রাহুল মমতা ঘনিষ্ঠ স্যাম পিত্রোদাকে সেনাবাহিনী নিয়ে পাল্টা দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী

270
রাহুল মমতা ঘনিষ্ঠ স্যাম পিত্রোদাকে সেনাবাহিনী নিয়ে পাল্টা দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী/The News বাংলা
রাহুল মমতা ঘনিষ্ঠ স্যাম পিত্রোদাকে সেনাবাহিনী নিয়ে পাল্টা দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

পাকিস্তানের বালাকোটে ভারতীয় বিমান বাহিনীর হামলা নিয়ে এবার প্রশ্ন তুললেন স্যাম পিত্রোদা। রাহুল গান্ধী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর ঘনিষ্ঠ স্যাম পিত্রোদা শুক্রবার বিমান বাহিনীর সফলতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দেন। এবং জানান, জঙ্গি হামলার জন্য পাকিস্তানকে দোষী করা ঠিক নয়। এরপরেই টুইট করে তাঁকে পাল্টা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

রাহুল মমতা ঘনিষ্ঠ স্যাম পিত্রোদা এবার পাকিস্তানের বালাকোটে বিমান হামলা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন। গান্ধী পরিবার তথা রাহুল গান্ধীর ঘনিষ্ঠ পিত্রোদা ইন্দিরা গান্ধীর সময় থেকে শুরু করে রাজীব গান্ধী, মনমোহন সিংয়ের সরকারে বিভিন্ন সময়ে নানা সরকারি কাজ, প্রকল্প ও কমিটির মাথায় থেকেছেন। তিনি ওভারসিজ কংগ্রেস কমিটির প্রধানও বটে। আর এই প্রশ্ন তোলার পরেই ক্ষেপে যান প্রধানমন্ত্রী মোদী।

পুলওয়ামার হামলা নিয়ে পিত্রোদা বলেছেন, “হামলা সম্পর্কে জানি না। সবসময়ই এমন হামলা হয়। মুম্বইয়ে হামলার পরে আমরা প্রতিক্রিয়া দেখাতে পারতাম। বিমান পাঠাতে পারতাম। তবে সেটা ঠিক হতো না। এভাবে বিষয়টিকে দেখা ঠিক নয়”। তিনি আরও বলেন, “আটজন জঙ্গি এসে হামলা করল। তার জন্য আপনি গোটা পাকিস্তানের ওপরে খড়্গহস্ত হতে পারেন না। কিছু লোক একটা ঘটনা ঘটাল বলে সেদেশের সকলকে দোষ দিতে পারেন না”।

স্যাম পিত্রোদা প্রশ্ন তোলেন, “আমি জানতে চাই, আমরা কি হামলা করেছি? তিনশো জন লোক মরেছে? আমি নিউ ইয়র্ক টাইমস ও অন্য খবরের কাগজ পড়েছি। কোথায় এর কোন উল্লেখ নেই। শুধু মোদী সরকার এই দাবি করছে”। তিনি আরও বলেন,”বিমান হামলায় সত্যি ৩০০ জন মারা গিয়েছে কিনা সেটা আমরা সবাই জানতে চাই”।

স্যাম পিত্রোদা প্রশ্ন করেন, “প্রত্যেক ভারতীয়কে এই নিয়ে জানাতে হবে। তারপরে আসবে সারা বিশ্বের সংবাদমাধ্যম, যারা বলছে, কেউ মারা যায়নি। ভারতীয় হিসাবে এটা আমার কাছে ভালো অভিজ্ঞতা নয়”।

স্যাম পিত্রোদার এই প্রসঙ্গ সামনে আসতেই প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নিজের টুইটারে একহাত নিলেন কংগ্রেস ও স্যাম পিত্রোদাকে। তিনি লেখেন, “কংগ্রেস সভাপতির বিশ্বাসী কংগ্রেসের হয়ে পাকিস্তানের হয়ে গুণ গাইছেন। সেটা করা হচ্ছে ভারতের সেনাকে ছোটো করে দেখিয়ে”।

নিজের টুইটারে মোদী আরও বলেছেন, “বিরোধীরা সেনাকে বারবার অপমান করছে। আমি দেশের নাগরিকদের কাছে আবেদন করছি, বিরোধী নেতাদের এই নিয়ে প্রশ্ন করুন। জানিয়ে দিন, ১৩০ কোটি ভারতবাসী তাদের ক্ষমা করবে না। দেশ সেনার পাশেই রয়েছে”।

ভোটের আগে রাহুল ও মমতা ঘনিষ্ঠ স্যাম পিত্রোদা এইভাবে বিজেপির হাতে ফের একটা অস্ত্র তুলে দেবেন সেটা ভাবতে পারেননি রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। আর সেটাকেই হাতিয়ার করে ভোটের মুখে লড়াইয়ে নেমে পরলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজেই। এই ইস্যুতেই কংগ্রেসের তুমুল সমালোচনা করেছে বিজেপি। তবে কংগ্রেসের তরফে এটা ব্যক্তিগত মত বলে উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন