৭ বছরে নিয়োগ নেই, মাত্র ২ মাসের মধ্যেই প্রাথমিক টেটে শিক্ষক নিয়োগের ফলপ্রকাশ

496
৭ বছরে নিয়োগ নেই, মাত্র ২ মাসের মধ্যেই প্রাথমিক টেটে শিক্ষক নিয়োগের ফলপ্রকাশ
৭ বছরে নিয়োগ নেই, মাত্র ২ মাসের মধ্যেই প্রাথমিক টেটে শিক্ষক নিয়োগের ফলপ্রকাশ

৭ বছরে নিয়োগ নেই; রাজ্য বিধানসভা ভোটের আগে, মাত্র ২ মাসের মধ্যেই প্রাথমিক টেটে শিক্ষক নিয়োগের ফলপ্রকাশ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ মেনে; মাত্র ২ মাসের মধ্যেই প্রাথমিক টেটে শিক্ষক নিয়োগের ফলপ্রকাশ করল; পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ। রাজ্যে ১৬,৫০০ শূন্যপদের মধ্যে; প্রথম ধাপে ফল প্রকাশিত হল ১৫,২৮৪ জনের। সোমবার গভীর রাতে যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা; প্রকাশ করা হয়েছে সংসদের ওয়েবসাইটে। তালিকায় যাঁদের নাম রয়েছে; তাঁদের দ্রুত নিয়োগ করা হবে। দীর্ঘদিন ধরে আটকে থাকা শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া; এখন শেষ করা হবে কিনা সেটাই ছিল প্রশ্ন। বাংলা বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই শিক্ষক নিয়োগ; শাসক শিবিরের সমর্থন খানিকটা বাড়িয়ে দেবে; বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহল।

বাকি যে ১,২১৬ টি শূন্যপদের মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়নি; সেগুলিতে যাঁরা অনলাইনে আবেদন করেছেন; অথচ নাম এই মেধাতালিকায় ওঠেনি এবং কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশানুসারে যাঁরা অফলাইনে আবেদন করেছেন; তাঁদের দিয়ে পূরণ করা হবে। দীর্ঘ ৭ বছর রাজ্যে; প্রাথমিক টেটের নিয়োগ প্রক্রিয়া আটকে ছিল। এতদিন ধরে স্থগিত থাকা পদ্ধতির জট খুলে যাওয়ায়; খুশির হাওয়া হবু শিক্ষক মহলে।

আরও পড়ুনঃ বাংলা বিধানসভা ভোটের আগে, মিঠুন চক্রবর্তীর বাড়িতে মোহন ভাগবত

গত নভেম্বরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ঘোষণা করেছিলেন; এবার লাল ফিতের ফাঁস খুলে দ্রুত প্রাথমিক টেটে নিয়োগ করতে হবে। তারপরেই নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে, এই নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করে; প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ। শুরু হয় আবেদনকারীদের নথিপত্র যাচাইয়ের কাজ। পরীক্ষার ভিত্তিতেই, ফলপ্রকাশ করে; প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ।

প্রার্থীরা ফলাফল দেখতে পারেন; www.wbppe.org এবং http://wbprimaryeducation.org -এই দুই ওয়েবসাইটে। সোমবার গভীর রাতে; ১৫ হাজার ২৮৪ জনের মেধাতালিকা প্রকাশিত হয়েছে। পর্ষদ সূত্রে খবর, প্রার্থীদের নিয়োগপত্র দেওয়ার প্রক্রিয়া; খুব তাড়াতাড়ি শুরু হবে।

দিন দুই আগেই সাঁওতালি মাধ্যম স্কুলে; শিক্ষক নিয়োগের তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। মেধার ভিত্তিতে প্রার্থীদের প্যানেল; প্রকাশ করল স্কুল সার্ভিশ কমিশন। এর আগে ডিসেম্বর মাসের ২১ তারিখ; পরীক্ষার নোটিস জারি করেছিল কমিশন। জানুয়ারি মাসের ২৮ ও ২৯ এবং ফেব্রুয়ারির ২ ও ৩ তারিখ; পরীক্ষা হয়েছিল রাজ্যে। তার দিন বারোর মধ্যে তালিকা প্রকাশে; খুবই খুশি চাকরিপ্রার্থীরা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন