দুর্গা পুজোয় পুলিশ প্রশাসনের রাজনীতি, মমতার কার্নিভ্যালে যেতে নারাজ পুজো উদ্যোক্তারা

3015
দুর্গা পুজোয় সরকারের রাজনীতি, মমতার কার্নিভ্যাল বয়কট পুজো উদ্যোক্তাদের/The News বাংলা
দুর্গা পুজোয় সরকারের রাজনীতি, মমতার কার্নিভ্যাল বয়কট পুজো উদ্যোক্তাদের/The News বাংলা

দুর্গা পুজোয় সরকারের ক্ষমতার অপব্যবহার; পুলিশ প্রশাসনের রাজনীতি। আর এই অভিযোগেই এবার রেড রোডে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুজো কার্নিভ্যালে যেতে নারাজ; টালা বারয়ারি পুজো উদ্যোক্তাদের। টালা বারয়ারির তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে; “কিছু নির্দিষ্ট কারণ বসত টালা বারোয়ারি ডাক পাওয়া সত্বেও; রেড রোড দুর্গা কার্নিভ্যাল থেকে নিজেদের সরিয়ে নিল”। আর এরপরেই শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক। কোন কোন নেতা মন্ত্রীর পুজোকে প্রচারের আলো আরও বেশি করে পাইয়ে দিতেই কি; টালা বারোয়ারির প্রচার কাড়ল রাজ্য প্রশাসন; উঠে গেছে প্রশ্ন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর সাধের; দুর্গা পুজো কার্নিভ্যাল বয়কট করল উত্তরের বিখ্যাত পুজো টালা বারোয়ারির পুজো উদ্যোক্তারা। এবারের পুজোর আগে থেকেই রাজ্য পুলিশ প্রশাসনের অসহযোগিতা ও উদাসীনতার অভিযোগ তুলে; এবারের পুজো কার্নিভ্যাল বয়কট করল টালা বারয়ারি।

আরও পড়ুনঃ সংস্কৃতির পাশাপাশি দুর্গা পুজো কার্নিভ্যাল তুলে ধরবে সমাজে মধ্যবিত্ত ও কোটিপতির তফাৎ

শুরুটা হয় টালা ব্রিজ বন্ধ করা নিয়ে। পুজোর আগে আচমকাই টালা ব্রিজ বন্ধ করে দেয় রাজ্য সরকার। উপযুক্ত যাতায়াত ব্যবস্থা না করেই; দুর্গা পুজোর ঠিক আগে টালা ব্রিজ বন্ধ করে দেবার পিছনে; পুজোর রাজনীতিই দেখছেন টালা বারয়ারি পুজো কর্তারা। দুর্গা পুজোয় দক্ষিনের তৃণমূল নেতা মন্ত্রীদের বিশেষ সুবিধা পাইয়ে দিতেই; এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করছেন টালা বারয়ারি পুজো উদ্যোক্তারা।

তবে এই নিয়ে প্রকাশ্যে তাঁরা কিছুই বলেন নি। পুজো কার্নিভ্যাল বয়কট করে; টালা বারয়ারি পুজো কর্তাদের তরফ থেকে অভিষেক ভট্টাচার্য জানিয়েছেন; “এর পিছনে কি কারণ তা আমরা জানি না; বলছিও না। তবে এবারের পুজোর আগে প্রশাসনিক অসহযোগিতা; একেবারেই মানা যায় না। ঠিক পুজোর আগেই কোনরকম উপায় না রেখে; টালা ব্রিজ বন্ধ করে দেওয়া হল। ১০০ টি রুটের বাস বন্ধ করে দিয়ে; এলাকায় ৬০ টি মাত্র অটো দেওয়া হল”।

টালা বারয়ারি পুজো উদ্যোক্তা অভিষেক ভট্টাচার্য এর অভিযোগ; “পুলিশ, প্রশাসন, নেতা, মন্ত্রী। কাউন্সিলর কেউ এই নিয়ে; আমাদের সাহায্য করেন নি। এক ঘণ্টার মধ্যে টালা ব্রিজ ও ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায়; সমস্ত বিজ্ঞাপন সরিয়ে ফেলতে কড়া নির্দেশ দেয় পুলিশ প্রশাসন। এতে আমাদের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। পুজো দেখতে আসা মানুষদের আসতে; উপযুক্ত যানবাহনের ব্যবস্থা করা হয় নি। পুজোর সময় ঠাকুর দেখতে আসা মানুষদের গাড়ি; ট্রাফিক সামলানোর নামে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছে। সবমিলিয়ে টালার পুজোতে দর্শনার্থী কমাতে; যতটা সম্ভব চেষ্টা করেছে পুলিশ ও প্রশাসন”।

আর এই সব কারণেই এবার রেড রোডে; পুজো কার্নিভ্যাল বয়কট টালা বারয়ারি পুজো উদ্যোক্তাদের। সরকারের উপর দুর্গা পুজো নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগ নিয়ে; রেড রোডে পুজো কার্নিভ্যাল বয়কট করার ঘটনা এই প্রথম। ফলে বিভিন্ন মহলে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। বিরোধীরা ইতিমধ্যেই এই ইস্যুতে রাজ্য সরকারের সমালোচনা শুরু করেছে। টালা অঞ্চলের আরেকটি পুজো টালা পার্ক প্রত্যয় ও এবার টালা ব্রিজ সংক্রান্ত যাতায়াতের অসুবিধার কারণে; রেড রোডে কার্নিভ্যালে অংশগ্রহণ করবে না।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন