ডেঙ্গির থেকেও বড় আতঙ্ক, সাবধান থাকুন এই লাল পোকা থেকে

1127
ডেঙ্গির থেকেও বড় আতঙ্ক, সাবধান থাকুন এই লাল পোকা থেকে/The News বাংলা
ডেঙ্গির থেকেও বড় আতঙ্ক, সাবধান থাকুন এই লাল পোকা থেকে/The News বাংলা

ডেঙ্গি নিয়ে নাজেহাল কলকাতা সহ সারা রাজ্য। তার মধ্যে ডেঙ্গির থেকেও বড় আতঙ্ক হাজির; সাবধান থাকুন এই লাল পোকা থেকে। গোটা রাজ্য যখন ডেঙ্গি নিয়ে নাজেহাল তখন আরও বড় আতঙ্ক নিয়ে হাজির স্ক্রাব টাইফাস। এটি একটি লাল ছোট পোকা। দেখতে খানিকটা উকুনের মত এই পোকা সাংঘাতিক বিপদজনক। এই পোকার কামড় এতই বিষাক্ত যে; ধিরে ধিরে এটি প্রাণঘাতী আকার ধারন করে। শুরুতে ডেঙ্গির মত মনে হলেও; পড়ে বোঝা যায় এটি ডেঙ্গি নয়।

ইতিমধ্যেই স্ক্রাব টাইফাসের প্রকোপে শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে মুর্শিদাবাদের যুবকের। এছাড়াও রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে এই রোগে আক্রান্ত রোগীর খবর পাওয়া যাচ্ছে। এই পোকার বিষ শরীরে ঢুকলে; বাঁচার আশা প্রায় নেই বলেই মনে করছে চিকিৎসকরা।

আরও পড়ুনঃ ধন্য ভারতের গণতন্ত্র, জনতার ভোটে জিতে বিধায়করা লাক্সারি হোটেলের আরামে

প্রথম দিকে; ডেঙ্গির মতই হালকা থেকে তীব্র জ্বর থাকে। এই কারনে; এই রোগের সঠিক চিকিৎসা শুরু হতে অনেক সময় চলে যায়। কারন শুরুতে রোগ নির্ণয় করাই হয়ে ওঠে না। হেলথ বিশেষজ্ঞদের মতে; “স্ক্রাব টাইফাস নিয়ে যে চিরন্তন ধারণা ছিল; সেই ধারণা প্রতি মুহূর্তেই ভেঙে যাচ্ছে। কারণ; শহর এবং শহরতলিতেও বহু মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন এই রোগে। ফলে এই রোগ নিয়ে সচেতন হতে হবে সাধারন মানুষকে”।

স্ক্রাব টাইফাসের কামড়ে; জ্বরের প্রকোপে একাধিক অঙ্গ বিকল হয়ে যাওয়ার কারণেই মৃত্যু হচ্ছে। চিকিৎসকদের মতে; স্ক্রাব টাইফাসের লক্ষণ অনেকটাই ডেঙ্গির মতো। স্ক্রাব টাইফাস লাল রঙের একটি বিশেষ পোকার কামড়েই হয়। বেশিরভাগ সময়; একাধিক অঙ্গ বিকল হতে শুরু করে। এখন শহরের মানুষ রেহাই পাচ্ছে না; স্ক্রাব টাইফাসের হাত থেকে। গ্রামের পাশাপাশি তাই শহরেরও স্ক্রাব টাইফাসের জন্য প্রচার চালানো হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ মহারাষ্ট্রে বিজেপির সার্জিক্যাল স্ট্রাইক, কুপোকাত শিব সেনা ও কংগ্রেস

গাছপালা ঝোপঝাড়; আবর্জনাবহুল এলাকা; এমনকি ইঁদুর ও কুকুরের শরীরও এই পোকাকে বহন করে। প্রবল জ্বর; গায়ে র‌্যাশ ও ছেঁকার মতো দাগ এই রোগের লক্ষণ। ঠিক সময়ে চিকিৎসা শুরু হলে ভয়ের বিশেষ কারণ না থাকলেও; মাল্টি অরগ্যান ফেলিওর এর ভয় থেকেই যাচ্ছে এই পোকার কামড়ে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন