মসজিদ না, ৫ একর জমিতে হাসপাতাল তৈরি করবো, বললো সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড

1845
মসজিদ না, আমরা হাসপাতাল তৈরি করবো, বললো সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড

“মসজিদ না, আমরা হাসপাতাল তৈরি করবো”; বলল সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড। রামমন্দির বাবরি মসজিদ মামলার লড়াইয়ে; শীর্ষ আদালতের রায় গিয়েছিল হিন্দুদের পক্ষে। মুসলিমদের মসজিদ নির্মাণের জন্য; দেওয়া হয়েছিল পাঁচ একর জমি। হিন্দুদের স্বপ্নপূরণ হয়েছে। ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের মাধ্যমে; রামন্দির নির্মাণের সূচনা হয়েছে। তবে এবার উত্তরপ্রদেশ সুন্নি কেন্দ্রীয় ওয়াকফ বোর্ড; এক ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মামলায় তাদের ভাগের পাঁচ একর জমিতে; হাসপাতাল তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড।

আরও পড়ুনঃ গল্প হলেও সত্যি, কেউ শেষ কেউ জেলে, রামমন্দির বিরোধীরা ভুগছেন কর্মফল

অযোধ্যা ভূমি বিবাদ মামলায়; সুপ্রিম কোর্টের রায় হিসাবে; এই অংশে বরাদ্দকৃত পাঁচ একর জমি তারা গ্রহণ করেছে। মসজিদ নির্মাণের পাশাপাশি; একটি ইন্ডো-ইসলামিক সেন্টার; জমির ওপর একটি দুর্দান্ত হাসপাতাল এবং একটি পাবলিক লাইব্রেরিও গঠন করা হবে; জানিয়েছে বোর্ড। এসসিডব্লিউবি চেয়ারম্যান জুফার আহমেদ ফারুকী জানান; একটি ট্রাস্ট গঠন করে; গোটা বিষয়টি পর্যালোচনা করা হবে।

ট্রাস্টটি এমন একটি কেন্দ্রও তৈরি করবে; যা সমৃদ্ধ ইন্দো-ইসলামিক সংস্কৃতি তুলে ধরবে। তিনি আরও বলেছিলেন; ইন্দো-ইসলামিক সেন্টার, একটি হাসপাতাল এবং একটি গ্রন্থাগার নির্মাণের ভাবনা রয়েছে বোর্ডের। রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ বিবাদে; নভেম্বর ২০১৯ সালে ঐতিহাসিক রায়ে; সুপ্রিম কোর্ট মন্দির নির্মাণের পক্ষে রায় দিয়েছিল। অযোধ্যার মধ্যে একটি মসজিদের জন্য পাঁচ একর জমি দেওয়া হয় মুসলিমদের।

আরও পড়ুনঃ রামমন্দিরের পর এবার টার্গেট কৃষ্ণের জন্মভূমি, কৃষ্ণমন্দির

যখন রামমন্দিরের শিলাণ্যাস করে; দেশের হিন্দুদের স্বপ্ন বাস্তবায়িত করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। বিরোধী সহ দেশবাসীর একাংশের তরফে প্রশ্ন উঠেছে; এই করোনা আবহে যখন রোজই প্রাণের বলি হচ্ছে; সেই সময় কিভাবে দেশের প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসা ব্যবস্থাকে সুরক্ষিত না করে; রাম মন্দির নির্মাণে ব্যস্ত থাকেন? অনেকে রামমন্দিরের পরিবর্তে; ওই জায়গায় হাসপাতাল করা উচিৎ; এই মতামতও জানিয়েছিলেন।

তবে রামলালা ট্রাস্ট তাতে কান না দিয়ে; নিজেদের স্বপ্ন সফল করতে রামমন্দিরের সূচনা করলেন; এমনটাই অভিযোগ। রামমন্দিরের জায়গায় হাসপাতাল না হলেও; সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড তাদের পাঁচ একর জমিতে হাসপাতাল গড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে, এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হয় কিনা; সেটাই এখন দেখার।

ঠকবেন না, পশ্চিমবঙ্গের একমাত্র আসল করোনা প্রোডাক্ট বিক্রেতা
Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন