হিন্দি বলয়ের ভোট পেতে, রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজোর জন্য সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য সরকার, আবেদন খারিজ

1346
হিন্দি বলয়ের ভোট পেতে, রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজোর জন্য সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য সরকার, আবেদন খারিজ
হিন্দি বলয়ের ভোট পেতে, রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজোর জন্য সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য সরকার, আবেদন খারিজ

রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজো করা যাবে না; জাতীয় পরিবেশ আদালতের রায় অনেক আগে থেকেই ছিল। কিন্তু এবার, হিন্দি বলয়ের ভোট পেতে; রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজোর অনুমতির জন্য; সুপ্রিম কোর্টে যায় রাজ্য সরকার। সেই আবেদন খারিজ করে, নিয়ম ভাঙলে; রাজ্যকে কড়া ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ শীর্ষ আদালতের। রবীন্দ্র সরোবরে এবছর; ছট পুজো করা যাবে না; কেএমডিএ-র আবেদন খারিজ করে দিয়ে জানাল সুপ্রিম কোর্ট। বহাল রাখল রবীন্দ্র সরোবর নিয়ে; জাতীয় পরিবেশ আদালতের রায়। রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজো করার জন্য; আবেদন করেছিল কেএমডিএ। বৃহস্পতিবার ফের সেই আবেদনের; জরুরি ভিত্তিতে শুনানি হয়। তারপরই কেএমডিএ-র আবেদন খারিজ করে; সুপ্রিম কোর্ট।

এদিকে রবীন্দ্র সরোবরের পর; এবার সুভাষ সরোবরেও নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখে কলকাতা হাইকোর্ট। পরিবেশগত দিক দিয়ে; এই দুটি বৃহৎ জলাশয়ের অত্যন্ত্ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে; তা নিশ্চিত করে, সেখানেও ছট পুজো বাতিল করে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে পরিবেশ আদালত এবং কলকাতা হাইকোর্টের রায়; বহাল রাখল সুপ্রিম কোর্ট। জানিয়ে দিল, রবীন্দ্র সরোবর এবং সুভাষ সরোবরে; এ বছর ছট পুজো হবে না।

আরও পড়ুনঃ গরু পা’চারে যুক্ত রাজনৈতিক নেতা থেকে পুলিশ অফিসার

পরিবেশ রক্ষার পাশাপাশি; করোনা রোধে এই পদক্ষেপ। তারপরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা, একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে; আমজনতাকে বললেন; “‌আদালতের নির্দেশ আমাদের মেনে চলতে হবে। ছোট ছোট দলে দূরত্ববিধি মেনে; ছটপুজোয় আপনারা অংশ নিন। সরকার এবং পুলিশ–প্রশাসন পাশে রয়েছে”। “ভোটের কারণে রাজ্য সরকার, পরিবেশ আদালতের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও; রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজোর জন্য সুপ্রিম কোর্টে যায়। সুপ্রিম কোর্ট সেই আবেদন; খারিজ করে দিয়েছে”; জানিয়েছেন পরিবেশবিদ সুভাষ দত্ত।

শুক্রবার ও শনিবার ছট পুজো। গত বছর, রবীন্দ্র সরোবর লেকে; ছট পুজোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল গ্রিন ট্রাইবুনাল। সেই নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে; রবীন্দ্র সরোবরের তালা ভেঙে জোর করে ঢুকে পরে বেশ কয়কেজন। ট্রাইবুনালের নির্দেশের পর, কলকাতা পুরসভার পক্ষ থেকে রবীন্দ্র সরোবরের বিভিন্ন জায়গায়; নোটিশ টাঙিয়ে দেওয়া হলেও তার তোয়াক্কা না করেই; চলে পুজো। কোন ব্যবস্থা নেয় নি; পুলিশ-প্রশাসন। এবার নিয়ম ভাঙলে, কড়া ব্যবস্থা নিতে; রাজ্য সরকারকে নির্দেশ, দেশের শীর্ষ আদালতের।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন