‘পোশাক না খুললে পকসো নয়’, নাবালিকা যৌন নির্যাতনে হস্তক্ষেপ সুপ্রিম কোর্টের

2963
পোশাক না খুললে পকসো নয়, নাবালিকা যৌন নির্যাতনে হস্তক্ষেপ সুপ্রিম কোর্টের
পোশাক না খুললে পকসো নয়, নাবালিকা যৌন নির্যাতনে হস্তক্ষেপ সুপ্রিম কোর্টের

পকসো আইন নিয়ে; বম্বে হাইকোর্টের রায়ের উপর স্থগিতাদেশ দিল শীর্ষ আদালত। “পোশাক না খুলে শরীর স্পর্শ করলে; যৌন নির্যাতন নয়” বম্বে হাইকোর্টের নাগপুর বেঞ্চের মহিলা বিচারপতি পুষ্প গানেদিওয়ালার এমন রায়ে প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে ওঠে সারা দেশ। শারীরিক স্পর্শ ছাড়া; কোনও নাবালিকার জামার ওপর দিয়ে বুকে হাত দেওয়া ঘটনাকে; পকসো আইনের আওতায় যৌন নির্যাতন হিসেবে বিবেচনা করা যাবে না; এই রায়ে দেশজুড়ে শুরু হয়ে যায় বিতর্ক। বুধবার বম্বে হাইকোর্টের এই রায়ের উপর স্থগিতাদেশ জারি করল সুপ্রিম কোর্ট। এদিন অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে বেণুগোপাল আদালতে বম্বে হাইকোর্টের ওই রায়কে ‘বিপজ্জনক নজির’ বলে জানিয়েছিলেন।

গত ১৯ জানুয়ারি; বম্বে হাইকোর্টের নাগপুর বেঞ্চের মহিলা বিচারপতি পুষ্প গানেদিওয়ালা জানিয়েছিলেন যে; “অঙ্গপ্রবেশ না ঘটিয়ে; যদি কোনও শিশুকে যৌন ইচ্ছায় স্পর্শ করা হয়; সেটা যৌন নির্যাতন বলেই বিবেচিত হবে। তবে শিশুদের জামাকাপড় না খুলিয়ে; বা জামাকাপড়ের ভিতরে হাত গলিয়ে; তাদের বুক বা গোপনাঙ্গ স্পর্শ করা হলে; সেটা যৌন নির্যাতন বলে ধরা হবে না পকসো আইনে”।

আরও পড়ুনঃ লালকেল্লায় ত্রিরঙ্গা ছাড়া গেরুয়া, লাল, নীল, হলুদ কিছুই চাই না, দাবি দেশবাসীর

২০১৬ সালে ১২ বছর বয়সি একটি শিশুর বুকে চাপ দেওয়া; ও তার জামাকাপড় খোলানোর চেষ্টার দায়ে অভিযুক্তের আবেদনের প্রেক্ষিতে; এ কথা জানায় বোম্বে হাইকোর্টের নাগপুর বেঞ্চ। এই রায় নিয়ে; অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন যে; এই নির্দেশ অত্যন্ত উদ্বেগজনক ও একটি বিপজ্জনক উদাহরণ তৈরি হয়ে যেতে পারে এর জেরে।

আরও পড়ুনঃ নন্দীগ্রামে কি ‘সেফ’ মমতা, শুভেন্দুর হুঙ্কার ‘খতিয়ে’ দেখতে সমীক্ষার দায়িত্ব সুব্রতকে

অ্যাটর্নি জেনারেল এই মামলাটির প্রসঙ্গ উত্থাপন করে প্রধান বিচারপতির বেঞ্চের কাছে। বিচারপতি বোবডের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ অভিযুক্ত ও মহারাষ্ট্র সরকারকে নোটিস পাঠিয়েছে। দুই সপ্তাহের মধ্যে উত্তর দিতে হবে। তবে ততদিন হাইকোর্টের রায়ের ওপর; স্থগিতাদেশ দিয়ে দিল আদালত।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন