মেট্রো উদ্বোধনে রেলমন্ত্রী মমতা ডাকেন নি মুখমন্ত্রী বুদ্ধদেবকে

604
মেট্রো উদ্বোধনে রেলমন্ত্রী মমতা ডাকেন নি মুখমন্ত্রী বুদ্ধদেবকে/The News বাংলা

মেট্রো উদ্বোধনে রেলমন্ত্রী মমতা ডাকেন নি মুখমন্ত্রী বুদ্ধদেবকে । ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধনে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ডাক পান নি। আর তাই নিয়ে; উঠেছে অসৌজন্যের রাজনীতি। কিন্তু ২০০৯ সালে গড়িয়া মেট্রোর সম্প্রসারণ অনুষ্ঠানে; মমতাও ডাকেন নি তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে। আজ মমতা অসৌজন্যের রাজনীতির কথা বলছেন; কিন্তু তিনিই প্রথম কি অসৌজন্যের রাজনীতি শুরু করেন নি? উঠে গেছে প্রশ্ন। বৃহস্পতিবার ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। শুক্রবার থেকেই সাধারণ মানুষের জন্য চালু হয়ে গেল মেট্রো পরিষেবা। প্রথম পর্যায়ে; সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে সল্টলেক স্টেডিয়াম পর্যন্ত চলবে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো।

ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধন ঘিরে; শুক্রবারও অব্যাহত রাজনৈতিক তরজা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতদের তালিকায় নাম ছিল না রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মেট্রোর তরফে; উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল; তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার, স্থানীয় বিধায়ক তথা দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু ও বিধাননগর পুর নিগমের মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তীকে। তবে তৃণমূলের কেউই যাননি; মুখ্যমন্ত্রী আমন্ত্রিত না হওয়ায়। অসৌজন্যের রাজনীতির অভিযোগ তোলে; তৃণমূল।

সূত্রের খবর; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী থাকাকালীন; ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের পরিকল্পনার সূচনা। এই প্রকল্পের কাজে প্রথম থেকেই; সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে রাজ্য সরকার। এরপরও রেলের তরফে; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ না জানানোয়; আমন্ত্রিত তৃণমূল সাংসদ, বিধায়ক মন্ত্রীরা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এরপরেই; একে একে মুখ্যমন্ত্রীকে তোপ দাগেন বাবুল সুপ্রিয় থেকে দিলীপ ঘোষ। বাবুল সুপ্রিয় বলেন; তাকেও ইলেকট্রিক বাসের উদ্বোধনে ডাকেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তাহলে এখন কিভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে সৌজন্য আসা করছেন। এখানেই শেষ নয়; দিলীপ ঘোষ বলেন মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ না জানিয়ে ঠিকই করা হয়েছে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন