টিকাও; জুলাইয়ের শেষের দিকে ছাড়পত্র পেয়ে যেতে পারে।

আরও পড়ুনঃ ভারতের ম্যাপ থেকে বাদ দিয়ে আলাদা দেশ কাশ্মীর লাদাখ, ফের বিতর্কে টুইটার

আন্তর্জাতিক বাজারে ইতিমধ্যেই বিক্রি হওয়া; ফাইজার এবং মডার্না টিকাকে ভারতে অনুমোদন দেওয়ার পথ; আগেই প্রশস্ত করছিল কেন্দ্র। কয়েকদিন আগেই ফাইজারের প্রধান অ্যালবার্ট বোরলা জানিয়েছিলেন, ভারতে জরুরি ভিত্তিতে তাঁদের তৈরি টিকাকে; ছাড়পত্র দেওয়ার প্রক্রিয়া চূড়ান্ত পর্যায়ে। কেন্দ্রের সঙ্গে এই বিষয়ে; চুক্তি চূড়ান্ত হতে চলেছে দ্রুত।

কয়েকদিন আগেই ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে; নির্দিষ্ট কিছু দেশে ছাড়পত্র পেয়েছে এবং হু-র তালিকায় রয়েছে; এমন সংস্থার টিকার এ দেশে আর ট্রায়ালের প্রয়োজন নেই। ট্রায়াল ছাড়াই এখানকার মানুষের উপর; সেই টিকা প্রয়োগের ক্ষেত্রে ছাড়পত্র পাবে সংস্থাগুলি। এই ঘোষণার পরই ফাইজার ও মডার্না টিকার; এদেশে অনুমোদন পাওয়া সময়ের অপেক্ষা বলেই, মনে করা হচ্ছে। আর সেটাই হল, অনুমতি পেল মর্ডানা টিকা; যে কোনদিন পাবে ফাইজার টিকাও।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন