চলে গেলেন দিল্লীর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, শেষ হল লড়াইয়ের এক যুগের

251
চলে গেলেন দিল্লীর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, শেষ হল লড়াইয়ের এক যুগের/The News বাংলা
চলে গেলেন দিল্লীর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, শেষ হল লড়াইয়ের এক যুগের/The News বাংলা

প্রয়াত হলেন দিল্লীর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেস নেত্রী শীলা দীক্ষিত। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি; রোগে ভুগছিলেন। টানা ১৫ বছর তিনি দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে কংগ্রেস শিবিরে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। একজন দক্ষ রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারালেন; জানিয়েছেন দিল্লীর বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তাঁর মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন ইউপিএ চেয়ারপার্সন সনিয়া গান্ধী, কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। দিল্লীর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী; শীলা দীক্ষিতের মৃত্যুতে; শেষ হল লড়াইয়ের এক যুগের।

আরও পড়ুনঃ বাংলার নতুন রাজ্যপাল কে হলেন, জানালেন রাষ্ট্রপতি

পরলোকগমন করলেন দিল্লির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী; তথা কংগ্রেস নেত্রী শীলা দীক্ষিত। শনিবার দুপুর সাড়ে তিনটা নাগাদ; রাজধানী দিল্লির একটি হাসপাতালে; শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১। বেশ কিছুদিন ধরেই বয়সজনিত রোগে ভুগছিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ যোগীর রাজ্যে বন্দী প্রিয়াঙ্কা, ঠাকুমার মতোই আন্দোলনে নাতনি

গত লোকসভা নির্বাচনেও; উত্তর-পূর্ব দিল্লি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন শীলা দীক্ষিত। তবে পরাজিত হন; বর্ষীয়ান এই কংগ্রেস নেত্রী। পরপর তিনবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছিলেন শীলা দীক্ষিত। টানা ১৫ বছর দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ বাংলায় বন্ধের মুখে, ইংরেজ আমলে তৈরি এশিয়ার বৃহত্তম ছাপাখানা

বর্তমানে দিল্লি কংগ্রেসের সভাপতি ছিলেন; বর্ষীয়ান এই নেত্রী। দিল্লির সবচেয়ে বেশি সময়ের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন তিনি। ১৯৯৮, ২০০৩ এবং ২০০৮ সাল পরপর তিন বার; দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হন শীলা দীক্ষিত।

শীলা দীক্ষিতের প্রয়াণে শোক কংগ্রেস পরিবারে। শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টুইটে শোকবার্তা জানিয়েছেন দেশের রাজনৈতিক মহল। শোকবার্তা অন্য বিশিষ্টজনদেরও।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন