হঠাৎ কি হল ‘চাণক্য’ মুকুল রায়ের, অসংলগ্ন কথা, ভর্তি হাসপাতালে

4879
হঠাৎ কি হল মুকুল রায়ের, অসংলগ্ন কথা, ভর্তি হাসপাতালে
হঠাৎ কি হল মুকুল রায়ের, অসংলগ্ন কথা, ভর্তি হাসপাতালে

হঠাৎ কি হল ‘চাণক্য’ মুকুল রায়ের; অসংলগ্ন কথা, ভর্তি হাসপাতালে। এসএসকেএমের উডবার্ন ওয়ার্ডে ভর্তি মুকুল রায়; তাঁর অসুস্থতা সম্পর্কে জানতে, চিকিৎসকদের একটি বিশেষ দল গঠন করা হয়েছে। হঠাৎই এসএসকেএমে ভর্তি হলেন মুকুল রায়; উডবার্ন ওয়ার্ডের ১০৩ নম্বর রুমে ভর্তি রয়েছেন; তৃণমূল নেতা ও কৃষ্ণনগর উত্তরের বিজেপির টিকিটে জেতা বিধায়ক। এসএসকেএম হাসপাতাল সূত্রে খবর, মুকুল রায়ের অসুস্থতা সম্পর্কে জানতে; বিভিন্ন বিভাগের চিকিৎসকদের নিয়ে; একটি মাল্টি ডিসিপ্লিনারি টিম গঠন করা হয়েছে। মুকুলের শরীরে সোডিয়াম-পটাশিয়ামের তারতম্য ঘটেছে; নাকি স্নায়ুঘটিত কোনও সমস্যা রয়েছে; তা খতিয়ে দেখবেন চিকিৎসকরা।

কিছুদিন আগেই কৃষ্ণনগরে, সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ ফস্কে মুকুল বলে ফেলেন; “কৃষ্ণনগরে উপনির্বাচন হলে তৃণমূল পর্যূদস্ত হবে; বিজেপি স্বমহিমায় ফিরে আসবে। পরে শুধরে নিলেও, তাঁর সেই বক্তব্যের ভিডিয়ো; রীতিমতো ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে দেখা যায়, মুকুলের পিছনে দাঁড়ানো একজন; তাঁকে শুধরে দেওয়ারও চেষ্টা করছেন। কিন্তু মুকুল রায় তাতে; ভ্রূক্ষেপ করছেন না।

আরও পড়ুনঃ ‘অনুপ্রেরণায় থিম’, মুখ্যমন্ত্রীর মুখের আদলে দুর্গাপ্রতিমা এবারের চমক

এই ধরনের কথাবার্তা অসুস্থতার লক্ষণ, না কি রাজনৈতিক কৌশল; সেটা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। তবে এবার অসুস্থ হয়েই; হাসপাতালে ভর্তি হলেন মুকুল। তাঁর হিতাকাঙ্ক্ষীরা মনে করছেন, গত কয়েক মাস ধরে ব্যক্তিগত বিভিন্ন ঘটনাপ্রবাহে; মুকুল অভূতপূর্ব চাপের মধ্যে রয়েছেন। তারই ফলে মাঝেমধ্যে; অসংলগ্ন কথা বলে ফেলছেন। মূলত সেই কারণে তিনি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গেও; কথা বলতে চান না এখন।

আরও পড়ুনঃ আদালতে আত্মসমর্পণ বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউরির

ভোটে লড়া, পুত্র শুভ্রাংশুর ভোটে হেরে যাওয়া; দলবদল এবং তার পরে পত্নী-বিয়োগের মতো ঘটনাপ্রবাহ; গত কয়েক মাসে মুকুলকে অনেকটাই শারীরিক এবং মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত করেছে। ফলে অতীতের চৌখস এবং মেপে কথা-বলা নেতাকে; আর দেখা যাচ্ছে না। মুকুলের এক হিতৈষীর কথায়; ‘‘দাদার শরীরটা একেবারেই ভাল যাচ্ছে না; স্ত্রী-র মৃত্যুর পরে মানসিক ভাবেও অনেকটা ভেঙে পড়েছেন”। এবার অসুস্থ হয়েই; এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি মুকুল রায়।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন