বেসুরো তৃণমূল, জেলা সহ সভাপতি ও ব্লক সাধারণ সম্পাদককে ব’হিষ্কার

792
বেসুরো তৃণমূল, জেলা সহ সভাপতি ও ব্লক সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কার
বেসুরো তৃণমূল, জেলা সহ সভাপতি ও ব্লক সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কার

বেসুরো তৃণমূল; জেলা সহ সভাপতি ও ব্লক সাধারণ সম্পাদককে ব’হিষ্কার। এবার শুরুতেই ধাক্কা! নব নির্মিত জেলা কমিটির প্রথম বৈঠকেই; ব’হিষ্কৃত দলের দুই নেতা। দল বিরোধী কার্যকলাপের জন্য; তাদের শোকজ করে ব’হিষ্কার করা হয়েছে। শোকজের জবাব পাওয়ার পরে; দল ওই দুই নেতা সম্পর্কে ফের সিদ্ধান্ত নেবে কি করা যায়। সোমবার আলিপুরদুয়ার শহরের রবীন্দ্র ভবনে; জেলার নব নির্মিত জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের বৈঠক বসে। জেলা কমিটির প্রথম বৈঠকেই; চরমে দলীয় কো’ন্দল। যার জেরে আলিপুরদুয়ারে বরখাস্ত করা; হল ২ তৃণমূল নেতাকে। দলের জেলা সহ সভাপতি নিরঞ্জন দাস ও ফালাকাটা ব্লকের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় দাসকে; ব’হিষ্কারের সিদ্ধান্তের কথা জানান তৃণমূল জেলা সভাপতি মৃদুল গোস্বামী। দলবিরো’ধী কাজের জন্য তাঁদের শো কজ করে; ব’হিষ্কার করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সোমবার আলিপুরদুয়ারের রবীন্দ্রভবনে ছিল; নবগঠিত জেলা কমিটির প্রথম বৈঠক। সেই বৈঠকে হাজির ছিলেন; একাধিক নেতা। কিন্তু বৈঠকের মাঝপথেই; বেরিয়ে যান নিরঞ্জনবাবু। এরপর সংবাদমাধ্যমের সামনে দলীয় নেতৃত্বের বিরুদ্ধে; ক্ষো’ভে ফেটে পড়েন তিনি। এমনকী অন্য দলে যোগদানের ইঙ্গিতও দেন। এই বৈঠকে আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদের মেন্টর; তথা প্রাক্তন জেলা সভাপতি মোহন শর্মা সহ বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতা উপস্থিত ছিলেন না।

আরও পড়ুনঃ “ভাইপো নয় ‘খোকাবাবু’, মমতার কোলে চড়ে সাংসদ, এখনও কোলেই আছেন”, অভিষেককে কটাক্ষ দিলীপের

এই বৈঠকে জেলা কমিটির সহ সভাপতি নিরঞ্জন দাসকে; অপমান করা হয় বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। তাই, বৈঠক ছেড়ে বেড়িয়ে যান নিরঞ্জন দাস। বেড়িয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন; “বৈঠকে আমাকে অপমান অপদস্ত করা হয়েছে। আমি বলেছিলাম আশিস, মোহনের মতো নেতারা, কেন বৈঠকে এলেন না; তা নিয়ে আমাদের অনুসন্ধান করা উচিত। আমার কথাকে পাত্তা দেওয়া হয়নি”।

বৈঠক শেষে জেলা তৃণমূল সভাপতি মৃদুল গোস্বামী বলেন; “দলবিরোধী কাজ ও সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খোলায়; নিরঞ্জন দাস ও সঞ্জয় দাসকে শো কজ করে; বহিষ্কার করেছে দল। পরবর্তী সিদ্ধান্ত পর্যন্ত, কোনও দলীয় কর্মসূচিতে যোগদান করতে পারবেন না তাঁরা”। ব’হিষ্কৃত দুই নেতাই; অন্যদলে যোগদানের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন