মমতার নির্দেশকে বুড়ো আঙুল, বেসরকারি স্কুলে ফি লাগামছাড়া

1234
মমতার নির্দেশকে বুড়ো আঙুল, বেসরকারি স্কুলে ফি লাগামছাড়া
মমতার নির্দেশকে বুড়ো আঙুল, বেসরকারি স্কুলে ফি লাগামছাড়া

মমতার নির্দেশকে বুড়ো আঙুল; বেসরকারি স্কুলে ফি লাগামছাড়া। আলাপ-আলোচনা, কমিটি গঠন করেও; বেসরকারি স্কুলে ইচ্ছেমতো ফি নেওয়ার প্রবণতায় লাগাম দেওয়া যায়নি। সেই জন্য ওই সব স্কুলের ফি নিয়ন্ত্রণে; বিধানসভায় বিল আনার প্রক্রিয়া শুরু করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। খসড়া প্রস্তাব নবান্নতে তৈরি হয়েও যায়; দুবছর আগেই। কিন্তু তারপরেও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে; বেসরকারি স্কুলে ফি। এবছর বেসরকারি স্কুলে; ফি এর ‘অফিসিয়াল’ তালিকা দেখেই চক্ষু চড়কগাছ সবার। সরকারি নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই চলছে; ফি বৃদ্ধির রমরমা।

লিস্ট অনুযায়ী, ফি নেবার শীর্ষে আছে; লা মার্টিনিয়ার স্কুল। বয়েজ ও গার্লস স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের জন্য; এদের সারা বছরের ফি ২ লক্ষ ৪৭ হাজার টাকা। আর এই ফি দেখেই; চমকে গেছে গোটা বাংলা। কি করে এতটা ফি নিতে পারে; লা মার্টিনিয়ার বয়েজ বাঁ গার্লস স্কুল। মমতার নির্দেশকে কি বুড়ো আঙুল দেখানো হল? আবার উঠে এল সেই এক প্রশ্ন।

বিকাশ ভবন সূত্রের খবর; বিভিন্ন বেসরকারি স্কুলের মাত্রাছাড়া ফি নেওয়া, যখন-তখন নানা অছিলায় ফি বাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। ফি নিয়ন্ত্রণের জন্য; ২০১৭ সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে বিভিন্ন বেসরকারি স্কুলের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে; বৈঠক করেন টাউন হলে। সেখানে একটি কমিটিও গড়ে দেওয়া হয়। পরে সেই কমিটি থেকে কয়েকজন সদস্য বেরিয়ে যান। বিধানসভায় এই নিয়ে একটি বিল আনার জন্য; ফি সংক্রান্ত খসড়াও পাঠানো হয় নবান্নে।

স্কুলশিক্ষা দফতর সূত্রে জানা গিয়েছিল; ওই খসড়ায় প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল; কোন স্কুল কোন ক্যাটিগরি বা স্তরের অন্তর্ভুক্ত হবে; তিনটি বিষয়ের ভিত্তিতে সেটা ঠিক করা হোক। সেই তিনটি বিষয় হল স্কুলের অবস্থান; স্কুলের পরিকাঠামো এবং স্কুলের বার্ষিক ফল। এর পরে মুখ্যমন্ত্রীর গড়ে দেওয়া কমিটির সঙ্গে কথা বলে; ক্যাটিগরি অনুযায়ী ফি নির্ধারণ করা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন; ‘‘তাঁর দফতর খসড়া তৈরি করেছে। লাগামছাড়া ফি নিয়ন্ত্রণ করাই সরকারের উদ্দেশ্য। তামিলনাড়ু এবং অন্যান্য মডেলের সমন্বয়ে এটা তৈরি হয়েছে। সেই আলোচনার ভিত্তিতে প্রস্তাব পাঠানো হবে মন্ত্রিসভায়। পরে বিল যাবে বিধানসভায়’’। তবে সেই বিলের বর্তমান অবস্থা কি; কেউ জানে না। সবকিছুকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েই; চলছে ফি বৃদ্ধির এই খেলা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন