শ্রীলঙ্কার পথে হেঁটে ভারতে বোরখা নিষিদ্ধ করার দাবি জানাল শিবসেনা

408
শ্রীলঙ্কার পথে হেঁটে ভারতে বোরখা ব্যানের দাবি জানাল শিবসেনা/The News বাংলা
শ্রীলঙ্কার পথে হেঁটে ভারতে বোরখা ব্যানের দাবি জানাল শিবসেনা/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

শ্রীলঙ্কার পথ অনুসরণ করে এবার কেন্দ্রের কাছে দেশজুড়ে বোরখা ব্যান করার দাবি জানালেন উদ্ধব ঠাকরে। মুখাবরণ ঢাকা যায়, শ্রীলঙ্কায় এই ধরনের সমস্ত পোষাক নিষিদ্ধ করার পরেই ভারতেও এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার দাবি জানালেন তিনি। বুধবার শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে তাদের জোটসঙ্গী বিজেপির উদ্দেশ্যে বার্তা দেন এই ইস্যুতে শ্রীলঙ্কার পদাঙ্ক অনুসরণের জন্য।

বুধবার প্রকাশিত একটি দলীয় বিজ্ঞপ্তিতে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে জানানো হয়, রাবনের দেশ শ্রীলঙ্কা যদি সন্ত্রাসবাদীকের মুখের আড়াল রুখতে বোরখা ব্যান করতে পারে, তাহলে রামের দেশ ভারত কেনো সেই পথ অনুসরণ করতে পারবে না? এরপরেই বোরখা নিষিদ্ধ করার ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নিতে অনুরোধ করেন প্রধানমন্ত্রীকে।

আরও পড়ুনঃ মহারাষ্ট্রের গড়চিরোলিতে ভয়ঙ্কর মাওবাদী হামলা, ১৫ জন কম্যান্ডোর মৃত্যুর আশঙ্কা

গত ২৮শে এপ্রিল শ্রীলঙ্কায় নিষিদ্ধ করা হয় হিজাব, নিকাব এবং বোরখা। মুখমন্ডলের আচ্ছাদন ঢাকা থাকে, এই ধরনের সমস্ত প্রকার পোষাকের ওপর নিষেধাজ্ঞা করা হয়েছে, সুরক্ষার স্বার্থে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে এই ব্যবস্থার কথাই জানানো হয়। উল্লেখ্য, শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসবাদী হানার এক সপ্তাহের মাথায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

কিছুদিন আগেই সন্ত্রাসবাদী হামলায় মৃত্যু হয় ৩৬৬ জনের। ইসলামিক স্টেট জঙ্গি সংগঠন হামলার সাথে জড়িতদের ছবি প্রকাশ করে এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। এরপরেই ইসলামী জঙ্গিবাদ থেকে সতর্ক হতে বোরখা নিষিদ্ধ করার পথে হাঁটে শ্রীলঙ্কা। অনেক সময়েই ঢাকা বোরখার আড়ালে জঙ্গিরা নিজেদের লুকিয়ে রাখে।

আরও পড়ুনঃ মন্দারমনি ও দিঘাতে নিষিদ্ধ হল পর্যটকদের সমুদ্র সৈকতে যাওয়া

উল্লেখ্য, শ্রীলঙ্কার জঙ্গি হামলায় কয়েকজন মহিলাকেও চিহ্নিত করা হয়েছে। তারা বোরখার আড়ালে ঢেকে বোমা রেখেছিল বলেই পরে জানা যায়। তাই বোরখার আড়ালে যাতে জঙ্গিরা পালিয়ে যেতে না পারে, তাই এই পোষাক নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয় শ্রীলঙ্কা।

সন্ত্রাসবাদ রুখতে এর আগেও এশিয়া, আফ্রিকা ও ইউরোপের বহু দেশে সন্ত্রাসবাদ রুখতে বোরখা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর মধ্যে চাদ, ক্যামেরুন, গ্যাবন, মরক্কো, অস্ট্রিয়া, বুলগেরিয়া, ফ্রান্স, ডেনমার্ক, বেলজিয়াম ও চীনের জিনজিয়াং প্রদেশ উল্লেখযোগ্য। শ্রীলঙ্কার পরে এখন সেই দাবি উঠল ভারতেও।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন