শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ হওয়াতেই কি মেদিনীপুর পুরপ্রশাসক পদ থেকে সরানো হল প্রণব বসুকে

844
শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ হওয়াতেই কি মেদিনীপুর পুরপ্রশাসক পদ থেকে সরানো হল প্রণব বসুকে
শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ হওয়াতেই কি মেদিনীপুর পুরপ্রশাসক পদ থেকে সরানো হল প্রণব বসুকে

শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ হওয়াতেই কি; মেদিনীপুর পুরপ্রশাসক পদ থেকে সরানো হল প্রণব বসুকে। এটাই এখন জোর প্রশ্ন। ১০ বছর ধরে মেদিনীপুর পুরসভার চেয়ারম্যান ছিলেন; শুভেন্দু অধিকারীর কাছের মানুষ প্রণব বসু। বর্তমানে প্রশাসক বোর্ডের সদস্য হিসেবে; কাজ করছিলেন। এবার তাঁকে সেই পদ থেকে; আচমকা সরিয়ে দেওয়া হল। তাঁর জায়গায়, মেদিনীপুরের পুরপ্রশাসক হচ্ছেন; খড়গপুর গ্রামীণের বিধায়ক তথা জেলা তৃণমূলের চেয়ারম্যান দীনেন রায়। বিধায়ক দীনেন রায়কে পুরপ্রশাসকের দায়িত্ব দেওয়ার; সরকারি নির্দেশ আসে, রাজ্যে পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর থেকে। নতুন বোর্ড থেকে শুধুই বাদ গিয়েছেন; মেদিনীপুর পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রণব বসু।

মেদিনীপুরের পুরপ্রশাসক হচ্ছেন; খড়গপুর গ্রামীণের বিধায়ক তথা জেলা তৃণমূলের চেয়ারম্যান দীনেন রায়। এই দায়িত্বে ছিলেন; মেদিনীপুর সদরের মহকুমা শাসক দীননারায়ণ ঘোষ। তিনি ঝাড়গ্রামের অতিরিক্ত জেলাশাসকের; দায়িত্বে যাচ্ছেন। নতুন মহকুমা শাসক নীলঞ্জন ভট্টাচার্যকে; মেদিনীপুর পুরপ্রশাসকের দায়িত্ব বুঝিয়ে দেন। কিন্তু তারপরই বিধায়ক দীনেন রায়কে; পুরপ্রশাসকের দায়িত্ব দেওয়ার সরকারি নির্দেশ আসে; রাজ্যে পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর থেকে।

আরও পড়ুনঃ নন্দীগ্রামে ভাঙন শুরু তৃণমূলে, পঞ্চায়েত দ’খলের পথে বিজেপি

মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর ২০১৮ সালের ১৬ ডিসেম্বর; মেদিনীপুর পুরসভার প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব নেন; মহকুমা শাসক দীননারায়ণ ঘোষ। এবার তাঁর জায়গায় আসছেন; দীনেন রায়। আগের কমিটির সদস্য মেদিনীপুরের বিধায়ক মৃগেন মাইতি; এবং প্রাক্তন কাউন্সিলর নির্মাল্য চক্রবর্তী নতুন কমিটিতেও রয়েছেন। এই প্রশাসক বদলের পিছনে; আবার অনেকে রাজনীতি দেখছেন। কমিটি থেকে প্রণবকে সরানোর পিছনে; দলের অন্দরের রাজনৈতিক সমীকরণের কথা বলছেন অনেকে।

আরও পড়ুনঃ বামফ্রন্টে আবার বড়সড় ভাঙন, লাল ছেড়ে গেরুয়াতে ২২ জন দাপুটে বাম নেতা

তাঁদের মতে প্রণব যেহেতু শুভেন্দু অধিকারী ঘনিষ্ঠ; তাই তাঁকে বোর্ড থেকে সরিয়ে দেওয়া হল। মেদিনীপুর শহর ক্লাব সমন্বয় কমিটির ব্যানারে; বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠানে শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে মঞ্চে ছিলেন প্রণব। নতুন এই বদল প্রসঙ্গে তিনি বলেন; “আমাকে এখন আর পছন্দ হয়নি; তাই রাখেনি। কেন বাদ দিল; কারণটা ওঁরাই বলতে পারবেন। আমাকে কিছু জানানো; বা জিজ্ঞাসা করা হয়নি”। এই নিয়ে, ফের সরগরম জেলা ও রাজ্য রাজনীতি।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন