সমাজসেবার পাশাপাশি নিরলস সাহিত্য সাধনা, বাংলা আকাদেমির বিশেষ পুরস্কার মমতাকে

87
সমাজসেবার পাশাপাশি নিরলস সাহিত্য সাধনা, বাংলা আকাদেমির বিশেষ পুরস্কার মমতাকে
সমাজসেবার পাশাপাশি নিরলস সাহিত্য সাধনা, বাংলা আকাদেমির বিশেষ পুরস্কার মমতাকে
Simple Custom Content Adder

সমাজসেবার পাশাপাশি নিরলস সাহিত্য সাধনা; বাংলা আকাদেমির বিশেষ পুরস্কার মমতাকে। এবার পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অ্যাকাডেমির; বিশেষ পুরষ্কার পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সাহিত্য সাধনার জন্যই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পেলেন; বাংলা আকাদেমির এই বিশেষ পুরস্কার। জানা গেছে, তাঁর ‘কবিতা বিতান’ বইয়ের জন্যই; তাঁকে এই পুরস্কার দিল বাংলা অ্যাকাডেমি।

সোমবার ২৫ বৈশাখ উপলক্ষে, কবি প্রণাম অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল; রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি দফতর। সেই অনুষ্ঠান মঞ্চে দাঁড়িয়ে শিক্ষামন্ত্রী তথা বাংলা আকাদেমির চেয়ারম্যান ব্রাত্য বসু জানিয়েছেন; সমাজের অন্যান্য ক্ষেত্রে কাজের পাশাপাশি যাঁরা নিরলস সাহিত্য সাধনা তথা সারস্বত সাধনা করে চলেছেন; তাঁদের পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলা আকাদেমি। প্রারম্ভিক বর্ষে বাংলার সমস্ত শ্রেষ্ঠ সাহিত্যিকের মতামত নিয়ে; মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এই পুরস্কার দেওয়া হবে। তাঁর কবিতা বিতান কাব্যগ্রন্থকে মাথায় রেখে; সার্বিক ভাবে তাঁর সাহিত্য কীর্তির জন্য এই পুরস্কার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে; পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অ্যাকাডেমি”।

এবারের কলকাতা বইমেলায়; একাধিক বই প্রকাশ হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতার। এমনকী সেই সব বই, হটকেকের মতো বিক্রি হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীর বই এই হারে বিক্রি হতে থাকায়; চাপে পড়ে যায় অন্যান্য প্রকাশকরা। সল্ট লেক সেন্ট্রাল পার্ককে; আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা প্রাঙ্গণ হিসাবে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

কবিগুরুর জন্মজয়ন্তীর দিনেই; পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অ্যাকাডেমির বিশেষ পুরষ্কার পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। একদিকে রাজ্য প্রশাসনের সর্বময় কর্ত্রী তিনি; অন্যদিকে ‘নিরলস সাহিত্য সাধনা’। এই জন্যই পশ্চিমবঙ্গ বাংলা অ্যাকাডেমির বিশেষ পুরষ্কার পেলেন; বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে তাঁর ‘কবিতা বিতান’ বইয়ের জন্যই; তাঁকে এই পুরষ্কার দিল বাংলা অ্যাকাডেমি। বিশেষজ্ঞ কমিটির সদস্যরা এই নাম ঠিক করেছেন; জানিয়েছেন ব্রাত্য বসু।

এদিন মঞ্চে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, উপস্থিত ছিলেন ঠিকই; কিন্তু তিনি নিজে হাতে এই পুরস্কার গ্রহণ করেননি। ব্রাত্যর ঘোষণা মাঝপথে থামিয়ে, রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন বলেন; “মুখ্যমন্ত্রীর তরফে এই পুরস্কার গ্রহণ করবেন; বাংলা অ্যাকাডেমির চেয়ারম্যান ব্রাত্য বসু”। এই কথা বলে ইন্দ্রনীল সেন; মমতার সেই পুরস্কার ব্রাত্য বাসুর হাতে তুলে দেন।

তবে এই নিয়ে বিরোধীরা কটাক্ষ করতে ছাড়েই। বিরোধীরা বলছেন, “সরকারের পুরস্কার বাংলার সেরা সাহিত্যিক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পেলেন; এতে আশ্চর্য হবার কি আছে”?

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন