নিজেদের মধ্যে খেওখেয়ি রাজ্যে ফিরে করুন, ধমক লাগালেন স্পিকার

1236
নিজেদের মধ্যে খেওখেয়ি রাজ্যে ফিরে করুন, দমক লাগালেন স্পিকার/The News বাংলা
নিজেদের মধ্যে খেওখেয়ি রাজ্যে ফিরে করুন, দমক লাগালেন স্পিকার/The News বাংলা

শীতকালীন অধিবেশন শুরু হতেই; ফের উত্তপ্ত দিল্লীর সংসদ ভবন। প্রথমদিনেই চিটফান্ড বিল নিয়ে; আলোচনার সময় লকেটের বক্তব্যকে ঘিরে চরম বাক যুদ্ধে জড়ালেন তৃণমূল এবং বিজেপি সাংসদরা। লোকসভায়ে প্রথম দিন লকেট চট্টোপাধ্যায়ের বক্তৃতার পর; সুর চড়ালেন বিজেপি সাংসদরা। কিছুক্ষণের মধ্যেই লোকসভা পরিনত হয় অগ্নিগর্ভে। পরিস্থিতি অন্যদিকে ঘুরলে তা সামাল দিতেই বাধ্য হয়ে দমক লাগালেন স্পিকার। স্পিকার ওম বিড়লা বলেন; ‘সংসদকে বাংলার বিধানসভা করে তুলবেন না’।

সোমবার স্পিকার ওম বিড়লার অনুপস্থিতিতে; দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার। তখনই চিটফান্ড ইস্যুতে বক্তব্য রাখেন; বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। বক্তব্যের শুরু থেকেই পশ্চিমবঙ্গে চিটফান্ডের বাড়বাড়ন্তের জন্য তৃণমূলকে দোষী করেন লকেট। বাংলার সরকারকে ‘চিটফান্ডের সরকার’ বলেও কটাক্ষ করেন তিনি। পরে অসংসদীয় শব্দ বলে; স্পিকার লকেটের বক্তব্যের ওই অংশ লোকসভার কার্যবিবরণী থেকে বাদ দেন।

আরও পড়ুন জেএনইউয়ের অন্ধ ছাত্রও বাদ পড়ল না পুলিশি অত্যাচার থেকে

লকেট বলেন, যতদিন চিটফান্ড থেকে তৃণমূল নেতারা টাকা পেয়েছেন; ততদনি পর্যন্ত চিটফান্ড চলতে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর অভিযোগ; চিটফান্ড কাণ্ডে অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের বাড়িতে সিবিআই গেলে; আটচল্লিশ ঘণ্টা ধর্নায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী। অথচ চিটফান্ডে লক্ষ লক্ষ প্রতারিতদের জন্য কখনও ধর্নায় বসতে দেখা যায় না তাঁকে। সঙ্গে সুর মিলিয়েছিলেন বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

অন্যদিকে স্পিকারের আসনে বসে থাকা কাকলি ঘোষ দস্তিদারের জন্য ব্যপারটা অস্বস্তির হলেও; অসংসদীয় কথা ছাড়া খুব বেশি বাঁধা দেননি তাঁকে। অন্যদিকে তৃণমূলের সংসদরাও চুপ ছিলেন না। তুমুল শোরগোল বাঁধে লোকসভায়। ইতিমধ্যে অধ্যক্ষের চেয়ারে ফিরে আসেন স্পিকার ওম বিড়লা।

পুরুষদের জন্য জন্ম নিরোধক ওষুধ আসছে ভারতের বাজারে

তুমুল শোরগোল করার জন্য দু’ পক্ষকেই ভর্ৎসনা করেন তিনি। স্পিকারকে বলতে শোনা যায়; ‘আপনাদের দু’ পক্ষকেই শান্ত থাকতে বলছি। একজন বক্তব্য রাখার সময় অন্যরা টিপ্পনি কাটবেন না। সংসদটাকে বাংলার বিধানসভা বানিয়ে ফেলবেন না।’

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন