রাম মন্দির মামলার রিভিউ পিটিশন জমা দিল জামিয়াত উলেমা হিন্দ

223
ফের উত্তপ্ত অযোধ্যা/The News বাংলা
ফের উত্তপ্ত অযোধ্যা/The News বাংলা

ফের উত্তপ্ত অযোধ্যা। অযোধ্যার বিতর্কিত জমি মামলায়; সুপ্রিম কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন জমা দিল জামিয়াত উলেমা হিন্দ। সোমবার প্রথম; অযোধ্যা মামলা সংক্রান্ত শীর্ষ আদালতের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন জমা পড়ল সুপ্রিম কোর্টেই। জামিয়াত প্রধান মৌলানা আর্শাদ মাদানি দাবি করেন; দেশের অধিকাংশ মুসলিমই সুপ্রিমকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে মত পোষণ করে। তিনি বলেন; ‘আদালত আমাদেরকে অধিকার দিয়েছে; তাই আমরা এই বিষয়ে রিভিউ পিটিশন জমা দিলাম’।

তিনি আরও বলেন; এই মামলার মূল ভিত্তি ছিল যে মন্দির ভেঙে মসজিদটি তৈরি করা হয়েছিল। এদিকে আদালত বলে; যে এর কোনও প্রমাণ নেই যে মন্দির ভেঙে মসজিদ তৈরি হয়েছিল। তাহলে তো মুসলিম পক্ষের দাবিটাই সত্যি। কিন্তু রায়দান হল পুরো উল্টো’।

আরও পড়ুন: হায়দ্রাবাদে চিকিৎসক প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিকে ধর্ষণ ও পুড়িয়ে মারার ঘটনায় গ্রেফতার মহম্মদ পাশা

তাই তারা সেই রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে রিভিউ পিটিশন দাখিল করেছে সোমবার। কারণ শীর্ষ আদালতের ওই রায় জামিয়াত উলেমা হিন্দ-এর কাছে বোধগম্য হয়নি কোনভাবে। যদিও মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যান্য পক্ষ রিভিউ পিটিশন দাখিলে আপত্তি দেখিয়েছিল; তাও তারা এদিন একাই আদালতের দ্বারস্থ হয়।

৯ নভেম্বর প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি রঞ্জ গগৈয়ের নেতৃত্বে রায় দান পর্ব চলে। শীর্ষ আদালত জানায়, ১৯৯২ সালে বাবরি মসজিদ ভাঙা বেআইনি ছিল। পাশাপাশি শীর্ষ আদালত জানায় বিতর্কিত জমি রাম লালার জন্মস্থান হিসাবে চিহ্নিত করেই তা হিন্দুদের হাতে তুলে দেওয়ার হয়েছে; মন্দির তৈরির জন্য।

আরও পড়ুন: এনআরএসে পাশে ছিল দেশের ডাক্তাররা, তেলেঙ্গানার সময় কেন নীরব

এদিকে রায় নিয়ে বিরোধ বেধেছে উত্তরপ্রদেশের শিয়া বোর্ডের সঙ্গে সুন্নি বোর্ডের। শিয়া সেন্ট্রাল ওয়াকফ বোর্ড বলেছে, যদি সুন্নি বোর্ড জমি নিতে অস্বীকার করে তবে তারা সরকারকে বলবে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো মসজিদ তৈরি করতে তাদের হাতে ৫ একর জমি দেওয়া হোক। তারা সেই জমি হাসপাতাল তৈরি করতে ব্যবহার করবে, মসজিদ তারা তৈরি করবেন না।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন