বামেদের চেয়েও ভয়ঙ্কর তৃণমূল, একসময়ের মা মমতাকে আর কি বললেন শোভন

323
বামেদের চেয়েও ভয়ঙ্কর তৃণমূল, ক্ষোভে ফেটে পরলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়/The News বাংলা
বামেদের চেয়েও ভয়ঙ্কর তৃণমূল, ক্ষোভে ফেটে পরলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়/The News বাংলা

বিজেপির অনুষ্ঠানে তৃণমূলকে বামেদের থেকেও ভয়ঙ্কর দল বললেন; সদ্য তৃণমূল থেকে বিজেপি নেতা হওয়া শোভন চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবার বিজেপির তরফ থেকে; একটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে; প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মমতা ও তৃণমূলকে তীব্র আক্রমণ করেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তিনি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে ভাগ করে নেন; তৃণমূল কংগ্রেসে তার ভয়ঙ্কর দিনগুলোর কথা।

কথায় কথায় উঠে আসে; বাম আমলের পশ্চিমবঙ্গের কথাও। তখনই প্রাক্তন মেয়র জানান; মার্ক্সবাদে বিশ্বাসী সিপিআইএম থেকেও; অনেক বেশি ভয়ঙ্কর ও ক্ষতিকারক তৃণমূল কংগ্রেস। মঙ্গলবার বিজেপির তরফ থেকে; একটি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানেই একথা জানান শোভন। সংবর্ধনার পাশাপাশি আয়োজন করা হয় সাংবাদিক বৈঠকের।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপেও মোদীর আধার লিংক, কি জানালো সুপ্রিম কোর্ট

সেখানেই জানান; তৃণমূলের উত্থান বিজেপির হাত ধরেই। অটলবিহারী বাজপেয়ির জন্যই মমতা আজ মুখ্যমন্ত্রী; দাবী করেন শোভন। প্রাথমিকভাবে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতি নিয়ে; নানারকম জল্পনার সৃষ্টি হলেও; অবশেষে তাকেও দেখা যায় বিজেপির সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে। তাঁর কথাতেও বার বার উঠে আসে; তৃণমূলের দলীয় অসন্তোষের কথা।

প্রাক্তন মেয়র তাঁর ‘বান্ধবী’ প্রসঙ্গে জানান; বিপদের সময় যদি সব সময় কাউকে পাশে পেয়ে থাকেন; তাহলে তিনি বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। বান্ধবী বৈশাখী জানান; সব কটাক্ষ উপেক্ষা করে চিরকাল পাশে থাকবেন তাঁর বন্ধুর। বৈশাখীর সূত্রেই দীলিপ ঘোষের সঙ্গে আলাপ; বলে জানান শোভন।

আরও পড়ুনঃ ব্যাঙ্ক জালিয়াতি মামলায়, ইডির জালে মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো

“দীলিপদার কথায় আন্তরিকতা ছিল; তিনিই বললেন বিজেপিতে যোগ দিতে” বললেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানান; তৃণমূলে থাকা প্রায় অসম্ভব হয়ে উঠছিল। অস্বস্তিকর পরিবেশ তৈরি হয়েছিল দলে। তাই দল ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন। তিনি আরও বলেন; “বাংলায় বিভিন্ন এলাকায় বিরোধীদের উপরে; এত সংগঠিত সন্ত্রাস বাম আমলেও হয়নি। আজ বাংলার মানুষ বদলের চিন্তা করছেন। সেটা প্রমাণ করে দিয়েছে লোকসভা ভোটে”।

দিল্লীতে গিয়ে ১৪ই আগস্ট আনুষ্ঠানিকভাবে; বিজেপিতে যোগ দেন দুই বন্ধু শোভন-বৈশাখী। তারপর রাজ্যে ফিরতেই হৈ চৈ শুরু হয় তাদের নিয়ে। এরপর থেকেই তৃণমূল ও মমতা সম্পর্কে; বিস্ফোরক শোভন-বৈশাখী দুজনেই। পদ্মে যোগ দেওয়ার আগে; শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈশাখীর মনমালিন্য নিয়ে সম্পর্ক আরও তিক্ত হয়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন