কোভড রোগীর দেহ থেকে অন্যের দেহে সংক্রমণ রুখতে, বাজারে এল সাইকোক্যান

2683
কোভড রোগীর দেহ থেকে অন্যের দেহে সংক্রমণ রুখতে, বাজারে এল সাইকোক্যান

কোভড রোগীর দেহ থেকে অন্যের দেহে সংক্রমণ রুখতে; বাজারে এল সাইকোক্যান। করোনা গোটা বিশ্ববাসীর জীবনে কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ কাঁটা কখন গলা দিয়ে নামবে কেউ জানে না। ভ্যাকসিনের দিকে চাতক পাখির মতো তাকিয়ে; গোটা দেশ। কিন্তু স্বস্তির খবর, এখনই মিলছে না। ভাইরাসের কবল থেকে বাঁচতে; কার্যত দিশেহারা গোটা বিশ্ব। আর এরই মাঝে এক অত্যাধুনিক যন্ত্র বানাল এক সংস্থা। সাইকোক্যান; দেড় কিলোগ্রাম ওজনের একটা ডিভাইস। ঘরের মধ্যে স্রেফ একটা প্লাগ পয়েন্ট দিয়ে; কোথাও একটা আটকে দিলেই হবে। বিদ্যুতের খরচও সিএফএল বাল্ব জ্বলার মতো অর্থাৎ খুবই কম। এক কোভিভ রোগীর থেকে; আরেকজনের দেশে সংক্রমণ ছড়ানো আটকাতে এই যন্ত্র আবিস্কার করা হয়েছে। এ এক এমন যন্ত্র যা, ১০০০ ঘনমিটার এলাকায় এক কোভিড রোগীর থেকে; অন্য কারুর দেহে সংক্রমণ ছড়াতে দেবে না।

অত্যাধুনিক যন্ত্র আবিস্কার করে ওই নির্মাণকারী সংস্থার দাবী; এই যন্ত্র থেকে যে ইলেকট্রন ও ফটোন কণা নিসৃত হবে তা রোগীর হাঁচি; কাশি বা কথা বলার মাধ্যমে নির্গত লালারসে; থাকা করোনা সংক্রমণককে ধ্বংস করবে। তাদের আরও দাবি; এই যন্ত্র কাছাকাছি থাকলে মাস্ক বা পিপিই না পরলেও; করোনা সংক্রমণ অনায়াসে আটকানো যাবে।

আরও পড়ুনঃ ২৬ বছর লড়াইয়ে বিশ্বাসঘাতক তকমা ঘোচালেন ইসরোর বিজ্ঞানী, কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিল কেরল সরকার

এই মারণ ভাইরাস কোনওভাবেই; আপনার ওপর হামলা করতে পারবে না। যাঁরা একেবারে সামনে থেকে করোনার সঙ্গে লড়ছেন; যেমন ডাক্তার, নার্স, পুলিস তাঁদের কাছে কলকাতায় তৈরি এই ডিভাইস, ঈশ্বরের বর্দানের মতোই; বলেই মনে করছেন একাংশ। কুড়ি হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে এই যন্ত্র। স্কুল, কলেজ, অফিস, জিমের মতো কোনও বদ্ধ এলাকায় ব্যবহারের জন্য যথেষ্ট উপযুক্ত এই ডিভাইজ।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন