সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার বাংলার মেয়ে সুমিকে উদ্ধারের চেষ্টা

863
সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার বাংলার মেয়ে সুমিকে উদ্ধারের চেষ্টা/The News বাংলা
সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার বাংলার মেয়ে সুমিকে উদ্ধারের চেষ্টা/The News বাংলা

চাকরির আশায় সৌদি আরবে গিয়ে; পাশবিক নির্যাতনের শিকার বাংলাদেশের মেয়ে; সুমি আক্তারের। তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন সৌদি রাষ্ট্রদূতের কর্মকর্তারা। সুমিকে উদ্ধার করে সেইফ হোমে আনার চেষ্টাও চলছে। কাঁদতে কাঁদতে নিজের মানসিক; শারীরিক ও যৌন নির্যাতনের কথা বলছিলেন তিনি। কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়; সৌদি আরবের নির্যাতিতা। বাংলাদেশের আশুলিয়ার চারাবাগ এলাকায় তাঁর গ্রামের বাড়ি। তাঁকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানান সুমি।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের তাৎক্ষণিক নির্দেশনায় সুমি আক্তারকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন তাঁর একান্ত সচিব সিরাজুল ইসলাম। এনিয়ে দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়। পর সৌদি আরবে নির্যাতনের শিকার সুমি আক্তারকে ফেরাতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানান প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব সিরাজুল ইসলাম।

আরও পড়ুনঃ দিলীপ ঘোষের অনুপ্রেরনায় লোন পেতে গরু নিয়ে ব্যাঙ্কে হাজির বাঙালি

সুমি গত ৩০ মে সুমি ‘রূপসী বাংলা ওভারসিজ এর মাধ্যমে সৌদি আরব যান। দালালরা বিদেশে পাঠানোর কথা বলে; তাকে যে বিক্রি করে দিয়েছে সেই কথা জানতেন না সুমি। সৌদি আরব যাওয়ার সপ্তাহ খানেক পর থেকে শুরু হয় তার ওপর মারধর; যৌন নির্যাতন নানান পাশবিক নির্যাতন।

সুমি আক্তারের স্বামী নুরুল ইসলাম বলেন; ‘আমার স্ত্রী সেখানে বিপদে আছে।তাকে অনেক নির্যাতন করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীসহ সবার কাছে আমি কৃতজ্ঞ থাকবো, আমার স্ত্রীকে যেন দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনা হয়’। সুমির আকুতির সেই ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর তার স্বামী নুরুল ইসলাম রাজধানীর পল্টন থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

বর্তমানে জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের তত্ত্বাবধানে রয়েছে সুমি আক্তার। বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে যত দ্রুত সম্ভব তাকে দেশে পাঠানো হবে। ভিডিও কলে সুমি বলেন; ‘ওরা আমারে মাইরা ফালাইব, আমারে দেশে ফিরাইয়া নিয়া যান। আমি আমার সন্তান ও পরিবারের কাছে ফিরতে চাই। আমাকে পরিবারের কাছে নিয়ে যান। এখানে আমার ওপর অনেক নির্যাতন করা হচ্ছে। আর কিছুদিন থাকলে হয়তো মরেই যাব। প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবার কাছে অনুরোধ আপনারা আমাকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যান’।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন