ফের ঝামেলার আশঙ্কা, রেল ও স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য স্পেশাল লোকাল ট্রেন

1179
ফের ঝামেলার আশঙ্কা, রেল ও স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য স্পেশাল লোকাল ট্রেন
ফের ঝামেলার আশঙ্কা, রেল ও স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য স্পেশাল লোকাল ট্রেন

ফের ঝামেলার আশঙ্কা, রেল ও স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য; স্পেশাল লোকাল ট্রেন। বন্ধ লোকাল ট্রেন; শুধু চলছে স্টাফ স্পেশাল ট্রেন। সেই আগের মত। ফের ঝামেলার আশঙ্কা করছেন; রেল কর্তারা। কারণ সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন পেশার মানুষের; একমাত্র ভরসা লোকাল ট্রেন। কিন্তু রাজ্য সরকারের নির্দেশে; বন্ধ লোকাল ট্রেন। তাই রেলের নির্দেশে, রেলকর্মী ও স্বাস্থ্যকর্মী ছাড়া; আর কেউ চড়তে পারবেন না স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে; সাফ জানিয়ে দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। স্বাস্থ্যকর্মীদের কাছে উপযুক্ত পরিচয়পত্র থাকলে; তবেই তাঁরা উঠতে পারবেন ট্রেনে। অন্য কেউ যাতে রেল পরিষেবা ব্যবহার করতে না পারে; তার জন্য কঠোর পদক্ষেপ করছে রেল।

আপাতত ১৪ দিনের জন্য; বন্ধ লোকাল ট্রেন। গত বুধবার রাজ্য সরকার বিবৃতি দিয়ে; এ কথা জানিয়েছে। তারপরেই রেলের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়; পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত; রাজ্যের সমস্ত লোকাল ট্রেন পরিষেবা বন্ধ থাকবে। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পরই; নবান্নে মমতা জানান, করোনা আটকাতে লোকাল ট্রেল পরিসেবা বন্ধ রাখা হবে। নবান্নের তরফে এক নির্দেশিকা জারি করা হয়; যে আপাতত ১৪ দিন বন্ধ থাকবে লোকাল ট্রেন পরিষেবা।

আরও পড়ুন; ফের শুভেন্দুকে মেদিনীপুর চ্যালেঞ্জ মমতার, এবার রাজ্য মন্ত্রীসভায়

এরপরেই লোকাল ট্রেন পরিসেবা; বন্ধ রাখে রেল। চলছে শুধুই স্টাফ স্পেশাল লোকাল ট্রেন। গতবারে ঠিক একই ঘটনা ঘটেছিল। ঝামেলাও হত। পুলিশ কর্মী, রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারি কর্মী হাওড়া শিয়ালদা-গামী ট্রেনে; উঠে পরতেন। ঝামেলাও হত। এবার সেই ঝামেলা আটকাতে; কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছে রেল। রেল ও স্বাস্থ্য কর্মী ছাড়া, অন্য কেউ এই স্পেশাল ট্রেনে উঠলে; আইনত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন; ইংরেজি নিয়ে বামেদের ভুল শোধরাতে, বড় সিদ্ধান্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতার

হাওড়ার ডিআরএম সুমিত নারুলা বলেন; “রেলকর্মী ও স্বাস্থ্যকর্মী ছাড়া; আর কেউ এই স্টাফ স্পেশ্যালে উঠতে পারবেন না। স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর নজর রাখতে; ট্রেনগুলিতে কামরা আলাদা করে নির্ধারণ করে দেওয়া হচ্ছে। শুধুমাত্র স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্যই; তা বরাদ্দ থাকছে। হাওড়ামুখী ট্রেনগুলির একেবারে সামনের দুটি কামরা; সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্যকর্মীরা ব্যবহার করবেন। তাঁদের কাছে সঠিক পরিচয়পত্র; থাকতে হবে। টিকিট পরীক্ষক তাঁদের পরিচয়পত্র; খতিয়ে দেখবেন।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন