প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে, মেয়ে জামাইয়ের পিছনে গুন্ডা লাগালেন রাজ্যের বিধায়ক

280
দলিত জামাই, খুনের হুমকি দিলেন বিধায়ক নিজের মেয়েকে/The News বাংলা
দলিত জামাই, খুনের হুমকি দিলেন বিধায়ক নিজের মেয়েকে/The News বাংলা

নিজের পছন্দের ছেলেকে বিয়ে করে; বিপদে পরলেন বিধায়ক কন্যা সাক্ষী মিশ্র। প্রেম করে বিয়ে করেছেন; এক দলিত ছেলেকে। কিন্তু বাঁধ সাধছে পরিবার। ব্রাহ্মণ মেয়ে হয়ে দলিত ছেলেকে বিয়ে করায়; নিজের বাবাই ভাঙতে চাইছে মেয়ের সংসার। দলিত ছেলেকে বিয়ে করায়; খুনের হুমকি দিয়ে, মেয়ে জামাইয়ের পিছনে গুন্ডা লাগালেন বিধায়ক।

উত্তরপ্রদেশের বরেলির বিজেপি বিধায়ক রাজেশ মিশ্রর বিরুদ্ধে; মেয়ে জামাইয়ের পিছনে গুন্ডা লাগানোর অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ করেছেন বিধায়কের মেয়েই। সাক্ষী সোশ্যাল মিডিয়ায়; একটি ভিডিও শেয়ার করে এই কথা বলেন। তিনি আরও বলেন; তাঁরা লুকিয়ে আছেন। নিজেদের বিপদের আশঙ্কা করে; পুলিশের কাছে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তার আবেদনও করলেন ওই বিধায়ক-কন্যা।

আরও পড়ুনঃ মমতার সঙ্গী হয়ে টাটাকে তাড়িয়ে, এখন চরম ভুলের মাসুল দিচ্ছে সিঙ্গুরবাসী

প্রথমে মেয়ের বক্তব্যের ভিত্তিতে; মতামত দিতে চাননি বিধায়ক। পরে জানিয়েছেন; “জাতপাত নিয়ে তাঁর আপত্তি নেই। কিন্তু ছেলেটি তাঁর মেয়ের থেকে বয়সে অনেক বড়। ছেলেটির আর্থিক অবস্থাও ভাল না। সেজন্যই বিয়েতে আপত্তি তাঁর”।

আরও পড়ুনঃ রাজ্য কোষাগার শূন্য, নেই ডি এ, নতুন পে স্কেল, ৩৪ হাজার নতুন চাকরির ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতার

নিজের ভাই ও বাবার নাম করে সাক্ষী বলেন; “মাননীয় বিধায়ক পাপ্পু ভারতৌল জি এবং ভিকি ভারতৌল জি; দয়া করে নিজেরা শান্তিতে বাঁচুন এবং আমাদের শান্তিতে বাঁচতে দিন। আমি শুধু ফ্যাশন করে সিঁদুর পরিনি, আমি সত্যিই বিয়ে করেছি”।

আরও পড়ুনঃ ওসামা বিন লাদেনের মত পাকিস্তানে ঢুকে কি দাউদ ইব্রাহিমকে মারতে পারবে ভারত

সাক্ষীর ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে বিজেপির ওই বিধায়ক বলেন; “সাক্ষী প্রাপ্তবয়স্ক। সে নিজের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। আমি বা আমার পরিবারের কেউ তাকে ভয় দেখাইনি। আমি নিজের নির্বাচন কেন্দ্রে উন্নয়নের কাজ নিয়ে ব্যস্ত”।

২৩ বছরের সাক্ষী বুধবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ভিডিও পোস্ট করে জানান; তিনি অজিতেশ কুমারকে বিয়ে করেছেন। কিন্তু বাবার জন্য তাঁর জীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে। তিনি পুলিশের কাছে আবেদন জানান; তাঁদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হোক। ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল আর কে পাণ্ডে বলেন; তিনি ওই ভিডিওটি দেখে পুলিশকে নিরাপত্তা দিতেও বলেছিলেন। কিন্তু ওই দম্পতি এখন কোথায় রয়েছে; তা পুলিশ জানে না।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন