‘নিজের গদি বাঁচাতে ৫০ লক্ষ মানুষকে জলে ডুবিয়েছেন দিদিমণি’, বিস্ফোরক শুভেন্দু

2435
‘নিজের গদি বাঁচাতে ৫০ লক্ষ মানুষকে জলে ডুবিয়েছেন দিদিমণি’, বিস্ফোরক শুভেন্দু
‘নিজের গদি বাঁচাতে ৫০ লক্ষ মানুষকে জলে ডুবিয়েছেন দিদিমণি’, বিস্ফোরক শুভেন্দু

‘নিজের গদি বাঁচাতে ৫০ লক্ষ মানুষকে; জলে ডুবিয়েছেন দিদিমণি’; বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। শনিবার, তমলুকের কাঁকটিয়া বাজারে, গান্ধী জয়ন্তী পালন করতে এসে; নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক বলেন; “দিদিমণির জন্যই রাজ্যে বন্যা এসেছে। নিজের মুখ্য়মন্ত্রীর চেয়ার বাঁচাতে; ভবানীপুর নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন দিদিমণি। প্রি-মরশুমি কাজ যা দেড়-দুই শতক ধরে চলে আসছে; সেই সব কাজ কিছুই করেননি তিনি। লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের ১৮ হাজার কোটি টাকার; ভাতা দিতে ব্যস্ত ছিলেন। ফলে বাঁধ মেরামত হয়নি; কোনও পরিকল্পনা না করার ফলেই এই পরিস্থিতি”।

দুমাস আগে রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি দেখে, উদ্বেগ প্রকাশ করে; প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ডিভিসি জলছাড়া ইস্যুতে সরকারিভাবে; খোদ প্রধানমন্ত্রীর কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছিলেন তিনি। চারপাতা সেই চিঠির প্রথম লাইনেই; মুখ্য়মন্ত্রী লিখেছিলেন এই বন্যা ‘ম্যান মেড’। স্পষ্ট করে মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছিলেন; “ডিভিসির জল ছাড়ার জন্যই ডুবছে; হাওড়া, হুগলি, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম এবং পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো জেলা।

আরও পড়ুন; সরকারি হাসপাতালে ডাক্তারের সঙ্গে মেডিক্যাল রিপ্রেজেনটেটিভদের আড্ডা, বাইরে রোগীর বিশাল লাইন

যদিও পাল্টা ডিভিসির পক্ষ থেকে সেই সময় জানানো হয়েছিল; রাজ্য সরকারকে না জানিয়ে একটুও জল ছাড়ে না তারা। জল ছাড়ার পুরো বিষয়টিই; রাজ্যের গোচরে রয়েছে। এবারও মুখ্যমন্ত্রী ফের, ডিভিসির জলছাড়া দেখে; ‘ম্যান মেড’ তত্ত্বের কথা বলেছেন। এদিকে ডিভিসি সূত্রে খবর, মাইথনে জল ছাড়ার পরিমাণ বাড়িয়ে; ১ লক্ষ ১৫ হাজার কিউসেক করা হয়েছে। দিনে মোট দেড় লক্ষ কিউসেক হারে; জল ছাড়া হচ্ছে।

অন্যদিকে, পাঞ্চেত ড্যাম থেকে জল ছাড়া হচ্ছে; ৩৫ হাজার কিউসেক হারে। ঝাড়খণ্ডে যদি ফের বৃষ্টি হয়; তবে জল ছাড়ার পরিমাণ বাড়ানো হবে। এরপরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা অভিযোগ করেছেন; রাতের অন্ধকারে লুকিয়ে জল ছাড়া হচ্ছে। বঙ্গে বন্যা পরিস্থিতি ম্যান-ম্যাড বলেই; ফের অভিযোগ করেছেন মমতা।

তারই পাল্টা এবার তাঁকেই; রাজ্যের এই বন্যার জন্য দায়ী করলেন শুভেন্দু। সুর চড়িয়ে তিনি বলেন; “দুর্বল বাঁধের মেরামত হয়নি; অতিবর্ষণে ভেঙে গিয়েছে। নিজের মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ার বাঁচাতে; উনি ৫০ লক্ষ মানুষকে ডুবিয়েছেন। এই অপরাধ ঈশ্বরও; ক্ষমা করবেন না। এখানে ডিভিসির কোনও দোষ নেই; সবই বানিয়ে বানিয়ে বলছেন দিদিমণি”।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন