দার্জিলিং জেলার পূর্বে ছোট্ট পাহাড়ী গ্রাম রিলিং

170
দার্জিলিং জেলার পূর্বে ছোট্ট পাহাড়ী গ্রাম রিলিং/The News বাংলা
দার্জিলিং জেলার পূর্বে ছোট্ট পাহাড়ী গ্রাম রিলিং/The News বাংলা

দার্জিলিং জেলার পূর্বে; ছোট্ট একটি পাহাড়ী গ্রাম রিলিং। নেপালী ভাষাভাষী মানুষের বাস এই গ্রামে। ঘুম থেকে নীচে উপত্যকা বরাবর ২২ কিমি দূরে; রিলি্ং গ্রামের অবস্থান। উচ্চতা ২৫০০ ফিট। পাহাড়ি উপত্যকার অপরুপ সৌন্দয্য এছাড়া; পাহাড়ী আঁকা বাঁকা পথে হারিয়ে যেতে চাইলে চলে আসুন রিলিং। ঘুম থেকে আসবার পথে দেখা মিলবে; ছোট বড় অনেকগুলি চা বাগানের। পথে দাঁড়িয়ে সেল্ফি  ও তুলে নিতে পারেন।

মেরিবং; রিশিহাট; চংটং প্রভৃতি চা বাগান গুলি; রিলিং যাওয়ার রাস্তাতেই মিলবে। এছাড়া হিমা ফলস্; বিশ্বম্ভর রক তো আজকের দিনে হিমালয়ান ট্রাভেলারদের কাছে বেশ জনপ্রিয় দর্শনীয় জায়গা। খুব কাছেই পুলবাজার হাট। এই অঞ্চলের সব্জি এবং ফার্মের পশু বিক্রির জায়গা। দার্জিলিং জেলার সবচেয়ে পুরনো বাজার; এই পুলবাজার। এখান থেকে চমৎকার ভিউ পাওয়া যায় দার্জিলিং শহরের। রাতে সেই সৌন্দর্য যেন আরও বেড়ে যায়।

সিঙ্গালিলা থেকে ট্রেক করেও রিলিং আসা যায়। ফলে যারা সান্দাকফু ট্রেক করতে আসেন; তারাও আসতে পারেন এখানে। পাশ দিয়ে বয়ে চলা রঙ্গীত নদী; অসাধারণ সুন্দর এক সিনারি এঁকেছে যেন। এই নদীর পাড় বরাবার অরেঞ্জ; অ্যাপেল প্রভৃতি গার্ডেন রয়েছে অনেকগুলি। এক কথায় বিজনবাড়ী শিল্পীর তুলিতে আঁকা এক চিত্রপট যেন। পাশ দিয়ে রঙ্গীতের বয়ে চলার শব্দ; আর পাখির ডাকে ঘুম ভেঙে যায় এখানে।

শহুরে আতিশয্য মিলবে না রিলিংয়ে। তবে এই হোমস্টে; দার্জিলিং এর কোলাহল থেকে দূরে যারা কয়েকটা শান্তিতে কাটাতে চান; তাদের জন্য আদর্শ হতে পারে এই নদীর ধারে তৈরী আস্তানা। সঙ্গে পেয়ে যাবেন অসাধারন আতিথিয়তা; এবং সম্পূর্ণ অর্গানিক ফুড। দুটো দিন প্রকৃতির কাছে কাটিয়ে যান রোজকার নাগরিক ক্লান্তি দূর করতে।

আশেপাশে দেখার জায়গা অনেক। দার্জিলিং, ঘুম, কার্শিয়াং সব ঘুরে আসা যায়। এছাড়া বাতাসিয়া লুপ, জাপানিজ টেম্পল, জু, হ্যাপি ভ্যালি টি এস্টেট সব একদিনে ঘোরা যায়।
নিউ জলপাইগুড়ি থেকে দূরত্ব- ৯৫ কিমিগাড়ী ভাড়া- ৩৫০০/- ছোট গাড়ী৪০০০/- বড় গাড়ী।
হোমস্টে খরচ ১২০০/- জন প্রতি প্রতিদিন সমস্ত মিল সহ।
06291538880

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন