৩৭০ ধারা নিয়ে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে প্রশ্ন করায় মিলল খুনের হুমকি

716
৩৭০ ধারা নিয়ে প্রিয়াঙ্কাকে প্রশ্ন করায় মিলল খুনের হুমকি/The News বাংলা
৩৭০ ধারা নিয়ে প্রিয়াঙ্কাকে প্রশ্ন করায় মিলল খুনের হুমকি/The News বাংলা

ধারা ৩৭০ নিয়ে প্রশ্ন করে বিপাকে পড়ল সাংবাদিক। রীতিমত খুনের হুমকি পেল সেই সাংবাদিক। উত্তরপ্রদেশের শোনভদ্রে; বিরোধী দলনেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে কাশ্মীর নিয়ে প্রশ্ন করায়; তাঁর বডি গার্ডরাই দিল খুনের হুমকি। হামলা করা হল ক্যামেরাতেও। খবর অনুযায়ী; গায়েও হাত তোলা হয় ওই সাংবাদিকের। প্রিয়াঙ্কার সামনেই; আক্রান্ত হল এক সাংবাদিক। অথচ তিনি নিরব রইলেন। কোন ভাবেই কথা বলতে দেওয়া হল না প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে।

উত্তরপ্রদেশের শোনভদ্রে; জমি বিবাদের জন্য আদিবাসী সম্প্রদায়ের ১০জন মারা যায় কিছুদিন আগেই। তাদের কথা শোনার জন্য; সেই সময় প্রিয়াঙ্কা তাদের কাছে যেতে চাইলেও; তাঁকে আটকে দেয় সরকার। মাসখানেক পর; তিনি সেখানে পৌঁছে যান আদিবাসী সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়াতে।

আরও পড়ুনঃ মোদী অমিত শা-এর বিরুদ্ধে গান গাওয়ায়, গায়িকার অ্যাকাউন্ট ওড়াল সোশ্যাল মিডিয়া

কংগ্রেস নেত্রীর; এই রাজনৈতিক সফরেই ঘটে বিবাদ। বারানসী থেকে শোনভদ্রে যাওয়ার পথে; তাকে ঘিরে ধরে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। এর মধ্যেই এক সাংবাদিক তাঁকে কাশ্মীর প্রসঙ্গে প্রশ্ন করলে আপত্তি জানায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

৩৭০ ধারা নিয়ে কংগ্রেস পার্টির মতামত জানতে চায় ওই সাংবাদিক। প্রিয়াঙ্কা স্পষ্ট জানায় তিনি শুধু আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে দেখা করতে এসেছেন; তাদের অসুবিধা, অভিযোগ শুনতে এসেছেন। এর পরেই সাংবাদিক আক্রান্ত হয় প্রিয়াঙ্কার বডি গার্ডের হাতে।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা পুরসভা ভোটেই বিজেপির হাল ধরছেন বৈশাখী শোভন

সাংবাদিককে প্রিয়াঙ্কার থেকে টেনে দূরে সরিয়ে এনে খুনের হুমকি দেওয়া হয়। ক্যামেরায় সব রেকর্ড হচ্ছে বুঝতে পেরে তা বন্ধ করার জন্যও হামলা করা হয় ক্যামেরায়। প্রিয়াঙ্কার সামনেই তাঁর দলের কর্মী এই কাজ করে। কিন্তু তিনি একবার প্রতিবাদ করেননি এই সময়।

তাঁর দলের কর্মী ওই সাংবাদিককে বিজেপির টাকা খাওয়া সাংবাদিকও বলে। গায়েও হাত তোলা হয় ওই সাংবাদিকের। কিন্তু ওই সাংবাদিক স্পষ্ট জানায় সে কোন দলের হয়ে প্রশ্ন করতে আসেনি। কিন্তু তাও তার উপর চরাও হয় কংগ্রেসের দলীয় কর্মীরা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন