তাপসের মত জেলে পচতে চান না, সারদার টাকা ফেরালেন শতাব্দী

775
তাপসের মত জেলে পচতে চান না, সারদার টাকা ফেরালেন শতাব্দী/The News বাংলা
তাপসের মত জেলে পচতে চান না, সারদার টাকা ফেরালেন শতাব্দী/The News বাংলা

তাপসের মত জেলে পচতে চান না; সারদার টাকা ফেরালেন শতাব্দী। তাই সারদার ৩০ লাখের বেশি টাকা ইডিকে ফেরত দিলেন বীরভূমের সাংসদ শতাব্দী রায়। এর আগেই; সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে নেওয়া টাকা ফেরত দেওয়ার কথা বলে ইডিকে চিঠি লিখেছিলেন তৃণমূল সাংসদ টলিনেত্রী। কুনাল ঘোষ; শতাব্দী রায় সহ ৬ জনকে সারদা মামলায় নোটিশ পাঠায় ইডি গোয়েন্দারা। নতুন করে সারদা মামলায় গতি আনতে; উদ্যোগী হয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলি। তারপরেই এই সিদ্ধান্ত নিলেছিলেন শতাব্দী রায়।

সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে ৪২ লক্ষ টাকা নেওয়ার কথা ছিল শতাব্দী রায়ের। কিন্তু তিনি ইডিকে জানিয়েছিলেন; টিডিএস কেটে তিনি পেয়েছিলেন ২৯ লক্ষ টাকা। বুধবার ৩০ লক্ষ ৬৪ হাজার টাকা ইডির হাতে তুলে দিলেন। ইডি দফতরে টাকা ফেরত দিতে চান বলে চিঠিতে জানিয়েছিলেন শতাব্দী।

আরও পড়ুনঃ সব লম্ফঝম্প শেষ, ভারত থেকে জীবনদায়ী ওষুধ চাইল পাকিস্তান

তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায় ইডিকে জানিয়েছেন; রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব হিসাবে সারদার টাকা নেননি। একজন শিল্পী হিসাবে সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হয়েছিলেন। সারদা কোম্পানির “প্রচারের মুখ” হবার জন্য টাকা নিয়েছিলেন অভিনেত্রী শতাব্দী।

সারদা মামলা শেষ করার জন্য বারবার ডেকে পাঠানো হয়েছে তৃণমূলের বহু নেতানেত্রীকে। এর আগে সারদার টাকা নেবার অভিযোগে; ইডি ডেকে পাঠিয়েছিল মিঠুন চক্রবর্তীকে। মিঠুন ইডির হাতে সারদার থেকে পাওয়া পুরো টাকাটাই তুলে দিয়েছিলেন।

আর তারপর মিঠুনের পথ অনুসরন করলেন শতাব্দী রায়। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে; রাতারাতি তৃণমূল সাংসদ থেকে শতাব্দী রায় নিজের পরিচয় বদলে শুধুই টলি অভিনেত্রী হয়ে উঠলেন কেন? এর আগেও অনেকবারই ইডির ডাকে হাজিরা দিয়েছেন শতাব্দী রায়।

টাকা ফেরত দিয়ে তৃণমূল সাংসদ জানিয়েছেন; শিল্পী হিসাবে তাঁর সম্মান নষ্ট হচ্ছে ইডির বারংবার ডাকে। তাই ৩০লক্ষ ৬৪হাজার টাকা ফেরত দিয়ে তিনি ইডির হাত থেকে শান্তি চান। বহুদিন অভিনয় জগত থেকে দূরে; পুরোপুরি রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব শতাব্দী রায়ের মনে শিল্পী সত্তা জেগে উঠলেই কি তিনি নিষ্কৃতি পাবেন? এটাই আগামী দিনে দেখার।

এদিকে শতাব্দী রায়ের টাকা ফেরতের খবর জানাজানি হতেই; সারদায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে; এই বিপুল পরিমান টাকা কোথায় যাবে? তারা কি ফেরত পাবে তাদের বিনিয়োগ করা অর্থ?

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন