পার্ক সার্কাসে অব্যাহত মহিলাদের আন্দোলন, পাশে দাঁড়ালেন সমাজকর্মী মেধা পাটেকর

3280
পার্ক সার্কাসে অব্যাহত মহিলাদের আন্দোলন, পাশে দাঁড়ালেন সমাজকর্মী মেধা পাটেকর/The News বাংলা
পার্ক সার্কাসে অব্যাহত মহিলাদের আন্দোলন, পাশে দাঁড়ালেন সমাজকর্মী মেধা পাটেকর/The News বাংলা

পার্ক সার্কাসে অব্যাহত মহিলাদের আন্দোলন, পাশে দাঁড়ালেন সমাজকর্মী মেধা পাটেকর। ষোল দিন হয়ে গেল তারা আন্দোলনে বসেছেন। দেশে থাকার জন্য কোনওভাবেই দ্বিতীয়বার নাগরিকত্ব প্রমাণে বিশ্বাসী নন তারা। তার দিল্লির শাহিনবাগের ধাঁচেই চলছে কলকাতার পার্ক সার্কাস ময়দানের সংখ্যালঘু মহিলাদের আন্দোলন। একের পর এক সমাজের বিশিষ্ট জনেরা এসে সিএএর প্রতিবাদে তাদের এই আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ১০ টা নাগাদ পার্ক সার্কাস ময়দানে মহিলাদের সঙ্গে দেখা করতে এলেন সমাজকর্মী মেধা পাটেকর।

সেখানে সংখ্যালঘু মহিলাদের সঙ্গে দেখা করে তাদের সঙ্গে ১৫ মিনিট কথা বলেন তিনি। বিগত ষোল দিন ধরে চলা এই আন্দোলন সম্পর্কে মেধা বলেন, একদিকে দিল্লির শাহিনবাগ অন্যদিকে পার্ক সার্কাস মহিলারাই পারে যে কোনও আন্দোলনকে চালিয়ে নিয়ে যেতে। এর আগে এই আন্দোলনস্থলে হাজির হন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম।

আরও পড়ুন
ঘটা করে মঞ্চ সাজিয়ে তৃণমূলে ফিরছেন ঘোষণা করুন, তবেই সিদ্ধান্ত জানাব

শাহিনবাগের পর সিএএ-এনআরসি বিরোধীতায় ফুঁসছে; পার্কসার্কাস। ৭ জানুয়ারি থেকে পার্কসার্কাস ময়দানে চলা সংখ্যালঘু মহিলাদের; সিএএ-এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে এবার এসে হাজির হলেন মেধা পাটেকর। মঙ্গলবার রাতে পার্কসার্কাস ময়দানে যান তিনি। কথা বলেন; আন্দোলনকারীদের সঙ্গে। শাহিনবাগে অভিনব কায়দায় আগেই সিএএর বিরোধীতায় আন্দোলনে পথে নেমেছেন; সংখ্যালঘু মহিলারা।

আবার তাদের অনুসরন করে পথে নামল পার্ক সার্কাস।পার্ক সার্কাসের সংখ্যালঘু মহিলারা আর পর্দার আড়ালে থাকতে রাজি নয়; তারাও দেশের নাগরিক নিজেদের অস্তিত্বের জানান; দিতেই এবার কেউ বা শিশু কোলে কেউ বা সদ্য হাঁটতে শেখা শিশুকে নিয়েই; সংশোধীত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে পথে নেমেছেন। হাতে পতাকা; মুখে শ্লোগান ইস্যু একটাই রাজ্যে এনআরসি, সিএএ কার্যকর হতে দেব না।

শাহিনবাগের সংখ্যালঘু মহিলাদের আন্দোলন এক মাস হতে চলল। কয়েকশো সংখ্যা সংখ্যালঘু মহিলাকে সেই আন্দোলনে; অংশ নিতে দেখা গিয়েছে। সেই একই ছবি ধরা পড়ল কলকাতার পার্ক সার্কাসে। প্রতিবাদে সামিল মহিলাদের একটাই বক্তব্য; তাদের পূর্বপুরুষরা স্বাধীনতা আন্দোলন করে এসেছে। স্বাধীনতার পর থেকে তারা; ভারতে বসবাস করছে; তাহলে নতুন করে তাদের কেন নাগরিকত্বের প্রমাণ দিতে হবে।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন