লাভ জিহাদের ফাঁদ পেতেই বাংলা থেকে মহিলা সদস্য সংগ্রহ, ৫ তরুণীর অন্তর্ধান রহস্য

2261
ফাঁদ পেতেই বাংলা থেকে মহিলা সদস্য সংগ্রহ, ৫ তরুণীর অন্তর্ধান রহস্য
ফাঁদ পেতেই বাংলা থেকে মহিলা সদস্য সংগ্রহ, ৫ তরুণীর অন্তর্ধান রহস্য

হুগলির ধনেখালির বাসিন্দা এক তরুণী বাংলাদেশে গ্রেপ্তার হয়েছে; যে জঙ্গিদের ‘লাভ জিহাদের’ শিকার। কোন জাদুতে বাঙালি হিন্দু প্রজ্ঞা দেবনাথ; হয়ে গেল জামাত জঙ্গি আয়েশা জান্নাত মোহনা! তা আজও বুঝে উঠতে পারে নি কেউই। সম্প্রতি দক্ষিণবঙ্গের তিন জেলার আরও পাঁচ তরুণীর; ‘অন্তর্ধান’ ঘিরে রহস্য সৃষ্টি হয়েছে। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের কাছে খবর; ‘লাভ জিহাদের’ ফাঁদে পড়ে; বাড়ি ছেড়েছে তারা। তাদের মধ্যে একজন পুরুলিয়া; দুজন মুর্শিদাবাদ ও দুজন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা। ওই তরুণী ছাত্রীদের প্রত্যেকেই; মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত থাকত। হঠাৎই এই সাধারণ পরিবারের মেয়েরা; বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়। তাদের মোবাইলের কললিস্ট ও সোশ্যাল মিডিয়া ঘেঁটে গোয়েন্দারা বলেছেন; লাভ জিহাদেরই শিকার হয়েছে, বাংলার এই মেয়েরা।

এই প্রসঙ্গে আরও পড়ুনঃ মাদ্রাসা তৈরি করে আল কায়দার হয়ে নিয়োগ, ভয়ঙ্কর নাশকতার জাল বাংলায়

এর আগেও, রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স; লস্কর-ই-তৈবার লিঙ্কম্যান সন্দেহে; গ্রেফতার করে বসিরহাটের আলামিন মণ্ডলের মেয়ে; কলেজ ছাত্রী তানিয়া পারভিনকে। তাকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে; কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেটিং এজেন্সি বা NIA। মুর্শিদাবাদ থেকে ৬ আল কায়দা জঙ্গি গ্রেফতার হবার পরে; এই তদন্ত আবার সামনে এসেছে। শুধুই কি কোন জঙ্গি সংগঠন না আল কায়েদাই এই কাণ্ড ঘটিয়েছে; তা তদন্ত করে দেখছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। যদিও আরও তথ্য জোগাড় করে; এই বিষয়ে নিশ্চিত হতে চাইছেন গোয়েন্দারা। জানা গিয়েছে, বাড়ির সঙ্গে কোন; যোগাযোগ রাখে না তারা। ওই ছাত্রীরা কোথায় বা কাদের সঙ্গে রয়েছে; গোয়েন্দারা তা জানার চেষ্টা করছেন।

এই প্রসঙ্গে আরও পড়ুনঃ বাংলার প্রথম মহিলা জঙ্গি তানিয়া পারভিনকে, নিজেদের হেফাজতে নিল NIA

জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবি-র নারী বাহিনীর এক সদস্যকে; গ্রেফতার করার পরে জেরা করে অবাক বাংলাদেশের গোয়েন্দারা। আয়েশা জান্নাত মোহনা ওরফে জান্নাতুল তাসনিম নামের; বছর ২৫-এর এই তরুণী জানিয়েছে, আদতে সে ভারতীয়। পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার ধনিয়াখালি থানার; পশ্চিম কেশবপুর গ্রামে বাড়ি। জন্মসূত্রে হিন্দু ধর্মাবলম্বী; নাম ছিল প্রজ্ঞা দেবনাথ। এলাকার এক মুসলিম বন্ধুর প্রেমে পরে; ক্লাস নাইনে পড়ার সময়ে ধর্মান্তরিত হয়। অনলাইনে তার সঙ্গে আলাপ হয়; জেএমবি-র নারী শাখার প্রধান আসমানি খাতুন আসমার। তার পরে সে-ও জেএমবি-তে নাম লেখায়।

এই প্রসঙ্গে আরও পড়ুনঃ কোন জাদুতে বাঙালি হিন্দু প্রজ্ঞা দেবনাথ, হয়ে গেল জামাত জঙ্গি আয়েশা জান্নাত মোহনা

ঠিক এই ভাবেই কি লাভ জিহাদের ফাঁদে ফেলে; বাঙালি মেয়েদের দলে টানছে আল কায়দা? উঠছে প্রশ্ন। গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে; মহিলা সদস্য নিয়োগ করতে ‘লাভ জিহাদ’-এর উপরেই; বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে জঙ্গিরা। নেট ও সোশ্যাল মিডিয়ায়; ক্রমাগত ‘লাভ জিহাদের’ ফাঁদ পাতছে তারা। অনলাইনে চলছে বন্ধুত্ব। এর পর প্রেমের ফাঁদ পাতা হচ্ছে। একই সঙ্গে চলছে; নিজেদের ভাবধারার প্রচার। দেখা গিয়েছে, মূলত স্কুল ও কলেজের ছাত্রীদের; এভাবে ফাঁদে ফেলা হচ্ছে। তরুণীর কিশোরীদের মগজধোলাইও করা হচ্ছে। শেষ পর্যন্ত বাড়ি ছাড়ছে; ‘লাভ জিহাদের’ ফাঁদে পড়া ছাত্রীরা।

এই প্রসঙ্গে আরও পড়ুনঃ বাংলা ও কেরলে ভয়ঙ্কর আল কায়দা মডিউল, বড়সড় নাশকতার ছক বানচাল করল এনআইএ

আল কায়দার ক্ষেত্রে গোয়েন্দারা দেখেছেন; জঙ্গিরা নিয়োগ করছে কম্পিউটার ও ইন্টারনেটে দক্ষ এমন তরুণদের। সেই কারণেই, মুর্শিদাবাদের কম্পিউটার সায়েন্সের কলেজ ছাত্রকেও; নিয়োগ করেছে আল কায়দা। এই তরুণদের দিয়েই, বাংলায় লাভ জিহাদের ফাঁদ পাতানো হচ্ছিল কি না; গোয়েন্দারা তা জানার চেষ্টা করছেন। তার জন্য তাদের মোবাইল ও ল্যাপটপ পরীক্ষা করা হচ্ছে। এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানতে, মুর্শিদাবাদ থেকে গ্রেপ্তার হওয়া; আল কায়েদা সদস্যদের জেরা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন